ফেব্রুয়ারিতে ডিএসইতে কমেছে বিদেশী লেনদেন

0
599

স্টাফ রিপোর্টার : রাজস্ব আহরণে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) শেয়ারবাজারে সাম্প্রতিক ধীরগতির প্রভাব পড়েছে। ফেব্রুয়ারিতে বিভিন্ন ধরনের লেনদেন থেকে সরকারের কোষাগারে জমা দেয়া অর্থের পরিমাণ আগের মাসের তুলনায় ৬১ দশমিক ১১ শতাংশ কমেছে।

অন্যদিকে, বিদেশী বিনিয়োগকারীদের লেনদেনও কমেছে ৩৮ দশমিক ৯৩ শতাংশ।

ডিএসই জানিয়েছে, গেল মাসে বিভিন্ন ধরনের লেনদেন থেকে সরকারের কোষাগারে মোট ২৩ কোটি ৬১ লাখ ৪ হাজার ৩০১ টাকা জমা করেছে ডিএসই, জানুয়ারিতে যা ছিল ৬০ কোটি ৭০ লাখ ৫৫ হাজার ৮৯৮ টাকা। ফেব্রুয়ারিতে ডিএসইর ব্রোকারেজ হাউজগুলোর সাধারণ কেনাবেচা থেকে রাজস্ব এসেছে ১৯ কোটি ৪০ লাখ ৩৮ হাজার ৬০ টাকা ও উদ্যোক্তা-পরিচালক ও প্লেসমেন্টধারীদের শেয়ার লেনদেন থেকে রাজস্ব এসেছে ৪ কোটি ২০ লাখ ৬৬ হাজার ২৪১ টাকা। জানুয়ারিতে এ দুই খাতে রাজস্ব আসে যথাক্রমে ৩৪ কোটি ২৩ লাখ ও ২৬ কোটি ৪৭ লাখ টাকা।

শেয়ারবাজার-সংশ্লিষ্টরা বলছেন, গত বছরের নভেম্বর থেকে ঊর্ধ্বমুখী বাজারে জানুয়ারিতে মুনাফা তুলে নেয় অধিকাংশ বিনিয়োগকারী। শেয়ারবাজারে ব্যাংকের বিনিয়োগ নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের নজরদারি বাড়ানো ও সংশোধন পর্বে থাকায় ফেব্রুয়ারিতে ধীরে চলার নীতি অবলম্বন করেন সব ধরনের বিনিয়োগকারীরা। ফলে এ সময়ে বাজারে সার্বিক লেনদেন কমে যাওয়ার পাশাপাশি বিদেশী বিনিয়োগকারীদের লেনদেন কমেছে।

জানুয়ারির তুলনায় গেল মাসে ডিএসইতে বিদেশীদের লেনদেন কমেছে ৪০৩ কোটি টাকা। ফেব্রুয়ারিতে বিদেশী বিনিয়োগকারীদের মোট লেনদেন হয় ৬৩২ কোটি ৮৮ লাখ ৭৩ হাজার ৫১ টাকা, আগের মাসে যা ছিল ১ হাজার ৩৬ কোটি ৩৭ লাখ ২৫ হাজার ১১২ টাকা।

ফেব্রুয়ারিতে বিদেশীদের লেনদেন কমলেও আগের মাসের তুলনায় শেয়ার বিক্রির পরিবর্তে কেনার প্রবণতা বেশি দেখা গেছে। গেল মাসে ৪৩৫ কোটি ৬৭ লাখ টাকার শেয়ার কেনার বিপরীতে ১৯৭ কোটি ২১ লাখ ৫৮ হাজার টাকার শেয়ার বিক্রি করেছেন বিদেশী বিনিয়োগকারীরা। অন্যদিকে জানুয়ারিতে ৬১১ কোটি ২৫ লাখ টাকার শেয়ার কেনার বিপরীতে ৪২৫ কোটি ৭০ লাখ টাকার শেয়ার বিক্রি করেন তারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here