যমুনা ওয়েল, ডেসকো, ইউপিজিডিসিএল, উসমানিয়া গ্লাস, ইভেন্স ও আমরা টেকনোলজির প্রতিবেদন

0
2853

স্টাফ রিপোর্টার : পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৬টি কোম্পানির কর্তৃপক্ষ তাদের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। বুধবার কোম্পানির পর্ষদ সভায় অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন থেকে এ তথ্য জানা গেছে। বিস্তারিত নিচে প্রকাশ-

যমুনা অয়েল লিমিটেড : দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। কোম্পানিটির সর্বশেষ ৬ মাসে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১২ টাকা ৪৬ পয়সা। যা আগের বছরে একই সময়ে ছিল ৮ টাকা ৩৯ পয়সা।

সর্বশেষ ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৬) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬ টাকা ৩ পয়সা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৩ টাকা ৯ পয়সা।

৩১ ডিসেম্বর শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ১৬৭ টাকা ৯৬ পয়সা। গত বছরের একই সময়ে ছিল ১৩৮ টাকা ৪৬ পয়সা।

ঢাকা ইলেক্ট্রিক সাপ্লাই কোম্পানি (ডেসকো) লিমিটেড : দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। কোম্পানিটির সর্বশেষ ৬ মাসে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৩২ পয়সা। যা আগের বছরে একই সময়ে ছিল ১ টাকা ৩৬ পয়সা।

সর্বশেষ ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৬) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৫ পয়সা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৬৮ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৩৮ টাকা ৫৯ পয়সা। কোম্পানিটি ২০০৬ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়।

ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি  (ইউপিজিডিসিএল) লিমিটেড : দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। কোম্পানিটির সর্বশেষ ৬ মাসে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫ টাকা ৮১ পয়সা। যা আগের বছরে একই সময়ে ছিল ৫ টাকা ৩৮ পয়সা।

সর্বশেষ ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৬) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ৯৭ পয়সা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ২ টাকা ৮২ পয়সা। ৩১ ডিসেম্বর শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ৩৫ টাকা ৫২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে ছিল ৩৪ টাকা ২২ পয়সা।

এদিকে, ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি  (ইউপিজিডিসিএল) লিমিটেডের উদ্যোক্তারা নতুন প্লান্টের জন্য বুধবার বিদ্যুৎ ভবনে সরকারের সঙ্গে চুক্তি সই করেছে। চট্টগ্রামের আনোয়ারাতে ইউপিজিডিএলের উদ্যোক্তা শেয়ারহোল্ডাররা তেলভিত্তিক ৩০০ মেগাওয়াট পাওয়ার প্লান্ট স্থাপন করবে।

নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে চুক্তিটি সই করেন ইউনাইটেড পাওয়ার জেনারেশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানী লিমিটেডের (ইউপিজিডি) ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও বিদ্যুৎ বিভাগের জয়েন্ট সেক্রেটারি। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিদ্যুৎ বিভাগের ডেপুটি সেক্রেটারি, ইউপিজিডিসিএলের সচিব, নির্বাহী পরিচালকসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

তবে এটির সঙ্গে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত কোম্পানির কোন সম্পর্ক আছে- কী না তা জানা জায়নি।

উসমানিয়া গ্লাস শীট ফ্যাক্টরি লিমিটেড : দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। কোম্পানিটির সর্বশেষ ৬ মাসে শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৩ টাকা ১৪ পয়সা। যা আগের বছরে একই সময়ে লোকসান ছিল ২ টাকা ৬৯ পয়সা।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য হয়েছে নেতিবাচক ১২ টাকা ৩৩ পয়সা। যা এর আগের বছর একই সময়ে ২০ টাকা ৩৩ পয়সা ইতিবাচক ছিল।

ইভেন্স টেক্সটাইলস লিমিটেড : দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। কোম্পানিটির সর্বশেষ ৬ মাসে সমন্বিত শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৮ পয়সা। যা আগের বছরে একই সময়ে ছিল ৮৫ পয়সা।

সর্বশেষ ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৬) কোম্পানিটির সমন্বিত শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪২ পয়সা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৪৪ পয়সা।

আমরা টেকনোলজিস লিমিটেড :  দ্বিতীয় প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। কোম্পানিটির সর্বশেষ ৬ মাসে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৮ পয়সা। যা আগের বছরে একই সময়ে ছিল ২৮ পয়সা।

সর্বশেষ ৩ মাসে (অক্টোবর-ডিসেম্বর’১৬) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৪ পয়সা। যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ১০ পয়সা।

৩১ ডিসেম্বর শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ (এনএভি) হয়েছে ২১ টাকা ৫৮ পয়সা। যা আগের বছর একই সময়ে ছিল ২০ টাকা ৯১ পয়সা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here