এবি ব্যাংকের ৪০০ কোটি টাকার বন্ড অনুমোদন অপেক্ষায়

1
535

সিনিয়র রিপোর্টার : এবি ব্যাংক ৪০০ কোটি টাকা বন্ডের অনুমোদন চাইবে। আগামী ১৭ মে, রোববার শেয়ারহোল্ডারদের কাছে এজিএমের মাধ্যমে অনুমোদন চাইবে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। এর আগে ব্যাংকটি ৩১ ডিসেম্বর ২০১৪ সমাপ্ত বছরের জন্য ১২.৫০ শতাংশ বোনাস লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। ডিএসই ও সিএসই ওয়েবসাইট সোমবার সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

ab bankসূত্র জানায়, ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদের বৈঠকে  রোববার লভ্যাংশের এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। আলোচিত বছরে ব্যাংকটি শেয়ার প্রতি কনসোলিডেটেড আয় (ইপিএস) করেছে  ২ টাকা ৮১ পয়সা। কনসোলিডেটেড নেট অ্যাসেট ভ্যালু (এনএভি) করেছে  ৩৫ টাকা ২৩ পয়সা।

ব্যাংকের বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) ও অতিরিক্ত সাধারণ সভা (ইজিএম) আগামী ১৭ মে অনুষ্ঠিত হবে। এ জন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে আগামী ২৩ এপ্রিল। এই দিনে ৪০০ কোটি টাকা বন্ডের অনুমোদন শেয়ার হোল্ডারদের কাছে কোম্পানি কর্তৃপক্ষ চাইবে।

উল্লেখ্য, এর আগে গত বছরের জুলাইয়ের প্রথম সপ্তাহে এবি ব্যাংককে ২৫০ কোটি টাকার বন্ড ছেড়ে মূলধন বাড়ানোর অনুমতি দেয়া হয়। বিএসইসির ৫২২তম কমিশন সভায় অনুমোদনের পর বিএসইসির মুখপাত্র ও নির্বাহী পরিচালক মো. সাইফুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা যায়।

নন-কনভারটেবল সাবঅর্ডিনেটেড বন্ডের আকার ছিল ২৫০ কোটি টাকা। অর্থাৎ ৭ বছর মেয়াদী বন্ডটি শেয়ারে রূপান্তর করা যাবে না। এর বৈশিষ্ট্য হচ্ছে, নন-কনভারটেবল, আন-সিকিউরট সাবঅর্ডিনেটেড বন্ড। কুপন রেট ১১.০ থেকে ১৩ শতাংশ।

বন্ডটি ৭ বছরে পরিপূর্ণ পুনরুদ্ধার (রিডেম্পশন) হবে। শুধুমাত্র প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা প্রাইভেট প্লেসমেন্টের মাধ্যমে এই বন্ডটি কিনতে পারবে। বন্ডটির প্রতি ইউনিটের মূল্য ১ কোটি টাকা।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here