সিমটেক্সের শেয়ার দর মঙ্গলবার কমেছে

12
50
স্টাফ রিপোর্টার : সিমটেক্স ইন্ডাস্ট্রিজের সোমবারের তুলনায় মঙ্গলবার সকালে সামান্য শেয়ারের দর বাড়ে। দিনের শুরুতে মঙ্গলবার সকালে লেনদেন শুরু হয় ২৭ টাকায়। ঘণ্টার ব্যবধানে শেয়ারপ্রতি দর কমে ১.১২ শতাংশ। দিনশেষে তা আর ধরে রাখতে পারেনি।
Screenshot_2

সোমবার লেনদেনের শীর্ষে থাকা কোম্পানিটির শেয়ার দর মঙ্গলবার সফলতার ধারা অব্যহত রাখতে পারেনি। মঙ্গলবার ১১.১০ মিনিটি শেয়ার লেনদেন হয় ২৬.৪০ টাকায়। এরপরে সোমবারের মত সফলতার চিত্র আর চোখে পড়েনি। দিনশেষে শেয়ার দরের তরঙ্গ নিচে নামে।

মঙ্গলবার সর্বশেষ লেনদেন হয়েছে ২৬.৭০ টাকায়।

12 COMMENTS

  1. (সোমবার লেনদেনের শীর্ষে থাকা কোম্পানিটির শেয়ার দর মঙ্গলবার সফলতার ধারা অব্যহত রাখতে পারেনি। ১১.১০ মিনিটি শেয়ার লেনদেন হয় ২৬.৪০ টাকায়।!!!!)

    i got ipo share Tosrifa and Peninsula now i lost my money. do we need actually that kind of ipo or let them take Premium and Burn our money !!

  2. Although it’s waste of time to write something on this article but I couldn’t stop myself to comment on such a reporter,
    “Within one hour the price got 1.12 increased”
    The reporter is talking as if it’s a huge increase and no chance to get the price down today.
    Man, you ask yourself that the value of the share is 20tk with premium and now 26tk then what’s the use of ipo, are the people investing their money for around two months to get such cheap profit ? I know that it’s all about the bullshit management who are approving of such D-grade company but you are not any of them, so write for the for the people not the company.

  3. কোন যুক্তিতে এসব পচা কোম্পানি গুলোকে প্রিমিয়াম নেওয়ার সুযোগ করে দেওয়া হয়? আমরা না হয় সাধারণ বিনিয়োগকারি আনেকে আছেন যারা লট কি জিনিস বুঝেন না, প্রিমিয়াম কি জিনিস বুঝেন না,আবার অনেকে মনে করেন প্রিমিয়াম যেহেতু নিয়েছেন কোম্পানি ভাল তাই বিনিয়োগ করি। কিন্তূ নিতিনিধারকগণ উনারাতো জ্ঞানী মানুষ শিখিত মানুষ সবকিছু বুঝেন তাহলে উনারা কিভাবে এসব কোম্পানিকে অনুমোদন দেয়।

  4. পন্ডিত বা বিশেজ্ঞ ব্যক্তিবর্গ অনেকে বলেন নতুন কোম্পানীর বেলায় ন্যাভ এর সমান বা ১.৫ গুন মানসম্মত কোম্পানীর ২ গুন মূল্য দিয়ে শেয়ার কিনলে ক্ষতি হওয়ার সম্ভবনা কম।
    কোম্পানীর ন্যাভ হলো ১৯.৬০ টাকা। ন্যাভ এর সমান হলে শেয়ারের দাম হবে ১৯.৬০ টাকা, ন্যাভ এর ১.৫ গুন হলে শেয়ারের দাম হবে ২৯.৪০ টাকা এবং ন্যাভ এর ২ গুন হলে শেয়ারের দাম হবে ৩৯.২০ টাকা। বিষয়গুলি ফলোকরে শেয়ার হোল্ডারা সবের্বাচ্চ ৩৯.০০ টাকা দিয়ে শেয়া ক্রয় করছে। আবার কেহ ২৫.৬০ টাকা দিয়ে ক্রয় করছে। যারা ২৫-২৬ টাকা দিয়ে শেয়ার ক্রয় করতে পারছে তারা লাভবান হবে। যারা ন্যাভ এর ১.৫ বা ২ গুন দিয়ে শেয়ার কিনছেন তাদের লাভ করা জন্য দীর্ঘদিন অপেক্ষা করতে হবে। যারা টেড্রার তাদের সমস্যা নেই তারা গড় পড়তা করে লাভ করে নিয়ে যাবে।
    হুজুগে ন্যাভ এর ২ গুন দিয়ে শেয়ার কিনেছে, তাদের পক্ষে লাভকরা দূরুহ হবে। ২/৪ টা নতুন কোম্পানী ব্যতীত প্রায় সবগুলি কোম্পানীর শেয়ার সর্বোচ্চ মূল্যে দিয়ে শেয়ার ক্ষুদ্রবিনিয়োগকারীরা কিনেছেন তারা গড়পড়তা করেও এক বছরের মধ্যে মূলধনের ৫০% কভার করতে পারে নাই।

    ্এমতাবস্থায় নতুন কোম্পানীর হিসাব যদি স্বচ্ছ থাকে তা হলে ন্যাভ এর সমান মূল্য দিয়ে নতুন শেয়ার কেনা গেলে লোকসানে পড়ার সম্ভবনা থাকবে ২০%।
    নতুন ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারীদের অভিজ্ঞতা না নিয়ে নতুন কোম্পানীর শেয়ার ক্রয় করলে ঠকতে হবে। হুজুগে শেযার ক্রয় করা উচিত নয়।

    আমরা যারা ক্ষতি গ্রস্থ হয়েছি তাদের জন্য মনিষীর এই বাক্যটি এক মাত্র ভরষা। মনিষীর বাক্যটি হলো, “শেযার বাজারে তনিইি মুনাফা করতে পারনে যিনি লোকসান দতিে সব সময় প্রস্তুত থাকনে”।
    ধরে নিতে হবে কোম্পানীর ফেস ভেল্যুর ১০ টাকার শেয়ারে মূল্য ৩ টাকা থেকে ৩,০০০ টাকা পর্যন্ত হতে পারে এই মনমানসিকতা নিয়ে শেয়ার ব্যবসায় আসলে হতাশ হওয়ার কোন থাকবে না।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here