মার্চে চীনে বেড়েছে ইস্পাত উৎপাদন

0
461

রয়টার্স : চলতি বছরের মার্চে শীর্ষ উৎপাদক দেশ চীন রেকর্ড পরিমাণ ইস্পাত উৎপাদন করেছে। ২০১৬ সালের মার্চে ৭ কোটি ৬ লাখ ৫০ হাজার টন ইস্পাত উৎপাদন করে নতুন রেকর্ড গড়েছিল দেশটি। চলতি বছরের মার্চে উৎপাদনের সে রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে চীন।

চীনের পরিসংখ্যান ব্যুরোর তথ্যমতে, চলতি বছরের মার্চে সবমিলে ৭ কোটি ২০ লাখ টন ইস্পাত উৎপাদন করেছে দেশটি, যা ২০১৬ সালের মার্চের তুলনায় ১ দশমিক ৮ শতাংশ বেশি। বিশ্ববাজারে বাড়তি দাম চীনকে ধাতুটির উৎপাদন বৃদ্ধিতে আগ্রহী করেছে— এমনটাই মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

চলতি বছরের প্রথম প্রান্তিকেও বিপুল পরিমাণ ইস্পাত উৎপাদন করেছে চীন। দেশটির পরিসংখ্যান ব্যুরো জানিয়েছে, চলতি বছরের জানুয়ারি-মার্চ প্রান্তিকে ২০ কোটি ১১ লাখ টন ইস্পাত উৎপাদন হয়েছে, যা ২০১৬ সালের প্রথম প্রান্তিকের তুলনায় ৪ দশমিক ৬ শতাংশ বেশি।

উৎপাদন বৃদ্ধি প্রসঙ্গে বাজার বিশ্লেষকরা বলছেন, ২০১৬ সালে বিশ্ববাজারে ইস্পাতের মূল্যবৃদ্ধি ছিল চোখে পড়ার মতো। বাড়তি দামের সুবিধা নিতেই চীন বেশি পরিমাণে ইস্পাত উৎপাদন করছে।

চীন মূলত নিম্নমানের ইস্পাত উৎপাদনেই বেশি মনোযোগী। বিশেষ করে ইস্পাত রিবার উৎপাদনে প্রাধান্য দেয় দেশটি। অবকাঠামো নির্মাণে এই ইস্পাত রিবারের ব্যবহার সবচেয়ে বেশি। বাজার পর্যবেক্ষণ করে দেখা গেছে, ২০১৬ সালে বিশ্ববাজারে ইস্পাত রিবারের দাম বেড়েছে ৭০ শতাংশের বেশি। আর চলতি বছরের এখন পর্যন্ত ধাতুটির দরে প্রবৃদ্ধি হয়েছে প্রায় ১০ শতাংশ।

তবে সম্প্রতি নিম্নমুখী প্রবণতায় রয়েছে ইস্পাত রিবারের বাজার। গত শুক্রবার চীনের বাজারে প্রতি টন ইস্পাত রিবার বিক্রি হয়েছে ২ হাজার ৯১৮ ইউয়ানে (৪২৩ ডলার ৯০ সেন্ট), যা বৃহস্পতিবারের তুলনায় ১ দশমিক ১৫ শতাংশ কম। আর এপ্রিলের এখন পর্যন্ত ধাতুটির দাম কমেছে ৭ দশমিক ৮ শতাংশ। বাজার বিশ্লেষকরা বলছেন, ২০১৬ সালের মে মাসের পর চলতি এপ্রিলে সবচেয়ে খারাপ সময় পার করছে ইস্পাত রিবারের বাজার।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here