খেলাপি ঋণ রোধের প্রস্তাবনা অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির

0
75

স্টাফ রিপোর্টার : দেশের ব্যাংকিং সেক্টরের খেলাপি ঋণ রোধে অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি গঠনের প্রস্তাব দিয়েছে এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক (এডিবি)। অর্থনীতিবিদসহ এ সেক্টর সংশ্লিষ্টরাও এ বিষয়টি ইতিবাচকভাবে দেখছেন।

বেশ কয়েক বছরে ধরে খেলাপি ঋণের পরিমাণ আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে এখন ১ লাখ ১২ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়েছে। এ পরিস্থিতি থেকে উত্তোরণে সরকারকে অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির মাধ্যমে খেলাপি ঋণ রোধের প্রস্তাবনা দেওয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৬ নভেম্বর) রাজধানীর লা মেরিডিয়ান হোটেলে এডিবি আয়োজিত ‘খেলাপি ঋণ বৃদ্ধি ও আন্তর্জাতিক অভিজ্ঞতা থেকে শিক্ষা’ শীর্ষক সেমিনারে এ প্রস্তাবনা তুলে ধরা হয়। কোম্পানিগুলো পুঁজিবাজার থেকে টাকা তুলে ব্যাংকগুলোর কাছ থেকে খেলাপি ঋণ কিনে নেবে। এরপর কোম্পানিগুলো খেলাপি ঋণগ্রহীতার কাছ থেকে অর্থ আদায় করবে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে এ পদ্ধতি চালু রয়েছে। দেশের অর্থনীতির গতিশীলতার জন্য বাংলাদেশেও এ পদ্ধতি চালুর প্রস্তাব করা হয়।

এ বিষয়ে অর্থ মন্ত্রণালয়ের আর্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের সিনিয়র সচিব মো. আসাদুল ইসলাম বলেন, অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির মাধ্যমে খেলাপি ঋণ কমিয়ে আনা সম্ভব। দেশের অর্থনীতির জন্য যদি ভালো হয়, তাহলে এ পদ্ধতি চালু করা যেতে পারে। তার জন্য পলিসিও ঠিক করতে হবে।

দুই দিনব্যাপী সেমিনারের প্রথম দিন আরো উপস্থিত ছিলেন এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ, বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এস এম মনিরুজ্জামান, আার্থিক প্রতিষ্ঠান বিভাগের অতিরিক্ত সচিব অরিজিত চৌধুরীসহ অনেকে।

সিনিয়র সচিব মো. আসাদুল ইসলাম আরো বলেন, অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানির মাধ্যমে দক্ষিণ কোরিয়া ও মালয়েশিয়া তাদের খেলাপি ঋণ কমিয়ে এনেছে। খেলাপি ঋণ কমাতে অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি অত্যন্ত কার্যকর। বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানিকে কীভাবে কাজে লাগানো যায়, সেটা দেখার বিষয়। বিশ্বের অন্যান্য দেশে কি পদ্ধতি রয়েছে, তা দেখেন, নীতিমালা নিয়ে আলোচনা করেন। প্রস্তাবনাগুলো আমাদের দেন। আমরা ভেবে দেখব।

অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এস এম মনিরুজ্জামান বলেন, বর্তমানে আমাদের দেশে খেলাপি ঋণ বেড়েছে। তবে আমাদের অবস্থা পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত ও পাকিস্তানের তুলনায় খারাপ নয়। গত কয়েক বছর ধরে আমাদের দেশে মোট ঋণের ৬ থেকে ১১ শতাংশ খেলাপি ঋণ আছে।

তিনি আরো বলেন, কিছু ডিরেকশন আর পরামর্শ দিয়ে খেলাপি ঋণ কমানো সম্ভব নয়। এজন্য ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে আরো সতর্কতার সঙ্গে কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে। যেটা আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে কঠিন। তারপরও আমরা এটিকে চ্যালেঞ্জ হিসেবে নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছি।

অ্যাসেট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি গঠনে এডিবি সহযোগিতা করবে কি না- এমন প্রশ্নে এডিবির কান্ট্রি ডিরেক্টর মনমোহন প্রকাশ বলেন, এ বিষয়ে আমরা টেকনিক্যাল সহযোগিতা করছি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here