৫ বছরের সর্বোচ্চ লেনদেন, ডিএসইতে ১৭শ’ কোটি টাকা

0
961

স্টাফ রিপোর্টার : দিনভর সূচকের ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় সপ্তাহের তৃতীয় কার্যদিবস মঙ্গলবার, ১০ জানুয়ারি দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) লেনদেন হয়েছে প্রায় ১৭শ’ কোটি টাকা। যা গত ৫ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ লেনদেন।

এর আগে ২০১১ সালের ২৮ জুলাই ডিএসইতে ১৮শ’ ৪ কোটি টাকার লেনদেন হয়। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) লেনদেন হয়েছে ১০৮ কোটি টাকা।

লেনদেনের পাশাপাশি উভয় বাজারে বেড়েছে সূচক, শেয়ারের দাম ও বাজার মূলধন। এর ফলে উভয় বাজারে টানা দুই কার্যদিবস ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় লেনদেন হলো। তবে তার আগের দিন অর্থাৎ সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার টানা ১০ কার্যদিবস সূচক বাড়ার পর মূল্য সংশোধন হয়েছিলো।

বাজার সংশ্লিষ্টরা বলছেন, সরকারের বিশেষ উদ্যোগের ফলে বাজারে নতুন ফান্ড আসছে। ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতায় পুঁজিবাজারে লেনদেন হচ্ছে।

ডিএসইর তথ্য মতে, সোমবার ডিএসইতে ৫১ কোটি ৩১ লাখ ৭ হাজার ৩৪৭টি সিকিউরিটিজের হাত বদল হয়েছে। টাকার অংকে লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৬৯৬ কোটি ৯৪ লাখ ২৯ হাজার টাকা। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিলো ১ হাজার ২৪৬ কোটি ৭৯ লাখ ১২ হাজার টাকা। তার আগের দিন লেনদেন হয়েছিলো ১ হাজার ৭৫ কোটি ১২ লাখ ২ হাজার টাকার।

এদিন তিন সূচকে পথচলা ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের কার্যদিবসের চেয়ে ৬২ দশমিক ৭৮ পয়েন্ট বেড়ে অবস্থান করছে ৫ হাজার ২৭৭ পয়েন্টে। পাশাপাশি ডিএস-৩০ সূচক ১৫ দশমিক ৫৪ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ৮৯৪ পয়েন্টে এবং ডিএসইএস শরীয়াহ সূচক ১০ পয়েন্ট বেড়ে ১ হাজার ২৪০ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

ডিএসইতে লেনদেন হওয়া সিকিউরিটিজের মধ্যে দাম বেড়েছে ২১৮টির, কমেছে ৭৫টির এবং আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৩৩টি কোম্পানির শেয়ার।

অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সার্বিক সূচক আগের কার্যদিবসের চেয়ে ১৩৩ দশমিক ৩৯ পয়েন্ট বেড়ে ৯ হাজার ৮৩৩ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে।

এদিন সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ১০৮ কোটি ৯৩ লাখ ২ হাজার ৬৫৬ টাকা। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিলো ৭৪ কোটি ৪৮ লাখ ৫ হাজার ২৭১ টাকা। তার আগের দিন লেনদেন হয়েছিলো ৫৮ কোটি ৯৬ লাখ ৩ হাজার ৩৬৯ টাকার।

লেনদেন হওয়া ২৬৯টি সিকিউরিটিজের মধ্যে দাম বেড়েছে ১৯২টির, কমেছে ৬০টির এবং ১৭টি কোম্পানির শেয়ারের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে।