করপোরেট গভর্নেন্স বিজয়ী ৩৫ কোম্পানি পেল পদক

0
359
৬ষ্ঠ জাতীয় কর্পোরেট গভর্নেন্স এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড

সিনিয়র রিপোর্টার : ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড সেক্রেটারিজ অব বাংলাদেশ (আইসিএসবি) শনিবার সন্ধ্যায় ৬ষ্ঠ জাতীয় কর্পোরেট গভর্নেন্স এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ৩৫টি কোম্পানিকে প্রদান করেছে। করপোরেট সুশাসনের মানদণ্ডের ভিত্তিতে সুষ্ঠ করপোরেট গভর্নেন্স প্রতিপালন ও কোম্পানির সামগ্রিক ব্যবস্থাপনায় স্বচ্ছতা এবং জবাবদিহিতায় এ স্বীকৃতি প্রদান করা হয়।

পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্সী বলেন, দক্ষ করপোরেট গভর্নেন্স আজকের ব্যবসায়িক বিশ্বে ক্রমেই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে। বাংলাদেশের সমস্ত তালিকাভুক্ত সংস্থাগুলির মধ্যে কর্পোরেট গভারনেন্স নিশ্চিত করা বর্তমান সরকারের প্রতিশ্রুতি।

ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড সেক্রেটারিজ অব বাংলাদেশ (আইসিএসবি) আয়োজিত ৭ম জাতীয় করপোরেট গভর্নেন্স এক্সিলেন্স এওয়ার্ড, ২০১৯ অনুষ্ঠানে শনিবার সন্ধ্যায় তিনি এ কথা বলেন।

রাজধানীর হোটেল রাডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেনের গ্র্যান্ড বলরুমে ১৩ টি ক্যাটাগরিতে ৩৫ টি বিজয়ী কোম্পানিকে করপোরেট গভর্নেন্স এক্সিলেন্স এওয়ার্ড ক্রেস্ট এবং সার্টিফিকেট প্রদান করেন মন্ত্রী।

আইসিএসবির প্রেসিডেন্ট মোজাফফর আহমেদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএসইসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলি রুবাইয়াত-উল-ইসলাম এবং বাণিজ্য সচিব ড. মো. জাফর উদ্দিন, সাবেক প্রেসিডেন্ট ও সিজিএ অরগানিজিং কমিটির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সানাউল্লাহ।

পুরষ্কার প্রাপ্তদের অভিনন্দন জানান করপোরেট গভর্নেন্স অর্গানাইজিং কমিটির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সানাউল্লাহ। অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, করপোরেট খাতে পেশাদারিত্ব বিকাশে ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড সেক্রেটারিজ অব বাংলাদেশের ভূমিকা অপরিসীম।

তিনি বলেন, ব্যবসায়ের দীর্ঘমেয়াদী লক্ষ্য পূরণের ক্ষেত্রে, সুশাসন নিশ্চিত করলে কর্মীদের মনোবল ও উৎপাদনশীলতা উন্নয়নে সহায়তা করে। কর্পোরেট গভর্নেন্স কোড প্রবর্তন বিএসইসির গৃহীত একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ, যা অবশ্যই দেশে করপোরেট সুশাসন বিকাশে সহায়তা করবে। তিনি সুষ্ঠু ব্যবসায়িক প্রতিযোগিতার জন্য বাংলাদেশে বিদ্যমান বৃহত্তর সরকারি ও বেসরকারি লিমিটেড কোম্পানিগুলোকে কর্পোরেট গভর্নেন্স কোডের পরিধি বাড়ানোর আহ্বান জানান।

ইনস্টিটিউটের প্রেসিডেন্ট মোজাফফর আহমেদ বলেন, ভাল করপোরেট গভর্নেন্স নিশ্চিত করা এখন সময়ের দাবি। আইসিএসবির এই অ্যাওয়ার্ড বাংলাদেশের কর্পোরেট সুশাসন নিশ্চিতকরণে কোম্পানিগুলোকে অনুপ্রাণিত করবে। আইসিএসবির দক্ষ কোম্পানি সচিব বিভিন্ন কোম্পানিগুলোতে এ ব্যাপারে উল্লেখযোগ্য ভুমিকা রাখতে পারবে।

৬ষ্ঠ জাতীয় করপোরেট গর্ভানেন্স এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে বিজয়ীসহ অতিথিরা

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ সিকিওরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলি রুবায়াত-উল-ইসলাম বলেছেন, করপোরেট গভর্নেন্স পুঁজিবাজারের স্থিতিশীলতা ও উন্নয়নের প্রধান নির্ধারক। বিএসইসি ধারাবাহিকভাবে দেশের করপোরেট গভর্নেন্স কার্যক্রম পর্যালোচনা করছে। চার্টার্ড সেক্রেটারিরা করপোরেট প্রশাসনের ক্ষেত্রে দক্ষতা নিশ্চিত করতে আরও অনেক বড় ভূমিকা পালন করবেন।

বাণিজ সচিব ড. মো. জাফর উদ্দিন আইসিএসবির এমন আয়োজনের প্রশংসা করে বলেন, সুশাসন আমাদের দেশের টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি। সুশাসন নিশ্চিত করতে আমাদের একসাথে কাজ করতে হবে।

ব্যাংকিং কোম্পানি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার প্রাপ্তদের মধ্যে ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড গোল্ড পদক, ইস্টার্ন ব্যাংক লিমিটেড ও ব্যাংক এশিয়া লিমিটেড সিলভার ও ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করে। ইসলামী ব্যাংকিং ক্যাটাগরিতে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড গোল্ড পদক, শাহজালাল ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড ও আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেড সিলভার ও ব্রোঞ্জ পদক লাভ করে।

একইভাবে, নন-ব্যাংকিং ফাইন্যান্সিয়াল ইনস্টিটিউশন ক্যাটাগরিতে পুরস্কার প্রাপ্তদের মধ্যে ডেল্টা ব্র্যাক হাউজিং ফাইন্যান্স কর্পোরেশন গোল্ড পদক, আইডিএলসি ফাইন্যান্স এবং আইপিডিসি ফাইন্যান্স লিমিটেড সিলভার ও ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করে ।

বীমা কোম্পানির ক্যাটাগরিতে গ্রীন ডেল্টা ইনস্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড গোল্ড পদক, রিলায়েন্স ইনস্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড এবং নিটোল ইন্সুরেন্স কোম্পানি সিলভার এবং ব্রোঞ্জ নিশ্চিত করেছে। একই সঙ্গে জীবন বীমা কোম্পানি ক্যাটাগরিতে প্রগতি লাইফ ইনস্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড গোল্ড পদক অর্জন করে।

একইভাবে ফার্মাসিউটিক্যাল অ্যান্ড কেমিক্যাল কোম্পানি ক্যাটাগরিতে ইবনে সিনা ফার্মাসিউটিক্যালস ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড গোল্ড পদক, ওরিয়ন ফার্মা লিমিটেড ও বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যাল লিমিটেড সিলভার এবং ব্রোঞ্জ লাভ করেছে।

দি পেনিনসুলা চিটাগাং লিমিটডের পক্ষে সিলভার পদক গ্রহণ করেন প্রধান অর্থনৈতিক কর্মকর্তা মোহাম্মদ নুরুল আজিম

টেক্সটাইল ও আরএমজি কোম্পানি ক্যাটাগরিতে শাশা ডেনিম লিমিটেড গোল্ড পদক এবং প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল লিমিটেড সিলভার পদক লাভ করে। সার্ভিস কোম্পানি ক্যাটাগরিতে ইউনিক হোটেল অ্যান্ড রিসোর্ট লিমিটেড গোল্ড পদক, ইস্টার্ন হাউজিং লিমিটেড এবং দি পেনিনসুলা চিটাগাং লিমিটেড সিলভার এবং ব্রোঞ্জ পদক লাভ করেছে।

অনুরূপ ফুড অ্যান্ড এলাইড কোম্পানি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার প্রাপ্তদের মধ্যে গোল্ডেন হার্ভেস্ট অ্যাগ্রো ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড গোল্ড পদক ও ন্যাশনাল টি কোম্পানি লিমিটেড সিলভার পদক অর্জন করে।

আইটি এবং টেলিকম কোম্পানি ক্যাটাগরিতে গ্রামীণফোন লিমিটেড গোল্ড পদক ও বাংলাদেশ সাবমেরিন কেবলস কোম্পানি লিমিটেড এবং আইটি কনসালটেন্টস লিমিটেড সিলভার এবং ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করে।

ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি ক্যাটাগরিতে পুরস্কার প্রাপ্তদের মধ্যে সিঙ্গার বাংলাদেশ লিমিটেড গোল্ড পদক, বিবিএস কেবলস লিমিটেড ও বিএসআরএম স্টিল লিমিটেড সিলভার ও ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করে।

ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড সেক্রেটারিজ অব বাংলাদেশ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে ৬ষ্ঠ জাতীয় করপোরেট গর্ভানেন্স এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড প্রদান করে

একইভাবে ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পাান ক্যাটাগরিতে আরএকে সিরামিকস বাংলাদেশ লিমিটেড গোল্ড পদক, প্রিমিয়ার সিমেন্ট মিলস ও মারিকো বাংলাদেশ লিমিটেড যথাক্রমে সিলভার ও ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করে।

ফুয়েল অ্যান্ড পাওয়ার কোম্পানি ক্যাটাগরিতে লিন্ডে বাংলাদেশ লিমিটেড গোল্ড পদক অর্জন করে। সামিট পাওয়ার লিমিটেড ও ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেড সিলভার ও ব্রোঞ্জ পদক অর্জন করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here