রেনাটার বিক্রি বেড়েছে, নিট মুনাফা ১৯ শতাংশ প্রবৃদ্ধি

0
218

সিনিয়র রিপোর্টার : পুঁজিবাজারে তালিকভুক্ত ওষুধ খাতের কোম্পানি রেনাটা লিমিটেড চলতি ২০২০-২১ হিসাব বছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে ২ হাজার ১০৪ কোটি টাকা বিক্রি করেছে। এর আগের হিসাব বছরের একই সময়ে কোম্পানিটির বিক্রি হয়েছিল ১ হাজার ৯০৯ কোটি টাকা।

সে হিসাবে এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানিটির বিক্রি বেড়েছে ১০ শতাংশ। আর একই সময়ে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী নিট মুনাফায় ১৯ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হয়েছে।

বৃহস্পতিবার বিকালে অনুষ্ঠিত সভায় চলতি হিসাব বছরের তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুমোদন করেছে রেনাটা লিমিটেডের পর্ষদ। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী সমন্বিত মুনাফা হয়েছে ৩৬৩ কোটি টাকা। যেখানে এর আগের হিসাব বছরে মুনাফা হয়েছিল ৩০৫ কোটি টাকা।

চলতি হিসাব বছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৭ টাকা ৩৩ পয়সা। যেখানে এর আগের হিসাব বছরে ইপিএস ছিল ৩১ টাকা ৩৬ পয়সা।

এদিকে চলতি হিসাব বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে রেনাটা লিমিটেডের বিক্রি হয়েছে ৬৫০ কোটি। যেখানে এর আগের বছরের একই সময়ে বিক্রি হয়েছিল ৬৪৭ কোটি টাকা। আর আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির কর-পরবর্তী নিট মুনাফা হয়েছে ১২৩ কোটি। যেখানে এর আগের হিসাব বছরের একই সময়ে মুনাফা ছিল ১০৬ কোটি টাকা।

চলতি হিসাব বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১২ টাকা ৭০ পয়সা, যা এর আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১০ টাকা ৯৬ পয়সা। এ বছরের ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ২৪৯ টাকা ১০ পয়সা।

১৯৭৯ সালে পুঁজিবাজারে আসা রেনাটা লিমিটেড ১৯৭২ সালে মার্কিন ওষুধ জায়ান্ট ফাইজারের একটি কোম্পানি হিসেবে বাংলাদেশে যাত্রা করে। ১৯৯৩ সালে ফাইজার স্থানীয় শেয়ারহোল্ডারদের কাছে তাদের মালিকানা বিক্রি করে চলে যায় এবং কোম্পানির নাম ফাইজার (বাংলাদেশ) লিমিটেডের বদলে হয় রেনাটা লিমিটেড। বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কোম্পানিটির ওষুধ রফতানি হচ্ছে।

সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের মর্ডানা ও জনসন অ্যান্ড জনসনের করোনার টিকা বাংলাদেশে আমদানির জন্য সরকারের কাছে প্রস্তাব দিয়েছিল কোম্পানিটি। আর এ খবরে স্টক এক্সচেঞ্জে কোম্পানিটির শেয়ারের দাম বেড়ে যায়। তবে সরকারের পক্ষ থেকে কোম্পানির প্রস্তাবের বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত জানানো হয়নি। কোম্পানিটির পক্ষ থেকেও স্টক এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের এ তথ্য জানানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here