BSEC’র স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্নবিদ্ধ

0
742

সিনিয়র রিপোর্টার :: আজ একদিনেই ১৭ কোম্পানির এজিএম হবে দেশের বিভিন্ন স্থানে । তাও আবার বেশের ভাগই কোম্পানির ফ্যাক্টরির স্থানে অনুষ্ঠিতও হবে। এতে বিনিয়োগকারীরা পড়েছেন বিপাকে। কারন অনেকেরই একাধিক কোম্পানির শেয়ার আছে বিধায় তাঁরা একাধিক কোম্পানির  এজিএমে অংশ গ্রহন করতে পারবে না। আর এতেই BSEC’র স্বচ্ছতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এতে বিনিয়গকারীরা ক্ষোদ প্রকাশ করেছে।

আজ সিরামিক খাতের মুন্নু সিরামিক, ভ্রমণ ও অবকাশ খাতের ইউনাইটেড এয়ার ওয়েজ, প্রকৌশল খাতের আমরা টেকনোলজিস, অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ, আফতাব অটোমোবাইলস, এএমসিএল প্রাণ, এ্যাটলাস বাংলাদেশ, মেঘনা পেট, সিমেন্ট খাতের এমআই সিমেন্ট ফ্যাক্টরি, আইটি খাতের ড্যাফোডিল কম্পিউটার্স, বস্ত্র খাতের দুলামিয়া কটন, এনভয় টেক্সটাইলস, আর্থিক খাতের মাইডাস ফাইন্যান্স, খাদ্য ও আনুষঙ্গিক খাতের মেঘনা কন্ডেন্সড মিল্ক, রহিমা ফুড কর্পোরেশন, বীমা খাতের প্রাইম ইন্সুরেন্স কোম্পানি ও চামড়া খাতের সমতা লেদারের বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) ২৪ ডিসেম্বর বুধবার। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও কোম্পানি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

AGM

কালাম নামের একজন বিনিয়োগকারী বলেন, আমার ৫ টি কোম্পানির শেয়ার আছে এবং আমি সবগুলোতে অংশ গ্রহন করে পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচন করতে চাই কিন্তু কোম্পানি আমার সে আধিকার কেড়ে নিয়েছে। আর এজন্য BSEC দায়ী। কারন এগুলো দেখার দায়িত্ত BSEC । আমরা সাধারন বিনিয়োগকারীরা যদি সাধারনত বার্ষিক সাধারণ সভায় অংশ গ্রহন করতে না পারি তাহলে দুর্নীতিবাজ পরিচালনা পর্ষদ হবে এবং বছর বছর লোকসানের ঘানি বিনিয়োগকারীরা টানবে।

আলামত আলী একজন সাধারন বিনিয়োগকারী, শেয়ারে বিনিয়োগ করছেন গত ১২ বছর । তিনি বলেন, আপনি দেখেন কি হচ্ছে বাংলাদেশে ? আপনি কোম্পানির একজন মালিক কিন্তু আপনার থেকে ভোটের অধিকার কেড়ে নিচ্ছে। আপনি যেন ভোটের মাধ্যমে পরিচালনা পর্ষদ পরিবর্তন না করতে পারেন সে জন্য একইদিনে ১৭ কোম্পানির এজিএম হবে দেশের বিভিন্ন স্থানে ফেলেছে। আপনি হলেন একজন, আপনি ক্জায়গায় যাবেন একই সময় ? আর একই কারনে দেখেন আজ কম্পানিরগুলোর মধ্যে দেখা যাচ্ছে দুর্নীতি। আর মজার বিষয় হল যাদের এ বিষয়ে দেখার কথা মানে BSEC, তাঁরা নিশ্চুপ। তাঁরা কি মনে করছেন এগুলো জানে না ? আর না জানলে পদে থাকার দরকার কি? বিনিয়গকারীরা হল খেলার পুতুল।

BSEC’র স্বচ্ছতা নিয়ে পুজ্ঞিবাজার বিশ্লেষকদের কাছে জানতে চাওয়া হলে তাঁরা  বিষয়ে কোন মন্তব্য করতে চাননি। শুধু বলেন, কিছু বলার নাই। বাংলাদেশে সবই সম্ভব।

উল্লেখ্য যে, সাধারনত বার্ষিক সাধারণ সভায় পরিচালনা পর্ষদ নির্বাচন সহ কোম্পানির অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে কোম্পানির সাধারন বিনিয়োগকারী সিধান্ত নিয়ে থাকেন। সাধারন বিনিয়োগকারীরা অনুমতি দিলেই তা পরিচালনা পর্ষদ বাস্তবায়ন করে থাকেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here