৩০ ডিসেম্বর ডিএসইর এজিএম অনুষ্ঠিত

0
50

স্টাফ রিপোর্টার : দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ লিমিটেডের ৫৮তম বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) ৩০ ডিসেম্বর, ২০১৯  তারিখে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার মাল্টিপারপাস হল, ডিএসই টাওয়ার, লেভেল-১২, নিকুঞ্জ ঢাকায় ডিএসইর এজিএম অনুষ্ঠিত হয়৷ সভায় সভাপতিত্ব করেন ডিএসই’র চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আবুল হাশেম৷ শেয়ারহোল্ডারদের উপস্থিতিতে ডিএসইর চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আবুল হাশেম স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন।

অধ্যাপক ড. আবুল হাশেম বলেন, ডিএসই’র বার্ষিক সাধারণ সভা এগিয়ে আনার যে দাবী ডিএসই সদস্যরা করেছিলেন, সেই দাবীর সাথে ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদ একাত্ব হয়ে মহামান্য হাইকোর্টের অনুমতি নিয়ে এ বছরেই ৫৮তম বার্ষিক সাধারণ সভা করতে সক্ষম হন৷

গত বার্ষিক সাধারণ সভার বেশকিছু প্রস্তাবনা ডিএসইর পরিচালনা পর্ষদ বিশেষ গুরুত্বসহকারে বিবেচনায় নিয়ে প্রত্যাশা পুরণের চেষ্টা করেছেন৷ প্রধান যে কাজটি করা হয়েছে তাহলো ডিএসই অফিস নিকুঞ্জ ভবনে স্থানান্তরকরণ৷ ভবনটির পুরোমাএায় কার্যক্রম শুরু হবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক উদ্বোধনের মাধ্যমে৷ ইতোমধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সদয় সম্মতির জন্য আবেদন করা হয়েছে৷ তিনি আশা প্রকাশ করেন খুব শীঘ্রই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে ডিএসই’র নতুন ভবন পুঁজিবাজারের প্রাণকেন্দ্রে পরিণত হবে৷

কৌশলগত বিনিয়োগকারীদের সাথে উন্নয়নমূলক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে আজ ডিএসইতে নতুন ইনডেক্স ও বিজনেস প্রসেস ম্যানেজমেন্টের পাইলট ভার্সন উদ্বোধন করা হলো। এছাড়াও ডিএসইতে কিছু উন্নয়ন কার্যক্রম চলমান আছে যা সম্পন্ন করার মধ্য দিয়ে পুঁজিবাজারের ভিত আরো মজবুত হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

তিনি আরো বলেন, বছর জুড়েই বাজারের গতি মন্থর থাকলেও পণ্যের বহুমূখীতায় “ডিএসই এসএমই প্লাটফর্ম” চালু করেছে৷ যা উদ্বোধন করেন মাননীয় অর্থমন্ত্রী জনাব আ হ ম মোস্তফা কামাল৷ যার মাধ্যমে স্বল্প মূলধনী ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ডিএসইতে তালিকাভুক্তির মাধ্যমে প্রয়োজনীয় মূলধন সংগ্রহের নতুন ও সম্ভাবনাময় দ্বার উন্মোচিত হয়েছে৷ ইতোমধ্যে একটি কোম্পানি প্রসপেক্টাসও জমা দিয়েছেন৷ নতুন বছরের প্রথম প্রান্তিকেই এটির লেনদেন শুরু করা সম্ভব হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

ডিএসই’র সেকেন্ডারি মার্কেটে সরকারী বন্ডসমূহ ট্রেডেবল করার জন্য বিএসইসি, বাংলাদেশ ব্যাংক এবং ডিএসই একটি কার্যকর কমিটি কাজ করছে৷ কমিটি বিএসইসিতে তাদের রিপোর্ট জমা দিয়েছে৷ যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদন সাপেক্ষে আগামী বছরের প্রথম প্রান্তিকেই বন্ডের লেনদেন ডিএসই’র সেকেন্ডারি মার্কেটে শুরু হবে বলে আশা করা যাচ্ছে৷

শেয়ারহোল্ডারদের উপস্থিতিতে বার্ষিক সাধারণ সভায় ২০১৯ সালের ৩০শে জুন তারিখে সমাপ্ত অর্থবছরের কোম্পানির পরিচালকমন্ডলীর প্রতিবেদন, নিরীক্ষকবৃন্দের প্রতিবেদন, নিরীক্ষিত আর্থিক বিবরণী গ্রহণ, বিবেচনা ও সর্বসম্মতভাবে অনুমোদিত হয়৷

এছাড়াও ৩০ জুন ২০১৯ তারিখে সমাপ্ত অর্থবছর পরিচালনা পর্ষদের সুপারিশকৃত ০৫ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা সর্বসম্মতিক্রমে অনুমোদিত হয় এবং পরবর্তী অর্থবছরের জন্য নিরীক্ষক নিয়োগ ও তাঁদের পারিতোষিক নির্ধারণ করা হয়৷ ২৯ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে অনুষ্ঠিত ডিএসই’র পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচন ২০১৯ এর আনুষ্ঠানিক ফলাফল ঘোষণা করেন নির্বাচন কমিশনের সদস্য জনাব মঞ্জুর উদ্দিন আহমেদ এবং এর মাধ্যমে বোর্ড নতুন পরিচালক অন্তর্ভূক্ত করা হয়।

উল্লেখ্য যে, ৫৮ তম বার্ষিক সাধারণ সভায় ডিএসই’র পরিচালনা পর্ষদ থেকে এ বছর অবসরপ্রাপ্ত ২ (দুই) জন পরিচালক শরীফ আতাউর রহমান এবং মোঃ হানিফ ভূইয়ার স্থলাভিষিক্ত হন যথাক্রমে মোহাম্মদ শাহজাহান, ব্যবস্থাপনা পরিচালক জাহান সিকিউরিটিজ লিঃ এবং মোঃ শাকিল রিজভী, ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাকিল রিজভী স্টক লিঃ।

সভায় ডিএসই টাওয়ার প্রজেক্ট, নতুন প্রোডাক্টসহ বাজার উন্নয়নে শেয়ারহোরল্ডারদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন ডিএসই’র ব্যবস্থাপনা পরিচালক (ইনচার্জ) আবদুল মতিন পাটওয়ারী, এফসিএমএ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here