’বন্ড জনপ্রিয় করার চেষ্টা করছি, ইন্স্যুরেন্স সেক্টরে প্রচুর সম্ভাবনা’

0
89

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলী রুবায়েত-উল-ইসলাম বলেছেন, বর্তমানে শস্য বিমা করার কথা উঠেছে। এ বিষয়টি আমি যখন সাধারণ বিমা কর্পোরেশনে ছিলাম তখনই দেশের তিনটি স্থানে (নোয়াখালি, সিরাজগঞ্জ ও রাজশাহী) প্রজেক্ট করেছি। কিন্তু সেখানেও অনেক বাধা আছে। তবে আমাদের দেশের ইন্স্যুরেন্স সেক্টরে প্রচুর সম্ভাবনা রয়েছে।

একই সঙ্গে বন্ড জনপ্রিয় করার চেষ্টা চলছে এবং সাধারণ বিমা কর্পোরেশনের চেয়ারম্যানের সাথে বসে বন্ডে বিনিয়োগকারী  আকর্ষণ করতে ডিজাইন করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

মঙ্গলবার (১২ অক্টোবর) বিশ্ব বিনিয়োগকারী সপ্তাহ’২১ শেষ দিন উপলক্ষে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) আয়োজিত ‘টু আইডিয়া সিকিউরিটিজ ইনভেস্ট প্রটেক্ট ইন্স্যুরেন্স’ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন অধ্যাপক শিবলী রুবায়েত।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিএসইর চেয়ারম্যান আসিফ ইব্রাহিম। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন ডিএসইর চেয়ারম্যান মো. ইউনুসুর রহমান।

বিএসইসির চেয়ারম্যান বলেন, দেশে সবচেয়ে বড় সমস্য- আমরা কেন জানি গণ্ডির বাহিরে যেতে চাই না। সেই একই চিন্তা থেকে বের হতে চাই না। একই নিয়ম নীতির মধ্যে একই গণ্ডি সীমানার মধ্যে থাকতে চাই। এর বাহিরে যে কত সুযোগ রয়েছে সেই সুযোগ আমরা কেউই নেওয়ার চেষ্টা করি না। এর ফলে আমাদের মাঝে সম্পদের কাড়াকাড়ি। এতে করে আমরা মার্কেটকে ছোট করে রাখছি। এর ফলে যেমন আমাদের ব্যবসা বাড়ে না। নিজেদের মাঝে ব্যবসা নিয়ে প্রতিযোগিতা করতে গিয়ে ক্ষতির মুখে পড়তে হয়। লাভ খুব কম সময়ই হয়।

তিনি বলেন, দেশের ছোট ছোট এসএমই কোম্পানিগুলোকে বিমার আওতায় নিয়ে আসা যায়। আমাদের দেশের অনেক লোক চিকিৎসার অভাবে মারা যায়। যদি হেলথ সেক্টরকে বিমার আওতায় নিয়ে আসা যায় তাহলে একদিকে যেমন মানুষ চিকিৎসা পাবে, অন্যদিকে বিমা কোম্পানিগুলোরও আয় বাড়বে।

বন্ড মার্কেটের কথা বলে বিএসইসির চেয়ারম্যান বলেন, আমরা বন্ড জনপ্রিয় করার জন্য চেষ্টা করছি। এক্ষেত্রে প্রথম দিকে কিছুটা ধাক্কা আসবে। এ ক্ষেত্রে জনপ্রিয় হয়ে বন্ড স্টাবলিশ হওয়ার আগ পযন্ত বিনিয়োগকারীদের সহযোগিতা করতে হবে। কিন্তু বিনিয়োগকারীরা কেন এই বন্ডে বিনিয়োগ করবে, রিটার্নের আশায়। রিটার্নের পাশাপাশি বিনিয়োগকারীদের বিনিয়োগের নিরাপত্তা দিতে হবে।

বিএসইসির চেয়ারম্যান বলেন, বিনিয়োগ নিরাপত্তা দিতে কি করতে হবে? কোম্পানির প্রতি নজর রাখতে হবে। সাধারণ বিমা কর্পোরেশনের চেয়ারম্যানের সাথে বসে বন্ডে বায়ার নিয়ে আসার জন্য ডিজাইন করেছি। তিনি সবার সাথে আলোচনা করে সেটা হয়তো সামনে নিয়ে আসবেন। বন্ডের বিনিয়োগ হচ্ছে হাজার হাজার কোটি টাকার ব্যবসা। আমাদের বিনিয়োগকে সুরক্ষা দিতে পারলে আমরাও আমাদের বন্ড ডেবথ ইন্সুমেন্টগুলোকে জনপ্রিয় করতে পারবো।

তিনি আরও বলেন, আমাদের রেগুলেটরিদের এক সাথে হয়ে মার্কেটে নতুন নতুন প্রোডাক্ট নিয়ে আসতে হবে। যাতে করে যেমন ক্যাপিটাল মার্কেট বাড়ে, ঠিক তেমনই বিমা খাতেরও উন্নয়ন হয়। যখন একটা দেশের এই দুটি সেক্টোর মুভ করে তখন দেশের অর্থনীতি এগিয়ে যায়।

অনুষ্ঠানে প্যানেল আলোচক ছিলেন বিএসইসির নির্বাহী পরিচালক সাইফুর রহমান, ডিএসইর পরিচালক শাকিল রেজভী এবং ডিএসইর পরিচালক সালমা নাসরিন এনডিসি। সঞ্চালনায় ছিলেন ডিএসইর ডিজিএম মো. শফিকুর রহমান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here