অল্টারনেটিভ ট্রেডিং ‘বিনিয়োগ বাড়াতে সহায়ক’

0
167

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ সিকিউরিটি এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) গবেষণা ও প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ অ্যাকাডেমি ফর সিকিউরিটিজ মার্কেট (বিএএসএম) এবং ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ট্রেনিং অ্যাকাডেমি যৌথভাবে অনলাইনে প্রশিক্ষণ সেশনের আয়োজন করা হয়। সোমবার গঠিত অল্টারনেটিভ ট্রেডিং বোর্ডের বিষয়ে আলোচনা করতে ‘ফাংশন অ্যান্ড প্রসপেক্ট অব অল্টারনেটিভ ট্রেডিং বোর্ড (এটিবি)’ শীর্ষক সেশন সম্পন্ন হয়েছে।

গণমাধ্যমকে বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে মঙ্গলবার এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে প্রকাশ, শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ, সেন্টাল ডিপোজিটরি বাংলাদেশ লিমিটেড (সিডিবিএল), ভেঞ্চার ক্যাপিটাল অ্যান্ড প্রাইভেট ইক্যুইটি অ্যাসোসিয়েশন (ভিসিপিয়াব) এবং ব্রোকার অ্যাসোসিয়েশন ও বাংলাদেশের প্রতিনিধিদের অংশগ্রহণের এই অনলাইন প্রশিক্ষণ প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানের সঞ্চালনা করেন বিএসইসি পরিচালক মোহাম্মাদ রেজাউল করিম ও র‍্যাপোটিয়ার হিসেবে ছিলেন ডিএসই ট্রেনিং অ্যাকাডেমির সিনিয়র ম্যানেজার ও প্রধান মুহাম্মাদ রনি ইসলাম।

এতে এটিবির উদ্দেশ্য নিয়ে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডিএসই এর প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা এম. সাইফুর রহমান মজুমদার, এফসিএ, এফসিএমএ। তিনি বলেন, এটিবি কার্যক্রম শুরু করার পর নতুন বিনিয়োগকারীরা বাজারে যুক্ত হতে পারবেন। কারণ এটিবি বাজারে তালিকাভুক্ত নয় এমন কোম্পানি, যেকোনো ধরণের বন্ড, ডিবেঞ্চার, সুকুক, ওপেন-এন্ড মিউচ্যুয়াল ফান্ড ও অল্টারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডসের তালিকাভুক্তি করবে।

আলোচকরা অল্টারনেটিভ ট্রেডিং বোর্ডকে শেয়ার বাজারের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সংযোজন হিসেবে অভিহিত করে স্বাগত জানান এবং বিনিয়োগ ও বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানের জন্য বিভিন্ন বিনিয়োগ সুবিধা ডেভেলপ করার দাবি জানান। এছাড়া তারা বিনিয়োগকারীদের সুবিধার্তে এটিবি তালিকাভুক্ত কোম্পানি, বন্ডস, ওপেন-এন্ড মিউচ্যুয়াল ফান্ডস, প্রাইভেট ইক্যুইটি অ্যান্ড ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ফান্ডস নিয়ন্ত্রণে নীতিমালা তৈরির বিষয়ে আলোচনা করেন।

বিএসইসি নির্বাহী পরিচালক ও বিএসএসএম মহাপরিচালক মো. মাহবুবুল আলম বিনিয়োগ আকর্ষণ করতে জনসচেতনতা তৈরিতে এটিবি’কে বিপণনে নজর দিতে বলেন। তিনি বলেন, তালিকাভুক্ত নয় এমন কোম্পানি এবং প্রাইভেট ইক্যুইটি অ্যান্ড ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ফাল্ডের মতো বিকল্প বিনিয়োগ খাতে বিনিয়োগ করার জন্য প্রতিষ্ঠানকে সুযোগ করে দেবে এটিবি। এ সম্পর্কিত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠাঙ্গুলো অবশ্যই সুবিধাটি ভোগ করতে পারবেন।

ভিসিপিয়াব চেয়ারম্যান শামীম আহসান এবং পেগাসাস টেক ভেঞ্চারস -এর জেনারেল পার্টনার শামীম আহসান বলেন, এটিবি’র মাধ্যমে তৈরি হওয়া নতুন বিনিয়োগ সুযোগের সম্পূর্ণ সুবিধা নিতে আমাদেরকে একটি যথাযথ নীতিমালা ও নির্দেশিকা তৈরি করতে হবে। আমরা মনে করি, এই উদ্যোগের মাধ্যমে বিনিয়োগ বাজারে আরও অধিক মানুষের অংশগ্রহণের যাত্রা শুরু হবে।

তিনি স্টার্টআপ কোম্পানি, এসএমই প্রতিষ্ঠানকে লালন করা এবং প্রাইভেট ইক্যুইটি ও ভেঞ্চার ফান্ডের মতো অল্টারনেটিভ ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের ব্যবহার নিশ্চিত করার বিষয়ে জোর দেন, কারণ এগুলো ভবিষ্যৎ-এ শেয়ার বাজারে তালিকাভুক্ত হওয়া কোম্পানির সংখ্যা বাড়াবে এবং জিডিপিতে উল্লেখজনক হারে অবদান রাখতে পারবে।

বিএসইসি পরিচালক মোহাম্মাদ রেজাউল করিম বলেন, শেয়ার বাজারের উন্নয়নের জন্য এটিবি’র মতো বোর্ড গঠন করার এটাই যথার্থ সময়। বিনিয়োগকারীদের মধ্যে আস্থা তৈরিতে অবশ্যই কমপ্লায়েন্স নিশ্চিত করা হবে।

ডিএসই ব্রোকারস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ডিবিএস) সভাপতি শরিফ আনোয়ার হোসেন বলেন, শেয়ার বাজারে উন্নয়নের অনেক সুযোগ রয়েছে এবং এটিবি ফান্ড বরাদ্দ সহজতর করবে। তিনি আরও বলেন, এটিবি শেয়ার বাজারের উন্নয়ন ত্বরান্বিত করবে এবং অনেক স্থানীয় কোম্পানির ফান্ড বৃদ্ধি করবে।

সিডিবিএলের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা শুভ্র কান্তি চৌধুরী, এফসিএ বলেন, ব্যবসা পরিসরে ছোট হবার কারণে অনেক কোম্পানিই ফান্ড বৃদ্ধি করতে পারে না।  এটিবি বিষয়টিতে সহায়তা দেবে এবং তালিকাভুক্ত নয় এমন কোম্পানির জন্য সুযোগ তৈরি করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here