সিনিয়র রিপোর্টার : বড় দরপতন হয়েছে শেয়ারবাজারে। পতনের মূলে বেক্সিমকো গ্রুপের দরপতনের প্রভাব রয়েছে। একই সঙ্গে বিনিয়োগকারীদের অন্য সব কোম্পানি থেকে শেয়ার হাত বদল করে মুনাফা গ্রহণের বিশাল ধাক্কায় দরপতন ঘটে।

মঙ্গলবার সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবসে দেশের প্রধান শেয়ারবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) প্রধান সূচক ডিএসইএক্স কমেছে ৯৪ পয়েন্ট। অবস্থান করছে ৫ হাজার ৬৯৫ পয়েন্টে। অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জেও সার্বিক সূচক কমেছে ৩০০ পয়েন্ট।

বিশ্লেষকেরা বলছেন, ডিএসইতে মঙ্গলবার বেক্সিমকো গ্রুপের দরপতনের প্রভাব দেখা গেছে। এ গ্রুপের তালিকাভুক্ত তিন কোম্পানির শেয়ারের দর কমেছে। এর মধ্যে বেক্সিমকো লিমিটেডের দর কমেছে ৮ দশমিক ১৯ শতাংশ, বেক্সিমকো ফার্মার কমেছে ৪ শতাংশ এবং শাইনপুকুরের শেয়ারের দর কমেছে ৮ দশমিক ৩৯ শতাংশ।

সোমবার দেশের শেয়ারবাজারে বেক্সিমকোর দাপট দেখা যায়। ডিএসইতে লেনদেনের ৩২ শতাংশই ছিল বেক্সিমকোর তিন কোম্পানির। কেবল বেক্সিমকো লিমিটেডেরই লেনদেন হয় প্রায় ৩৩১ কোটি টাকার।

তবে মঙ্গলবার কোম্পানিটির লেনদেন কমে হয়েছে ১৪৩ কোটি টাকার। যদিও শেষ পর্যন্ত লেনদেনের শীর্ষেই রয়েছে কোম্পানিটি।

ডিএসইতে মঙ্গলবার মোট লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ১২৫ কোটি ৪৫ লাখ টাকার। আগের দিনের চেয়ে কমেছে লেনদেন। সোমবার ১ হাজার ৫৮৫ কোটি টাকার লেনদেন হয়। মঙ্গলবার হাতবদল হওয়া শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ২৭টির, কমেছে ২৫৫টির, অপরিবর্তিত আছে ৭৫টির।

ডিএসইতে মঙ্গলবার লেনদেনের শীর্ষে থাকা কোম্পানিগুলো হলো- বেক্সিমকো লিমিটেড, এনার্জি প্যাক পাওয়ার জেনারেশন, রবি, লংকা বাংলা ফাইন্যান্স, বেক্সিমকে ফার্মা, বিএটিবিসি, সামিট পাওয়ার, স্কয়ার ফার্মা, লাফার্জ হোলসিম বাংলাদেশ লিমিটেড ও আইএফআইসি।

অন্যদিকে সিএসইতে মোট ২৫১টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার লেনদেন হয়েছে। এর মধ্যে দর বেড়েছে ২২টির, দর কমেছে ১৭৯টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ৫০টির।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here