এসএস স্টিলের মুনাফা বেড়ে হয়েছে ১৯ কোটি টাকা

0
195

সিনিয়র রিপোর্টার : চলতি হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) এসএস স্টিল লিমিটেডের কর-পরবর্তী নিট মুনাফা হয়েছে ১৯ কোটি ২৭ লাখ ৮৪ হাজার ৯০৩ টাকা, আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল ৭ কোটি ৮১ লাখ ৪৯ হাজার ৭৮৫ টাকা।

এ হিসাবে চলতি হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির নিট মুনাফা বেড়েছে ১১ কোটি ৪৬ লাখ ৩৫ হাজার ১১৮ টাকা বা ১৪৬ দশমিক ৬৯ শতাংশ।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির টার্নওভার হয়েছে ১১৭ কোটি ৭৩ লাখ ৪৭ হাজার ৯৪৯ টাকা, আগের হিসাব বছরের একই সময়ে যা ছিল ৯০ কোটি ২৬ লাখ ৯২ হাজার ৯৯২ টাকা। গ্রস মুনাফা হয়েছে ৩৯ কোটি ৭৭ হাজার ১৩৩ টাকা, আগের হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে যা ছিল ২৪ কোটি ৩৫ লাখ ৯১ হাজার ৬৭৭ টাকা।

প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৯ পয়সা। আগের হিসাব বছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩২ পয়সা (পুনর্মূল্যায়িত)। এ হিসাবে চলতি হিসাব বছরের প্রথম প্রান্তিকে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ৪৭ পয়সা বা ১৪৬ দশমিক ৮৮ শতাংশ। ৩০ সেপ্টেম্বর প্রতিষ্ঠানটির পুনর্মূল্যায়ন ব্যতীত শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১৬ টাকা ২০ পয়সা।

৩০ জুন সমাপ্ত ২০১৯ হিসাব বছরের জন্য শেয়ারহোল্ডারদের মোট ১৫ শতাংশ লভ্যাংশ প্রদানের সুপারিশ করেছে এসএস স্টিলের পরিচালনা পর্ষদ। এর মধ্যে ৫ শতাংশ নগদ ও বাকি ১০ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ২ টাকা ২১ পয়সা, আগের হিসাব বছরে যা ছিল ১ টাকা ৩৯ পয়সা। ৩০ জুন এনএভিপিএস দাঁড়িয়েছে ১৫ টাকা ৪০ পয়সা, আগের হিসাব বছর শেষে যা ছিল ১৩ টাকা ৬১ পয়সা।

সমাপ্ত হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন, ঘোষিত লভ্যাংশসহ অন্যান্য এজেন্ডা পর্যালোচনা ও অনুমোদনের জন্য আগামী ৩১ ডিসেম্বর সকাল ৯টায় রাজধানীর গুলশান-১-এ অবস্থিত স্পেক্ট্রা কনভেনশন সেন্টারে কোম্পানিটির বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। এ-সংক্রান্ত রেকর্ড ডেট ছিল ২১ নভেম্বর।

চলতি বছরের ১৭ জানুয়ারি দেশের দুই স্টক এক্সচেঞ্জে কোম্পানিটির লেনদেন শুরু হয়। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল শেয়ারটির সর্বশেষ দর ছিল ৩১ টাকা। সমাপনী দর ছিল ৩০ টাকা ৯০ পয়সা। লেনদেন শুরুর পর এখন পর্যন্ত শেয়ারটির দর ২২ টাকা থেকে ৫৫ টাকার মধ্যে ওঠানামা করেছে।

এসএস স্টিলের অনুমোদিত মূলধন ২৫০ কোটি টাকা। পরিশোধিত মূলধন ২৪৫ কোটি টাকা। রিজার্ভে রয়েছে ১৫২ কোটি ৫ লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট শেয়ার সংখ্যা ২৪ কোটি ৫০ লাখ। এর মধ্যে উদ্যোক্তা পরিচালকদের কাছে ৩২ দশমিক ৩৩ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ২৯ দশমিক ৭১ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে বাকি ৩৭ দশমিক ৯৬ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

সর্বশেষ নিরীক্ষিত ইপিএস ও বাজারদরের ভিত্তিতে শেয়ারটির মূল্য আয় অনুপাত বা পিই রেশিও ২৪ দশমিক ৭২, হালনাগাদ অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে যা ৯ দশমিক ৭৮।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here