ইসলামী ব্যাংকে ৫৫ মিনিটে ৭৫ জনের ভাইভা সম্পন্ন

0
1496

স্টাফ রিপোর্টার : ব্যবস্থাপনায় বড় ধরণের পরিবর্তনের পর এবার কর্মকর্তা-কর্মচারীদের পদোন্নতির দিকে নজর দিয়েছে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড। মঙ্গলবার পদোন্নতির জন্য মৌখিক পরীক্ষা দিয়েছে ব্যাংকটির উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তারা। দুই পর্বে ৭৫ জন করে মোট ১৫০ জনের  ভাইভা নেওয়া হয়েছে। আর ৫৫ মিনিটেই ৭৫ জনের ভাইভা শেষ করে দেওয়া হয়েছে।

তাই ভাইভাকে ‘নামকাওয়াস্তে’ বলেই অভিহিত করেছেন অনেকে। এদিকে ব্যাংটির নতুন চেয়ারম্যান আরাস্তু খান বৃহস্পতিবার বিকালে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবীরের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে গিয়েছিলেন। যদিও বুধবার গভর্নরের সঙ্গে সাক্ষাতের দিন ধার্য ছিল। তবে কি আলোচনা হয়েছে তা জানা যায়নি।

ইসলামী ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, প্রিন্সিপাল অফিসার থেকে সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার পদে পদোন্নতির জন্য মৌখিক পরীক্ষা (ভাইভা) নেওয়া হয়েছে। এজন্য সকালে ৭৫ জন এবং বিকালে ৭৫ জনের ভাইভা নেওয়া হয়েছে। সবাইকে একসঙ্গে বসিয়ে একই প্রশ্ন করা হয়েছে। যা ইসলামী ব্যাংকের ইতিহাসে কখনো হয়নি।

ভাইভাতে যেসব প্রশ্ন করা হয়েছে তার মধ্যে রয়েছে— রুপকল্প ২০২১ এ সম্পর্কে কি জানেন, মুদ্রাস্ফীতি কি, মুদ্রাস্ফীতির ফলে এক্সপোর্ট ইমপোর্টে কী প্রভাব পড়ে, অ্যামিকেবল সেটেলমেন্ট কী ইত্যাদি। ব্যাংকটির মিশন-ভিশন ইসলামী ধারার হলেও ইসলামী ব্যাংকিং নিয়ে তেমন কোন প্রশ্ন করা হয়নি।

ভাইভা বোর্ডে ছিলেন ব্যাংকটির এমডি মো. আব্দুল হামিদ মিঞা, ডিএমডি মাহবুব-উল-আলম, মো. শামসুজ্জামান, আব্দুস সাদেক ভুঁইয়া ও আবু রেজা মো. ইয়াহিয়া, ইভিপি মো. ইয়ানুর রহমান, ইভিপি এবং সিএফও মো. শহীদ উল্লাহ উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, ২০১৫ সাল থেকে ব্যাংকের বিভিন্ন পদে প্রমোশন ডিউ রয়েছে। এজন্য গত বছরই বেশ বিভিন্ন সময় অনেকগুলো পদেই ভাইভা নেওয়া হয়েছিল। এখন দেখার বিষয় যাদের ভাইভা নেওয়া হচ্ছে তাদের প্রমোশন ২০১৬ সালে জানুয়ারি নাকি চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে কার্যকর হবে সে বিষয়ে কিছু জানা যায়নি।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্রে জানা গেছে, মূলত গভর্নরের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতের জন্যই ইসলামী ব্যাংকের নতুন চেয়ারম্যান আরাস্তু খান বাংলাদেশ ব্যাংকের এসেছিলেন। তবে সৌজন্য সাক্ষাতের পাশাপাশি তিনি একান্তে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে গভর্নরের সঙ্গে আলাপ করেন। এ বিষয়ে আরাস্তু খান বলেন, গভর্নরের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতের জন্যই গিয়েছিলাম।

ইসলামী ব্যাংকের ব্যবস্থাপনায় বিরাট পরিবর্তনের পর শীর্ষ সারির কর্মকর্তাদের ক্ষেত্রেও ঘটেছে বৈপ্লবিক পরিবর্তন (রেডিক্যাল চেঞ্জ) এসেছে। এ পর্যায়ে কমপক্ষে ৩৫ কর্মকর্তার উইং, ডিভিশন, ডিপার্টমেন্ট বদল করা হয়েছে।

গত বৃহস্পতিবার ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মোহাম্মদ আব্দুল মান্নানকে সরিয়ে দেওয়া হয়। একই সঙ্গে পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মুস্তফা আনোয়ার এবং ভাইস চেয়ারম্যান মো. আজিজুল হককেও সরানো হয়। ব্যাংকটির নতুন চেয়ারম্যান হিসাবে নির্বাচিত করা হয় আরাস্তু খানকে। আর নতুন ভাইস চেয়ারম্যান হিসাবে অধ্যাপক সৈয়দ আহসানুল আলমকে নির্বাচিত করা হয়। পরে গত সোমবার নতুন এমডি হিসাবে যোগ দিয়েছেন মো. আব্দুল হামিদ মিঞা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here