সোনালী পেপারের আয় বাড়ল ১০ গুণ

0
199

সিনিয়র রিপোর্টার : পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সোনালী পেপার চলতি অর্থবছরের প্রথম প্রান্তিকে গত বছরের একই সময়ের তুলনায় আয় ১০ গুণের বেশি বাড়াতে পেরেছে। গত ৩০ জুন সমাপ্ত অর্থবছরে কোম্পানিটি যে পরিমাণ আয় করেছিল, তার প্রায় দেড় গুণ আয় হয়েছে জুলাই থেকে সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তিন মাসে।

মঙ্গলবার কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদের বৈঠকে প্রথম প্রন্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনার পর তা প্রকাশ করা হয়।

এই প্রতিবেদন অনুযায়ী কোম্পানিটি গত তিন মাসে শেয়ার প্রতি ৬ টাকা ৬৬ পয়সা আয় করেছে। গত বছর একই সময়ে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৬৩ পয়সা। গত জুনে সমাপ্ত অর্থবছরে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৪ টাকা ৮৯ পয়সা।

ওটিসি ফেরত স্বল্প মূলধনি কোম্পানিটি গত ৩০ জুন সমাপ্ত অর্থবছরের জন্য বিনিয়োগকারীদেরকে ২০ শতাংশ বোনাস ও ২০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। অর্থাৎ বিনিযোগকারীরা প্রতি পাঁচটি শেয়ারের বিপরীতে একটি শেয়ার ও শেয়ার প্রতি ২ টাকা করে লভ্যাংশ পাবেন।

আবার এই বোনাস শেয়ার পাওয়ার পর ২০ শতাংশ দেয়া হবে রাইট শেয়ার। নিয়ন্ত্রক সংস্থা অনুমোদন করলে ১০ টাকা অভিহিত মূল্যেই এই রাইট শেয়ার দেবে কোম্পানিটি।

কোম্পানিটির আয়ের পাশাপাশি সম্পদমূল্যও কিছুটা বেড়েছে। গত ৩০ জুন সমাপ্ত অর্থবছরে শেয়ার প্রতি সম্পদমূল্য ছিল ২৮৪ টাকা ৩৩ পয়সা। সেটি বেড়ে সেপ্টেম্বরে হয়েছে ২৯০ টাকা ৯৯ পয়সা।

কোম্পানি কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আলোচিত প্রান্তিকে পণ্য বিক্রি ও অন্যান্য খাতে আয় বৃদ্ধি পাওয়ায় মুনাফা ও ইপিএস বেড়েছে।

আয় বাড়লেও কোম্পানির শেয়ার প্রতি ক্যাশ ফ্লো কমেছে। ৩০ সেপ্টেম্বর সমাপ্ত প্রথম প্রান্তিকে এই ক্যাশ ফ্লো ছিল ২ টাকা ৫১ পয়সা, যা আগের বছর একই সময়ে ৭ টাকা ২৬ পয়সা ছিল।

কোম্পানিটি জানিয়েছে, এই সময়ে প্রচুর কাঁচামাল কেনার কারণে ক্যাশ ফ্লো কিছুটা কমেছে। গত এক বছরে কোম্পানিটির শেয়ার মূল্যে উল্লম্ফন হয়েছে। এই সময়ে শেয়ার প্রতি মূল্য ১৯৫ টাকা ৬০ পয়সা থেকে বেড়ে হয়েছে ৫৪৫ টাকা ৮০ পয়সা পর্যন্ত।

সম্প্রতি লভ্যাংশ ঘোষণার পর বিভিন্ন কোম্পানির শেয়ারে দরপতন হলেও সোনালী পেপারে ঘটেছে উল্টো চিত্র। লভ্যাংশ সমন্বয়ের পর ২০ শতাংশ বোনাস শেয়ার এরই মধ্যে ফ্রি হয়ে গেছে।

গত ৭ অক্টোবর রেকর্ড ডেটে কোম্পানির শেয়ার মূল্য ছিল ৫৩৮ টাকা ৮০ পয়সা। পরের দিন ২০ শতাংশ বোনাস শেয়ার সমন্বয়ের পর দাম দাঁড়ায় ৪৪৯ টাকা। কিন্তু লেনদেন শুরুর প্রথম দিন দাম বেড়ে দাঁড়ায় ৫১১ টাকা ৮০ পয়সা। মঙ্গলবার তা আরও বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫২৮ টাকা ৭০ পয়সা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here