‘MACD’ ক্রস করতে যাচ্ছে ডিএসইএক্স ইনডেক্স

0
2609

মেহেদী আরাফাত : টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস অনুযায়ী বুধবার ঢাকা শেয়ার বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়- ডিএসইএক্স ইনডেক্স লেনদেনের শুরু থেকেই বৃদ্ধি পেতে থাকে। বেলা বাড়ার সাথে সাথে ডিএসই এক্স ইনডেক্স এবং লেনদেন উভয়ই বাড়তে থাকে এবং দিন শেষে ডিএসইএক্স ইনডেক্স স্টার ক্যান্ডেলস্টিক তৈরি  করে। ডিএসই এক্স ইনডেক্স ৩.৪১ পয়েন্ট বৃদ্ধি পেয়ে ৪৫৭৩.৪২ পয়েন্টে অবস্থান করছে, যা আগের দিনের তুলনায় ০.০৭% বৃদ্ধি পেয়েছে।

TA বিস্লেশকদের কাছে ‘MACD’ একটি জনপ্রিয় ইনডিকেটর। ডিএসইএক্স ইনডেক্স এর ‘MACD’ দেখলে দেখা যায়ে, ‘MACD LINE’ যখন ‘SIGNAL LINE’ কে নিচ থেকে ক্রস করে তখন ডিএসইএক্স ইনডেক্স বৃদ্ধি পায়।এটাকে ‘POSITIVE MACD CROSS OVER’ বলে। ডিএসইএক্স ইনডেক্স এর ‘MACD’ এই পর্যন্ত মোট ২০ বার ‘POSITIVE CROSS OVER’ করেছিল। ‘POSITIVE MACD CROSS ’ করার অল্প সময়ের মধ্যে মার্কেট ভালভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছিল। পরের কার্জ দিবসে ইনডেক্স ভালভাবে বৃদ্ধি পেলে POSITIVE MACD CROSS OVER  হবে। এজন্য পরের কার্জ দিবসের লেনদেন খুবই গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করেন TA বিস্লেশকরা।

বর্তমানে ডিএসই এক্স ইনডেক্স এর পরবর্তী সাপোর্ট ৪৫০৮ পয়েন্টে এবং রেজিটেন্স ৪৭২৭ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আজ বাজারে এম.এফ.আই এর মান ছিল ২৬.২৭ এবং আল্টিমেট অক্সিলেটরের মান ছিল ৪৩.৮১। এম.এফ.আই কিছুটা উদ্ধমুখি অবস্থান করছে এবং আল্টিমেট অক্সিলেটর কিছুটা উদ্ধমুখি অবস্থান করছে।Screenshot_1

ডিএসইতে ৯ কোটি ৪৩ লাখ ১ হাজার ৫২০ টি শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড লেনদেন হয়, যার মূল্য ছিল ৩৬২ কোটি টাকা। ডিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ২৫ কোটি টাকা। ঢাকা শেয়ারবাজারে ৩২৬ টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে, যার মধ্যে দাম বেড়েছে ১৫৭ টির, কমেছে ১৩১ টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৮ টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম।

পরিশোধিত মূলধনের দিক থেকে দেখা যায়, বাজারে চাহিদা বেশী ছিল ৫০-১০০ কোটি টাকার পরিশোধিত মূলধনী প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের যা আগেরদিনের তুলনায় ৮০.৯৫% বেড়েছে। অন্যদিকে বেড়েছে ১০০-৩০০ এবং ৩০০ কোটি টাকার উপরে পরিশোধিত মূলধনী প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের যা আগেরদিনের তুলনায় ২৪.৯১% এবং ৩০.৯৪% বেশী। অন্যদিকে ০-২০ কোটি টাকার পরিশোধিত মুলধনী প্রতিষ্ঠানের লেনদেনের পরিমান গতকালের তুলনায় ৪০.৬২% বেড়েছে।

পিই রেশিও ৪০ এর উপরে থাকা শেয়ারের লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ১৫.৩৯% বেড়েছে। অন্যদিকে পিই রেশিও ২০-৪০ এর মধ্যে থাকা শেয়ারের লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ৪২.৭৫% বেড়েছে।

ক্যাটাগরির দিক থেকে এগিয়ে ছিল ‘এন’ ক্যাটাগরির শেয়ারের লেনদেন যা আগেরদিনের তুলনায় ১১.৮৮% বেশী ছিল। বেড়েছে ‘বি’ এবং ‘জেড’ ক্যাটাগরির শেয়ারের লেনদেন যা আগেরদিনের তুলনায় ৩৭.২৪% এবং ৩৫.৭৯% বেশী ছিল।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here