মোহাম্মদ তারেকুজ্জামান : বাংলাদেশে এই প্রথম জীবন বীমা শিল্পে আধুনিক তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে উদাহরণ সৃষ্টি করেছে ৪র্থ প্রজন্মের কোম্পানী-সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেড।

সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানীটি ২০১৩ সালে আগস্ট মাসে যাত্রা শুরু করে এ পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ১০ হাজার গ্রাহককে বীমার আওতায় এনেছে।

সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেড এর মূখ্য নির্বাহী কর্মকর্তা অজিত চন্দ্র আইচ স্টক বাংলাদেশকে তথ্যগুলো জানান।

অজিত চন্দ্র আইচ বলেন, উন্নত তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানী লিমিটেড গ্রাহকদের ঘরে বসে মোবাইল ফোন এর মাধ্যমে তার পলিসি সম্পর্কে জানার সুব্যবস্থা করে দিয়েছে।

ajitতিনি বলেন, অন্যান্য মাসের মতোই রমজান মাসেও সোনালী লাইফ এর কাজের ধারাবাহিকতা একইভাবে বজায় রয়েছে। সোনালী লাইফ এর সকল কর্মকর্তাবৃন্দ গ্রাহকদের পলিসি সংক্রান্ত সকল প্রকার সেবা প্রদান করে থাকেন। এছাড়াও যে সমস্ত গ্রাহক তাদের জমাকৃত প্রিমিয়ামের বিপরীতে বিভিন্ন ধরণের দাবীর আওতায় আসেন তাদের একমাস পূর্বে মোবাইল ফোনের ক্ষুদে বার্তার মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হয় এবং ঠিক নির্দিষ্ট তারিখে তার প্রাপ্য টাকা গ্রাহকের ব্যাংক একাউন্টে পৌঁছে যায়।

সোনালী লাইফ ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড গ্রাহকদের এই সেবা অব্যাহত রাখবে এবং সেই সাথে একদিন এই দেশের প্রতিটি মানুষ বীমা সেবার আওতায় আসবে। আর বীমা শিল্পে প্রথম সারির কোম্পানী হিসেবে সোনালী লাইফ প্রতিষ্ঠিত হবে এই আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন-অজিত চন্দ্র আইচ।

পরিশেষে তিনি সোনালী লাইফ এর সকল গ্রাহক ও শুভানুধ্যায়ীদের ঈদ শুভেছা জানিয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here