১৮টি কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ

0
1188

স্টাফ রিপোর্টার : ১৮টি কোম্পানি দ্বিতীয় প্রান্তিকের (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৯) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। কোম্পানি সূত্রে জানা তথ্য নিচে:

ডরিন পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড : কোম্পানিটির কনসলিডেটেড শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১ টাকা ১৬ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল১ টাকা ২৫ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির কনসলিডেটেড শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ৩১ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল ৩ টকা ৪৩ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির কনসলিডেটেড শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪১ টাকা ৯১ পয়সা।

আনলিমা ইয়ার্ন : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১৫ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ১৯ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৪ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল ১৬ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১০ টাকা ৭৯ পয়সা।

কুইন সাউথ টেক্সটাইল লিমিটেড : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ২১ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৩২ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫৬ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল ৭৬ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৬ টাকা ২৪ পয়সা।

লিগ্যাসি ফুটওয়্যার লিমিটেড : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ২০ পয়সা (রিস্টেটেড) ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ১ টাকা ৭৮ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৯ পয়সা (রিস্টেটেড) ও আগের বছর একই সময় ছিল ৩ টাকা ৩৫ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ১৯ পয়সা।

সাফকো স্পিনিং : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৪৭ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ১ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ১ টাকা ৯৯ পয়সা ও আগের বছর একই সময় আয় ছিল ১০ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২৮ টাকা ৩৯ পয়সা।

আর এন স্পিনিং : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৩৫ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ১০ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৭৫ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল ২৯ পয়সা।৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪৫ পয়সা।

জিকিউ বলপেন : কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৬৯ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল ৬৬ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৪৫ টাকা ৪৮ পয়সা।

এএফসি অ্যাগ্রো বায়োটেক লিমিটেড : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৩১ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৭০ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮১ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল  ১ টাকা ৩৭ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ৩৫ পয়সা।

এমএল ডায়িং লিমিটেড : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৫০ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৩৬ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯৪ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল ৭০ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৬ টাকা ৪১ পয়সা।

ইউনাইটেড পাওয়ার : সমন্বিতভাবে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ২ টাকা ৯৫ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৩ টাকা ৬২ পয়সা।

গত ছয় মাসে (জুলাই’১৯-ডিসেম্বর,১৯) ইউনাইটেড পাওয়ারের কনসোলিডেটেড ইপিএস হয়েছে ৬ টাকা ২ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল ৮ টাকা ৪৮ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৪ টাকা ৫৩ পয়সা ও গত বছরের একই সময়ে যার পরিমাণ ছিল ৪ টাকা ৮৩ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে সমন্বিতভাবে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৫১ টাকা ২৬ পয়সা।

সায়হাম টেক্সটাইল : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ২৬ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৪৯ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৫৭ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল ১ টাকা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৪৪ টাকা ১ পয়সা।

প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের লিমিটেড : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১ টাকা ৩৮ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৫৬ পয়সা (রিস্টেটেড)।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৬১ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল ১ টাকা ১০ পয়সা (রিস্টেটেড)। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২২ টাকা ৪১ পয়সা।

প্রাইম টেক্সটাইল মিলস লিমিটেড : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৫ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ২১ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল ৪৮ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ৭৪ টাকা ২১ পয়সা।

মুন্নু সিরামিকস লিমিটেড : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১ টাকা ৭৪ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ১ টাকা ৭৬ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৫৯ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল ৩ টাকা ৩৫ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৬  টাকা ৪২ পয়সা।

আরডি ফুড : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ০৮ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ০৭ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৫ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল ২১ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৪ টাকা ৪৩ পয়সা।

এটলাস বাংলাদেশ লিমিটেড : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৪১ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে ছিল ৫২ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৭৯ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল ৭০ পয়সা।৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৩২ টাকা।

স্ট্যাইল ক্রাফট লিমিটেড : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ১৮ পয়সা (রিস্টেটেড) ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ৮৪ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৯ পয়সা (রিস্টেটেড) ও আগের বছর একই সময় ছিল ১ টাকা ৫৯ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ২৬ টাকা ৯২ পয়সা (রিস্টেটেড)।

সেন্ট্রাল ফার্মাসিটিক্যালস লিমিটেড : কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৪ পয়সা ও আগের বছর একই সময়ে আয় ছিল ১৫ পয়সা।

ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর,১৯) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১১ পয়সা ও আগের বছর একই সময় ছিল ৪৪ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য দাঁড়িয়েছে ১৬ টাকা ১ পয়সা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here