শাশা ডেনিমসের আরো প্লান্টের অনুমোদন

0
869

স্টাফ রিপোর্টার : শাশা ডেনিমস লিমিটেডের সহযোগী প্রতিষ্ঠান নতুন বিদ্যুৎ প্লান্টের অনুমোদন পেয়েছে। সহযোগী কোম্পানি এনার্জিস পাওয়ারের উদ্যোগে গঠিত এক্সেল-ইপিসিএল কনসোর্টিয়াম নতুন করে আরও ১০০ মেগাওয়াটের একটি পাওয়ার প্লান্ট পেয়েছে।

গত সপ্তাহে দুটি প্লান্টের দরপত্র যাচাই করে এনার্জিস পাওয়ার ও ইউনাইটেড এন্টারপ্রাইজ নামের দুটি প্রতিষ্ঠানকে আর্থিকভাবে যোগ্য বলে বিবেচিত করে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড (বিপিডিবি)।

বিপিডিবি সূত্রে জানা গেছে, জামালপুর প্রকল্পে ইউনাইটেড এন্টারপ্রাইজ নামের একটি প্রতিষ্ঠানই আবেদন করে। আর শান্তাহার প্লান্টে মিডল্যান্ড পাওয়ার, এক্সেল-ইপিসিএল কনসোর্টিয়াম, জেন পাওয়ার কনসোর্টিয়াম ও বারাকা পতেঙ্গা পাওয়ার লিমিটেড আবেদন করে। এই কোম্পানিগুলোর মধ্যে এক্সেল-ইপিসিএল কনসোর্টিয়াম সর্বনিম্ম দরে বিদ্যুৎ সরবরাহ করার প্রস্তাব দিয়েছে। ফলে আর্থিকভাবে এ কোম্পানিটিই যোগ্য হয়েছে।

সূত্র মতে,এক্সেল-ইপিসিএল কনসোর্টিয়াম শান্তাহার বিদ্যুৎকেন্দ্রের জন্য প্রতি ইউনিট বিদ্যুৎ বিক্রির দর প্রস্তাব করেছে ১০ দশমিক ১০ সেন্ট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী মিডল্যান্ড পাওয়ার প্রস্তাব করেছে ১০ দশমিক ৪২ সেন্ট। আর জামালপুর প্রকল্পের জন্য ইউনাইটেড এন্টারপ্রাইজ প্রস্তাব করেছে ১১ দশমিক ৩১ সেন্ট।

এর আগে নতুন ১০টি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য ৪৪টি প্রতিষ্ঠান আবেদন করে। এর মধ্যে প্রাথমিকভাবে ৩১টি প্রতিষ্ঠানকে যোগ্য বলে বিবেচিত করে বিপিডিবি। তার মধ্য থেকে ২০০ মেগাওয়াটের জন্য যোগ্য হলো শাশা ডেনিমসের সহযোগী এই প্রতিষ্ঠান। বর্তমানে কোম্পানিটি ৫৫ মেগাওয়াটের বিদ্যুৎ উৎপাদনে রয়েছে।

বিপিডিবি সূত্রে জানা গেছে, বিভিন্ন কেন্দ্রে যারা সর্বনিম্ন দরদাতা হয়েছে, তারাই কেন্দ্রের বরাদ্দ পাবে। কোম্পানিগুলোকে ২০১৮ সালের মধ্যে বিদ্যুৎ উৎপাদনে যেতে হবে। বিপিডিবি তাদের কাছ থেকে বিদ্যুৎ কিনে জাতীয় গ্রিডে সরবরাহ করবে। প্রতিটি বিদ্যুৎকেন্দ্রের উৎপাদন ক্ষমতা হবে ১০০ মেগাওয়াট।