শাহীনুর ইসলাম : ব্যবসা সম্প্রসারণ ও মুনাফা অর্জনে জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেড আগামীতে বিনিয়োগকারীদের আস্থার স্থল হতে পারে। ইতোমধ্যে তিনটি আর্থিক বিবরণী প্রকাশের মাধ্যমে সেই দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে কোম্পানির কর্তৃপক্ষ।

অন্যদিকে ঢাকার খিলক্ষেতে নিজস্ব জমিতে ‘জেনেক্স টেক পার্ক’ নির্মাণের প্রস্তুতি এবং বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন (বিটিআরসি) থেকে নতুন গণমাধ্যম হিসেবে ইন্টারনেট প্রটোকল টেলিভিশনের (আইপিটিভি) লাইসেন্সের অনুমোদন পেয়েছে।

সংবাদ এবং বিনোদন সেবা দিতে নতুন ধারার এই আইপিটিভিতে থাকবে নতুন সংযোজন। নতুন বিন্যাসে স্মার্টফোনে ব্যবহারে আগামীর বিশ্ব দেখবে মানুষ এই গণমাধ্যমে। তথ্য ও প্রযুক্তি নির্ভর কোম্পানি জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেডের কর্তৃপক্ষ সোমবার দুপুরে এ সব তথ্য জানায়।

‘আইপিটিভি’র আন্তর্জাতিক রূপ দিতে একটি মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানির সঙ্গে এ কাজ এগিয়ে নিচ্ছে জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেড।

বাণিজ্য প্রসার এবং মুনাফা অর্জন নিয়ে আর্থিক প্রতিবেদনে দেখা গেছে, প্রত্যেক প্রান্তিকে কোম্পানির মুনাফা বিগত দিনের তুলনায় উত্তোরত্তর বৃদ্ধি পেয়েছে। তৃতীয় প্রান্তিকের (জুলাই,১৯-মার্চ,২০) কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) ১০৪.৬১ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ৩ টাকা ৩১ পয়সা। গত অর্থবছরে একই সময়ে মুনাফা ছিল ১ টাকা ৬২ পয়সা। এককভাবে তিন মাসে মুনাফা হয় ১ টাকা ২২ পয়সা এবং পূর্বে একই সময়ে কোম্পানির শেয়ারপ্রতি মুনাফ (ইপিএস) ছিল ৮১ পয়সা।

জেনেক্স ইনফোসিস লিমেটেডের মুনাফা বৃদ্ধির গ্রাফটি মঙ্গলবার স্টক বাংলাদেশ থেকে নেয়া

 

দ্বিতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) তিনগুণ বেড়ে হয়েছে ১ টাকা ০১ পয়সা। আগের বছরে একই সময়ে ছিল ৫০ পয়সা। প্রথম প্রান্তিকেও ছিল একই ধরণের ধারাবাহিকতা।

২০১৮ সালের নভেম্বরে প্রাথমিক গণপ্রস্তাবে (আইপিও) ৭০০ কোটি টাকার আবেদনে সাড়া পাওয়া কোম্পানিটির বাণিজ্য প্রতিবছরই দ্বিগুণ হচ্ছে। বিশ্বে বাংলাদেশের প্রধানতম আইটি কোম্পানি হিসেবে পরিচিত হওয়ার স্বপ্ন দেখছে কোম্পানিটি।

যার ২০১২ সালে দুজন কর্মী দিয়ে বনানীতে ছোট্ট একটা অফিস দিয়ে শুরু, এখন সেই কোম্পানিতে প্রায় ৩০ হাজার কর্মী কাজ করেছেন। তবে এখন নিয়মিতভাবে কাজ করছেন ৬০০০ হাজারের অধিক কর্মী।

গ্রাফটি ডিএসই থেকে নেয়া

নতুন বছরের শুরুতে জেনেক্স ইনফোসিস লিমেটেডের ব্যবসা আরো বেড়েছে। বাংলালিংক ডিজিটাল কিমিউনিকেশন লিমিটেডের সঙ্গে সমঝোতায় বছরে ১২ কোটি টাকা আয়ের পথ দেখায়। একই সঙ্গে গত বছরে দেশের সেরা মোবাইল ফোন অপারেটর কোম্পানির রবি ও গ্রামীণফোনসহ বেশ কয়েকটি কোম্পানির সঙ্গে সঙ্গে কলসার্ভিস সেন্টারের সমঝোতা চুক্তি করে।

এরপরে চলতি বছরে সরকারের করোনাকালে ‘৩৩৩’ নম্বরে তথ্য সেবা দিতে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। ‘৩৩৩’ এর মাধ্যমে জনগণকে করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধ ও করোনা রোগীদের তথ্যসেবা দেয়া হচ্ছে। যে কারণে সম্ভাবনার সোনার কাঠি সম্পর্ষ করে বেড়ে উঠছে বিপিও এবং আইটি সার্ভিস সেক্টরের কোম্পানি জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেড।

ইতোমধ্যে রবি, গ্রামীণফোন, বাংলালিংক, উবার, স্যামস্যাং, ব্রিট্রিশ আমেরিকান টোব্যাকো (বিএটিবিসি) ও ইসলামী ব্যাংককে সেবা দিচ্ছে। নতুন পলিসি হিসেবে আইটি সার্ভিস এবং সফটওয়্যার তৈরির কথা ভাবছে কোম্পানির কর্তৃপক্ষ।

জেনেক্স ইনফোসিসের লভ্যাংশ প্রদানের চিত্রটি স্টক বাংলাদেশ থেকে নেয়া

২০১৮ সালে আইপিওতে ২০ কোটি টাকা সংগ্রহকারী কোম্পানিটি ২০ কাঠা বা ১ বিঘা জমি কিনেছে নিজস্ব ভবন নির্মাণে। ঢাকার খিলক্ষেতে ‘জেনেক্স টেক পার্ক’ নির্মাণে ১২ কোটি ৯২ লাখ ৫০ হাজার টাকায় জমি ক্রয় করেছে।

বর্তমানে কোম্পানির প্রতিমাসে অফিস ভাড়া বাবদ প্রায় ৬০ লাখ, যা বছরে ৭ কোটি ২০ লাখ টাকা ব্যয় হচ্ছে। নতুন ভবন নির্মাণ হলে কোম্পানির বিপুল পরিমাণ টাকা সাশ্রয় হয়ে তা রেভিনিউ হিসেবে যুক্ত হবে বলে মনে করেন কোম্পানি সেক্রেটারি জুয়েল রাশেদ সরকার।

বনানীতে ভাড়া বাসায় সোমবার দুপুরে তিনি বলেন, নিজস্ব জমিতে ২২ তলা ‘জেনেক্স টেক পার্ক’ নির্মাণ হলে কোম্পানির ভাড়া সাশ্রয় তো হবেই, কমার্শিয়াল স্পেস হওয়ায় নতুন করো আরো রেভিনিউ যুক্ত হবে। তবে আমরা চেষ্টা করছি, আরো ভালো করতে। বিনিয়োগকারীদের প্রত্যাশার কিছু প্রতিফলন আমরা দিতে পারব বলে আশা করছি।

দেশকে এগিয়ে নিতে তথ্যপ্রযুক্তি সেক্টর হতে পারে বড় একটি হাতিয়ার বলে মনে করেন তিনি। কর্মসংস্থানের দিক থেকে জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেড বিভিন্ন সময়ে প্রায় ৩০ হাজার মানুষের চাকরির সংস্থান করেছে।

পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানিটির মঙ্গলবার সকালে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) শেয়ারপ্রতি লেনদেন শুরু হয় ৫৮.২০ টাকায়। ২০১৯ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে লেনদেন শুরু হওয়া কোম্পানিটির একই বছরের ২২ ডিসেম্বর সর্বোচ্চ দর ছিল ৭০ টাকা ৮০ পয়সা।

জেনেক্স ইনফোসিস লিমেটেডের শেয়ারপ্রতি দরের গ্রাফটি মঙ্গলবার স্টক বাংলাদেশ থেকে নেয়া

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ টেলিকমিউনিকেশন রেগুলেটরি কমিশন (বিটিআরসি) থেকে চলতি বছরের জুনের শেষে ইন্টারনেট প্রটোকল টেলিভিশনের (আইপিটিভি) লাইসেন্স পেয়েছে জেনেক্স ইনফোসিস লিমিটেড।

পেছনের খবর-

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here