ড্রাগন সোয়েটারের ‘২০০ নতুন মেশিন আমদানী’, উৎপাদন বৃদ্ধি

0
2372

সিনিয়র রিপোর্টার : ড্রাগন সোয়েটার এন্ড স্পিনিং মিলস লিমিটেডের ‘উৎপাদন বেড়েছে। কোম্পানির আইপিও মাধ্যমে পাওয়া ৪০ কোটি টাকা দিয়ে চীন থেকে ২০০ নতুন মেশিন আমদানী হয়েছে।’ এসব কথা বলেন কোম্পাানি সেক্রেটারি শাহনেওয়াজ আহমেদ।

তিনি বলেন, আগের নির্দিষ্ট উৎপাদনের সঙ্গে সম্প্রতি নতুন ২০০ মেশিনের উৎপাদন যোগ হয়েছে। যে কারণে আমাদের ব্যবসার পরিধীও ‍অনেকে বেড়েছে। রপ্তানী নির্ভর কোম্পানি হওয়ায় আমাদের নতুন করে আরো অনেক বিষয় নিয়ে ভাবতে হচ্ছে।

বাংলাদেশে ‘সোয়েটার তৈরিতে পাইওনিয়ার’ ড্রাগন সোয়েটার এন্ড স্পিনিং মিলস লিমিটেড। রাজধানীর মালিবাগে চৌধুরী পাড়ায় কোম্পানির নিজস্ব ১৮ তলা ভবনে কোম্পাানি সেক্রেটারি কার্যালয়ে মঙ্গলবার বিকালে তিনি স্টক বাংলাদেশকে এসব কথা বলেন।

প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে কোম্পানিটি পুঁজিবাজার থেকে ৪০ কোটি টাকা সংগ্রহ করে। কোম্পানির সংগৃহিত ৪০ কোটি টাকা উৎপাদন বৃদ্ধি এবং মেশিন স্থাপনে ব্যবহার করা হয়েছে।

তবে মূল্য সংবেদনশীল তথ্য হওয়ায় নতুন কোন তথ্য দিতে অস্বীকৃতি জানান সেক্রেটারি।

একই সঙ্গে রপ্তানী সম্পর্কে জানতে চাইলে ‘তুলামূলক বেড়েছে’ বলেন কোম্পানির সিএফও আশিষ দে। সব ‘নোটিশের মাধ্যমে’ প্রকাশ করা হবে বলেন তিনি।

ড্রাগন সোয়েটার বাংলাদেশ লিমিটেড ও রুপালি ইন্সুরেন্স কোম্পানি লিমিটেডের চেয়ারম্যান মোস্তফা গোলাম কুদ্দুস এ প্রতিবেদককে মুঠোফোনে ‘এমন তথ্য প্রকাশে’ সম্মতি প্রকাশ করেননি।

উল্লেখ্য, কোম্পানিটি বছেরে ৬৫ লাখ ৭০ হাজার পাউন্ড সুতা ও ২১ লাখ ৬০ হাজার পিস সোয়েটার উত্পাদন করতে পারে। আন্তর্জাতিক মান নিয়ন্ত্রক সংস্থা (আইএসও) সনদপ্রাপ্ত হওয়ায় মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশসহ যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা, মেক্সিকো, ব্রাজিল, চিলি, অস্ট্রেলিয়া ও ইউরোপের কিছু দেশে সোয়েটার রফতানি করে ড্রাগন সোয়েটার।

পেছনের খবর : ড্রাগনের আরো একটি কোম্পানি ‘আইপিও পাইপলাইনে’

(আরো তথ্য জানতে অনুসন্ধান চলছে)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here