সোনালী লাইফের দর একদিনেই বাড়ল ৫ গুণ

0
360

সিনিয়র রিপোর্টার : সর্বশেষ কার্যদিবসে ক্লোজ প্রাইস ছিল ১৬ টাকা। আর সোমবার প্রথম লেনদেনই শুরু হয় ৬০ টাকায়। শেয়ারটির সর্বোচ্চ দর ওঠে ৯৩ টাকা ৫০ পয়সা। দিন শেষে ক্লোজ প্রাইস ছিল ৮৬ টাকা ৫০ পয়সা।

সোমবার দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) একদিনে পাঁচ গুণের বেশি দর বাড়া এই শেয়ার হল সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স; যা এদিন ব্যাপক আলোচনারও জন্ম দিয়েছে।

নতুন তালিকাভুক্ত শেয়ারটির একদিনে এতটা দর বাড়ার সুযোগ তৈরি হয় এদিন দর বাড়া-কমায় সার্কিট ব্রেকার না থাকার কারণে।

নিয়ম অনুযায়ী, পরিচালনা পর্ষদে লভ্যাংশ ঘোষণার সুপারিশের পরের কার্যদিবসে একটি শেয়ার কেনাবেচার দরের ক্ষেত্রে ‘নো প্রাইস’ লিমিট থাকে।

নতুন তালিকাভুক্ত সোনালী লাইফের পর্ষদ সম্প্রতি ৩১ ডিসেম্বর শেষ হওয়া ২০২০ অর্থবছরে বিনিয়োগকারীদের জন্য নগদ ১০ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করে। অর্থাৎ প্রতিশেয়ারে বিনিয়োগকারীরা ১ টাকা করে পাবেন।

একই দিন ২০২১ সালের প্রথম প্রান্তিকের জন্য ২ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করে। অর্থাৎ প্রতিশেয়ারে বিনিয়োগকারীরা ২০ পয়সা করে পাবেন। উভয় ঘোষণার রেকর্ড ডেট ৪ অগাস্ট।

লভ্যাংশ ঘোষণার এমন খবরে ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের শেয়ারটির দর দিন শেষে ৭০ টাকা ৫০ পয়সা বেড়ে ৮৬ টাকা ৫০ পয়সাল লেনদেন শেষ হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার শেয়ারটি ১৬ টাকায় লেনদেন হয়েছিল। শতকরা হিসাবে আগের দিনের তুলনায় তুলনায় ৪৪১ শতাংশ দর বেড়েছে।

গত ৩০ জুন তালিকাভুক্ত হওয়া শেয়ারটির লেনদেন শুরু হয়েছিল ১০ টাকা দরে। এরপর থেকে পরবর্তী ৫ দিনের লেনদেনে দর বেড়ে হয়েছিল ১৬ টাকা।

সাম্প্রতিক সময়ে একদনি এতটা দর বাড়ার ঘটনা নেই দেশের উভয় পুঁজিবাজারে বলে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন।

এদিন শেয়ারটি সর্বনিম্ন ৬০ টাকায় এবং সর্বোচ্চ ৯৩ টাকা ৫০ পয়সায় লেনদেন হয়। সোমবার শেয়ারটি ৮৫ হাজার ১০৭ বার হাত বদল হয়ে টাকার অঙ্কে ৫১ কোটি ৫২ লাখ টাকা লেনদেন হয়েছে।

লেনদেন হওয়া শেয়ারের পরিমাণ ৭০ লাখ ৭৯ হাজার ৮৭৯টি। এই পরিমাণ শেয়ার কোম্পানিটির মোট শেয়ারের ১৪ দশমিক ৯০ শতাংশ। অন্যদিকে আগের ৫ দিনে মাত্র ২৫ হাজার ৩২৪টি শেয়ার লেনদেন হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here