ইমরান হোসেন : ২০১৬ সালের সমাপ্ত অর্থবছরের আর্থিক প্রতিবেদন, এজেন্ডসমূহ পাশ ও বিনিয়োগকারীদের ৭০% ক্যাশ লভ্যাংশ অনুমোদনের মাধ্যমে বহুজাতিক কোম্পানি  সিঙ্গার বিডির ৩৭ তম বার্ষিক সাধারণ সভা বৃহঃবার ( ১১ মে ) রাজধানীর গুলশানে স্পেক্ট্রা কনভেনশন সেন্টারে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এজিএমে চেয়ারম্যান গ্যাভিন ওয়াকার তাঁর বক্তৃতায় কোম্পানির গত বছরের সাফল্য উল্লেখ করে বলেন,“গত বছর (২০১৬)আমাদের কোম্পানি ৯ বিলিয়ন রেভিনিউ করেছে  যা ২০১৫ বছরের থেকে ৩০.৩% বেশি। গত বছরের তুলনায় আমাদের কোম্পানির নিট ইনকাম ৪৮.২% বৃদ্ধি পেয়েছে

ইনভেন্টরি দ্বিগুণ রাখা ও ক্যাশ ফ্লো নেগেটিভের বিষয়ে চেয়ারম্যান বলেন,“গত নভেম্বর –ডিসেম্বরে আমরা প্রচুর ইনভেন্টরি ক্রয় করে স্টক করেছি আগামীতে ইনভেন্টরির দাম বাড়তে পারে এই আশংকায় (আসলে হয়েছেও তাই)  ফলে ক্যাশ ফ্লো নেগেটিভ দেখাচ্ছে। চিন্তার কোন কারণ নাই, সিঙ্গার বিডির এর সহযোগী কোম্পানী ইন্টারন্যাশনাল অ্যাপ্লায়েন্সেস লিমিটেড ফ্রিজের উৎপাদন শুরু করেছে ঐ ইনভেন্টরি ব্যবহার করে । ফলে লাভও ভালই হবে।আমাদের খরচ হয়ে গেছে ,এখন সমনে আয় হবে।

তিনি বলেন অনেক বিদেশি বিনিয়োগ র্ফামের সাথে আমাদের যোগাযোগ হয়েছে ,তারা সিঙ্গার বিডিতে বিনিয়োগে আগ্রহী।

তিনি মনে করেন, উচ্চ মার্জিন, নিম্ন পরিচালন ব্যয়, সুদের নিম্নহার এবং নতুন নতুন উৎপাদনমুখী কার্যক্রম ভবিষ্যতের সম্ভাবনার দুয়ার খুলে দেবে। বিজ্ঞাপন কার্যক্রমে বিনিয়োগ বৃদ্ধির মাধ্যমে আমরা অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাবার আশা রাখি।

এজিএমে বক্তৃতা করেন শেয়ার বাজার বিশেষষ্ণ , ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও কোম্পানিটির সম্মানিত বিনিয়োগকারী আবু আহমদ ।তিনি বলেন,“বাংলাদেশে শুধু বিঙ্গাপণের জোরে কিছু কোম্পানি রাবিশ পণ্য বিক্রয় করে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।” সিঙ্গার বিডিকে বিঙ্গাপণ বাড়াতে এবং ঢাকার বাহির প্রত্যান্ত এলাকায় ব্যবসা সমপ্রসারণের পরামর্শ দেন। এছাড়া ভোক্তার সাইকোলজি আমলে নিয়ার উপর গুরুত্বারোপ করেন।

চেয়ারম্যান গ্যাভিন ওয়াকারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এমডি ,পরিচালনা পর্ষদের সদস্যবৃন্দ এবং সম্মানিত বিনিয়োগকারীগণ।

1 COMMENT

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here