মোহাম্মদ তারেকুজ্জামান : বর্তমান পুঁজিবাজার সব দিক থেকেই ভালো আছে। আগামীতে আরও ভালো হবে। কে কি বলল সেদিকে আমি যাবো না। তবে আমার অ্যানালাইসিসে বলে আগামী ৬মাসের মধ্যে লেনদেন ৩ হাজার কোটি টাকা ছাড়িয়ে যাবে।

স্টক বাংলাদেশের কার্যালয়ে মোনা ফিনান্সিয়াল কনসালটেন্সি অ্যান্ড সিকিউরিটিজ লিমিটেডের সিনিয়র এক্সেকিউটিভ সাইফুল ইসলাম শনিবার পুঁজিবাজার সংক্রান্ত আলোচনায় এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, প্রত্যেকটা জিনিসেরই ওয়েব রয়েছে। খারাপ-ভালো থাকবেই। ঠিক তেমনি পুঁজিবাজারের খারাপ-ভালো রয়েছে। ১৯৯৬ সালে পুঁজিবাজারে ধস নেমেছিল, তবে তা চোখে দেখিনি, শুনেছি। কিন্তু ২০১০ দেখেছি। ভেঙ্গে পড়িনি। প্রায় ৯ বছর ধরে পুঁজিবাজারের সাথে জড়িত আছি। প্রায় ৫০ লাখ টাকা আমার বিনিয়োগ রয়েছে বাজারে। আর পোর্টফলিওতে রয়েছে প্রায় ৫৭ লাখ টাকা। বিনিয়োগ করে লাভবান হয়েছি। ভবিষ্যতে আরও হবো ইনশাল্লাহ।

একটা সময় ট্রানজেকশন বন্ধ ছিল। যাদের মার্জিন ঋণ ছিল তারা ট্রেড করতে পারতো না। এছাড়াও বিনিয়োগকারী পরিপন্থি আরও কিছু রুলস ছিল; যেগুলোর কারণে গত কয়েক বছর মার্কেট খারাপ ছিল বলে তিনি মনে করেন।

তবে আশার কথা হচ্ছে বিনিয়োগকারী পরিপন্থি প্রায় সব রুলস উঠিয়ে নেয়া হয়েছে। মার্জিন ঋণধারীরা আগে লেনদেন করতে পারতেন না। কিন্তু এখন পারেন। বাংলাদেশ ব্যাংকের কারনে ব্যাংকগুলো ইন্টারেস্টের হার সিঙ্গেল ডিজিটে নিয়ে আসাতে বাধ্য হয়েছে। এছাড়াও কমিশন, ডিএসই, সিএসইসহ নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলো বিনিয়োগবান্ধব বিভিন্ন পদক্ষেপ নিয়েছে। যার কারণে মার্কেট বর্তমানে ভালো রয়েছে বলে জানান সাইফুল ইসলাম।

সাইফুল ইসলাম বলেন, সামনে বাজেট আসবে। বাজেটে পুঁজিবাজারের উন্নয়নে বিভিন্ন পদক্ষেপ নেবেন সংশ্লিষ্টরা। তাই ভয় পাওয়ার কিছু নেই। আগামীতে মার্কেট অবশ্যই আরো ভালো হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here