নর্দার্ন জুটে দুজন স্বতন্ত্র পরিচালক নিয়োগ

0
238

সিনিয়র রিপোর্টার : কোম্পানির স্বাভাবিক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য নর্দার্ন জুট ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেডের পর্ষদে দুজন স্বতন্ত্র পরিচালক নিয়োগ করেছেন হাইকোর্ট। তারা সিগনেটরি হিসেবে কোম্পানিটির ব্যাংকিং লেনদেনসংক্রান্ত কাগজপত্রে স্বাক্ষর করবেন।

আদালত কর্তৃক নিয়োগপ্রাপ্ত দুই স্বতন্ত্র পরিচালক হলেন অ্যাডভোকেট মারগুব কবির ও প্রিন্স আল মাসুদ। তারা দুজনই সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী। কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

স্টক এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে বুধবার নর্দার্ন জুট জানিয়েছে, তারা হাইকোর্টের রায়ের বিষয়ে অবগত হয়েছে। রায়ের মাধ্যমে কোম্পানির নিয়মিত লেনদেনের জন্য ব্যাংক হিসাব খোলার পথ সুগম হয়েছে। এ কারণে গতকাল থেকেই কারখানায় উৎপাদন চালুর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কোম্পানিটির পর্ষদ।

জানতে চাইলে নর্দার্ন জুটের প্রধান অর্থ কর্মকর্তা (সিএফও) উজ্জ্বল কান্তি ধর বলেন, আদালতের সার্টিফায়েড রায়ের কপি এখনো পাইনি। আশা করছি আগামী সপ্তাহে পেয়ে যাব। তবে রায়সংক্রান্ত আইনজীবীর এফিডেবিট কপি আমাদের হাতে এসেছে। সেখানে সুপ্রিম কোর্টের দুজন আইনজীবীকে কোম্পানির স্বতন্ত্র পরিচালক হিসেবে নিয়োগের কথা বলা হয়েছে। আগামী সপ্তাহের মধ্যেই হয়তো নতুন স্বতন্ত্র পরিচালকরা কোম্পানির দায়িত্ব গ্রহণ করবেন।

তিনি বলেন, আপাতত আমাদের কাছে পাটের যে পরিমাণ স্টক রয়েছে, সেটি কাজে লাগিয়ে কারখানায় উৎপাদন চালুর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আগামী সপ্তাহে নতুন স্বতন্ত্র পরিচালকরা দায়িত্ব নেয়ার পর কোম্পানির ব্যাংকিং লেনদেন আগের মতোই স্বাভাবিক হয়ে যাবে এবং কোম্পানির স্বাভাবিক ব্যবসায়িক কার্যক্রম অব্যাহত রাখা সম্ভব হবে বলে জানান তিনি।

চলতি বছরের ২২ জানুয়ারি হাইকোর্টের আদেশের পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্নর দেশের সব ব্যাংককে নর্দার্ন জুটের সব ব্যাংক হিসাব জব্দ করার নির্দেশ দেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে কোম্পানিটির সব ব্যাংক হিসাব জব্দ করা হয়। এ কারণে কোম্পানিটি রফতানির বিপরীতে পাওয়া অর্থ তুলতে পারছে না।

এতে কোম্পানির কাছে পর্যাপ্ত অর্থ থাকা সত্ত্বেও কাঁচা পাট কেনা সম্ভব হচ্ছে না এবং খুচরা যন্ত্রাংশ সরবরাহকারীকে বিল পরিশোধ এমনকি শেয়ারহোল্ডারদের নগদ লভ্যাংশের অর্থ বিতরণ করা সম্ভব হচ্ছে না। এ কারণে চলতি মাসের ২২ থেকে ২৫ তারিখ পর্যন্ত কারখানা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কোম্পানিটি।

পাশাপাশি কোম্পানির ব্যবসা টিকিয়ে রাখার স্বার্থে ব্যাংক হিসাব সচল করতে আদালতের দারস্থ হয় তারা। প্রথম দফা কারখানা বন্ধের মেয়াদ শেষে দ্বিতীয় দফায় ১ মার্চ পর্যন্ত কারখানা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেয় নর্দার্ন জুটের পর্ষদ। তবে এ সময়ের মধ্যে আদালতের কাছ থেকে কোনো নির্দেশনা না আসায় তৃতীয় দফায় ৩ মার্চ কারখানা বন্ধের সময়সীমা বাড়ানো হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here