গ্রেপ্তারের পরদিনই তাসভীরের জামিন

0
343
কাশেম ড্রাইসেলসের সিইও তাসভির-উল ইসলাম

সিনিয়র রিপোর্টার : নকশা জালিয়াতির এক মামলায় গ্রেপ্তারের এক দিনের মধ্যে  জামিন পেলেন অগ্নিকাণ্ডে ক্ষতিগ্রস্ত বনানীর এফআর টাওয়ারের অন্যতম মালিক কাসেম ড্রাইসেলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক তাসভীর উল ইসলাম।

সোমবার ঢাকা মহানগর জ্যেষ্ঠ বিশেষ জজ আদালতের বিচারক কে এম ইমরুল কায়েশ আসামি তাসভীরকে জামিন দেন।

দুর্নীতি দমন কমিশন রোববার তাসভীরকে গ্রেপ্তারের পর সোমবার আদালতে হাজির করে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুদকের উপ-পরিচালক মো. আবু বকর সিদ্দিক আসামিকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন।

বিএনপি নেতা তাসভীরের পক্ষে জামিন আবেদন করেন তার আইনজীবী এহসানুল হক সমাজী। দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল, মাহমুদ হোসেন জাহাঙ্গীর জামিনের বিরোধিতা করেন।

আসামির আইনজীবী শুনানিতে বলেন, ভবনটি নির্মাণ করেছিল রূপায়ন গ্রুপ। এর চেয়ারম্যান লিয়াকত আলী খান মুকুল হাই কোর্ট থেকে আগাম জামিন পেয়েছেন। ভবন নির্মাণে যদি ত্রুটি থাকে, তবে তার দায় মুকুলের।

এর বিরোধিতা করে দুদকের আইনজীবী কাজল বলেন, মামলার সবগুলো ধারার অভিযোগই এ আসামির বিরুদ্ধে সঠিক। দুর্নীতির দায় তিনি কোনোভাবেই এড়াতে পারবেন না। জামিন পেলে তিনি মামলার তদন্তে ব্যাঘাত ঘটাবেন।

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত আসামির জামিনের আদেশ দেন।

এই মামলার আরেক আসামি প্রকৌশলী এস এম এইচ আই ফারুককে সোমবার গ্রেপ্তার করেছে দুদক। রূপায়ন গ্রুপের চেয়ারম্যান মুকুলও মামলার আসামি।

নকশা জালিয়াতির মাধ্যমে ভবনটিতে কয়েকটি তলা বাড়ানোর অভিযোগে গত ২৫ জুন তাসভীরসহ ২৩ জনের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করেন দুদক কর্মকর্তা মো. আবুবকর সিদ্দিক।

দুদকের করা এক মামলায় রাজউকের ভুয়া ছাড়পত্রের মাধ্যমে এফআর টাওয়ারকে ১৯ তলা থেকে বাড়িয়ে ২৩ তলা করা, উপরের ফ্লোরগুলো বন্ধক দেওয়া ও বিক্রি করার অভিযোগে ২০ জনকে আসামি করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here