‘MACD’ ক্রস করতে যাচ্ছে ডিএসইএক্স ইনডেক্স

1
1553

মেহেদী আরাফাত : টেকনিক্যাল অ্যানালাইসিস অনুযায়ী মঙ্গলবার ঢাকা শেয়ার বাজার বিশ্লেষণে দেখা যায়- ডিএসইএক্স ইনডেক্স লেনদেনের শুরু থেকেই হ্রাস পেতে থাকে। দিনের শুরুতে কিছুটা ক্রয়চাপ থাকলেও কিছু সময় পর বিক্রয় চাপের ফলে সূচক বেশ নিম্নমুখী হয়ে যায়। বেলা বাড়ার সাথে সাথে বিক্রয় চাপ আরও প্রবল হতে থাকে এবং দিনশেষে সূচক ১৩.১৫ পয়েন্ট হ্রাস পেয়েছে। সূচকের এ পতনের ফলে আজকের ক্যান্ডেলস্টিক একটি বিয়ারিশ ক্যান্ডেলস্টিক ছিল। এই বিয়ারিশ ক্যান্ডেলস্টিক বাজারের বিক্রয় চাপ প্রকাশ করছে।

TA বিস্লেশকদের কাছে ‘MACD’ একটি জনপ্রিয় ইনডিকেটর। ডিএসইএক্স ইনডেক্স এর ‘MACD’ দেখলে দেখা যায়ে, ‘MACD LINE’ যখন ‘SIGNAL LINE’ কে নিচ থেকে ক্রস করে তখন ডিএসইএক্স ইনডেক্স বৃদ্ধি পায়।এটাকে ‘POSITIVE MACD CROSS OVER’ বলে। ডিএসইএক্স ইনডেক্স এর ‘MACD’ এই পর্যন্ত মোট ১৩ বার ‘POSITIVE CROSS OVER’ করেছিল। ‘POSITIVE MACD CROSS OVER’ করার অল্প সময়ের মধ্যে মার্কেট ভালভাবে ঘুরে দাঁড়িয়েছিল। বর্তমানে ডিএসইএক্স ইনডেক্স অল্প কিছু বৃদ্ধি পেলে ‘POSITIVE MACD CROSS OVER’ হবে। এই হিসাবে TA বিস্লেশকরা ধারনা করছেন, মার্কেটের আগামী কয়েক দিনের লেনদেন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আগামী কয়েক দিন যদি ইনডেক্স বৃদ্ধি পায় তাহলে ‘MACD CROSS’ করবে।

বর্তমানে ডিএসই এক্স ইনডেক্স এর পরবর্তী সাপোর্ট ৪৩৯২ পয়েন্টে এবং রেজিটেন্স ৪৮৫১ পয়েন্টে অবস্থান করছে। আজ বাজারে এম.এফ.আই এর মান ছিল ২৭.৫২ এবং আল্টিমেট অক্সিলেটরের মান ছিল ৩৬.৪৫। এম.এফ.আই কিছুটা ঊর্ধ্বমুখি আবস্থান করছে এবং আল্টিমেট অক্সিলেটর কিছুটা ঊর্ধ্বমুখি আবস্থান করছে।Screenshot_2

ডিএসইতে ৫ কোটি ৮৩ লাখ ৬৮ হাজার ৪১৩ টি শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ড লেনদেন হয়, যার মূল্য ছিল ২৫৫.৫৪ কোটি টাকা। ডিএসইতে লেনদেন হ্রাস পেয়েছে ৫৮ কোটি টাকা। ঢাকা শেয়ারবাজারে ৩০৫ টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের লেনদেন হয়েছে, যার মধ্যে দাম বেড়েছে ৭৯ টির, কমেছে ১৯১ টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৫ টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের দাম।

পরিশোধিত মূলধনের দিক থেকে দেখা যায়, বাজারে চাহিদা বেশি ছিল ২০-৫০ কোটি টাকার পরিশোধিত মূলধনী প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের যা আগেরদিনের তুলনায় ৫০.৩১% বৃদ্ধি পেয়েছে। অন্যদিকে হ্রাস পেয়েছে ৫০-১০০ এবং ১০০-৩০০ কোটি টাকার পরিশোধিত মূলধনী প্রতিষ্ঠানের শেয়ারের যা আগেরদিনের তুলনায় ৯.২১% এবং ১৭.৮৩% কম। অন্যদিকে ৩০০ কোটি টাকার উপরে পরিশোধিত মুলধনী প্রতিষ্ঠানের লেনদেনের পরিমান গতকালের তুলনায় ০.৫৬% হ্রাস পেয়েছে।

পিই রেশিও ৪০ এর উপরে থাকা শেয়ারের লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ৪৭.৯৭% বৃদ্ধি পেয়েছে। অন্যদিকে পিই রেশিও ০-২০ এবং ২০-৪০ এর মধ্যে থাকা শেয়ারের লেনদেন আগের দিনের তুলনায় ১১.৪২% এবং ৯.৪২% হ্রাস পেয়েছে।

ক্যাটাগরির দিক থেকে এগিয়ে ছিল ‘জেড’ ক্যাটাগরির শেয়ারের লেনদেন যা আগেরদিনের তুলনায় যথাক্রমে ৯৬.০৯% বেশী ছিল। হ্রাস পেয়েছে ‘এন’ ক্যাটাগরির শেয়ারের লেনদেন যা আগেরদিনের তুলনায় ১৫.৭১% কম ছিল।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here