মামুন এগ্রোর কিউআইও আবেদন শিগগিরই

0
641

স্টাফ রিপোর্টার : মামুন এগ্রো প্রোডাক্টস লিমিটেড এসএমই খাতে অন্তর্ভুক্তি পেতে যাচ্ছে। শিগগিরিই কোম্পানিটির কোয়ালিফাইড ইনভেস্টর অফারের (কিউআইও) দিনক্ষণ নির্ধারিত হতে চলেছে। চলতি বছরের ডিসেম্বর মাসের মধ্যবর্তী সময়ে আবেদন শুরু হওয়ার বিশেষ সম্ভাবনা মিলেছে।

তবে ডিসেম্বরের মধ্যবর্তী সময়ের আগে শুরুর সম্ভাবনা বেশি। মাসের শেষে কিউআইও সম্পন্ন না হওয়ায় কারণ হচ্ছে-ইতোমধ্যে ৩টি কোম্পানির আইপিও আবেদনের দিনক্ষণ নির্ধারণ করেছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা। কোম্পানিগুলো হলো-ইউনিয়ন ব্যাংক, ইউনিয়ন ইন্সুরেন্স ও বিডি থাই ফুড।

তবে এখনো মামুন এগ্রো প্রোডাক্টস লিমিটেডের প্রোসপেক্টাস অনুমোদন হয়নি। শিগগিরই অনুমোদন পাবে এবং ডিসেম্বরের শুরুতে কিউআইও আবেদন সম্পন্ন হবে বলে প্রত্যাশা করেন কোম্পানি সেক্রেটারি মি. আজাদ।

কৃষি পণ্যের সমৃদ্ধি আনতে বিভিন্ন ধরনের ‘পেস্টি সাইড উৎপাদনকারী’ কোম্পানিটির শেয়ার সাধারণ বিনিয়োগকারীদের জন্য নয়। তবে তারাই কিনতে পারবেন, যাদের শেয়ারবাজারে ন্যূনতম এক কোটি টাকার (বাজারমূল্যে) বিনিয়োগ রয়েছে। তালিকাভুক্ত সিকিউরিটিজে ইনডিভিজ্যুয়াল ইনভেস্টর (রেসিডেন্ট অ্যান্ড নন-রেসিডেন্ট) বাজার মূল্যে বিনিয়োগের পরিমাণ ১ কোটি টাকা বা ইন্ডিভিজ্যুয়াল ইনভেস্টর কোয়ালিফাইড হিসেবে আবেদন করতে পারবেন।

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) ২৯ অক্টোবর এ অনুমোদন দেয়। বিএসইসির সূত্র মতে, কোম্পানিটি কোয়ালিফাইড ইনভেস্টর অফারের (কিউআইও) মাধ্যমে প্রতিটি ১০ টাকা মূলে ১ কোটি শেয়ার ইস্যুর মাধ্যমে ১০ কোটি টাকা উত্তোলন করবে। উত্তোলিত অর্থ দিয়ে বিল্ডিং ও সিভিল নির্মাণ, চলতি মূলধন ও ইস্যু ব্যবস্থাপনা খরচ খাতে ব্যয় করবে।

৩১ মার্চ ২০২১ সমাপ্ত ৯ মাসের আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী মামুন এগ্রো প্রোডাক্টসের শেয়ারপ্রতি মুনাফা (ইপিএস) হয়েছে ০.৯৮ টাকা এবং পুনঃমূল্যায়ন সঞ্চিতি ছাড়া নিট সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১৫.২৫ টাকায়।

কোম্পানির প্রতি শর্ত রয়েছে, এসএমই প্লাটফর্মে লেনদেনের তারিখ থেকে পরবর্তী ৩ বছর ইস্যুয়ার কোম্পানি কোনো বোনাস শেয়ার ইস্যু করতে পারবে না।

ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে বিএমএসএল ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড ও উত্তরা ফাইন্যান্স ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here