ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের জন্য বাজেটে বিশেষ কিছু রাখতে পারতো : ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারী

0
413

মোহাম্মদ তারেকুজ্জামান: মার্কেট প্রতিনিয়তই পড়ছে। রমজানের আগে পড়েছে। রমজানের মধ্যে আরও বেশি পড়ছে এবং রমজানের পরেও পড়বে। রমজান উপলক্ষ্যে কখনই পুঁজিবাজার ভালো হয়নি।

পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থাগুলোর মধ্যে কোন ঈমান নেই। ঈমান সরকারেরও নেই। যদি থাকতো তবে ২০১৬-১৭ অর্থবছরের বাজেটে ধ্বংসস্তুতে পরিণত হওয়া পুঁজিবাজারের জন্য বিশেষ প্রণোদনা দিতো।

শাহজালাল আহমেদ নামে এক ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারী স্টক বাংলাদেশকে এসব কথা বলেন।

DSC03724শাহজালাল আহমেদ বলেন, যে দেশের অর্থমন্ত্রী বলেন, পুঁজিবাজার ফটকাবাজদের আড্ডা খানা। খামাখা পুঁজিবাজার। সে দেশের পুঁজিবাজার কখনই ভালো হবে না। সত্যিকথা বলতে কি, সরকার নিজেই চায় না পুঁজিবাজার ভালো হোক। তার উৎকৃষ্ট উদাহরণ এবারের ঘোষিত বাজেট। সরকার চাইলেই আমাদের মতো ক্ষতিগ্রস্ত বিনিয়োগকারীদের জন্য বাজেটে বিশেষ কিছু রাখতে পারতো। কিন্তু রাখা হয়নি।

তিনি বলেন, প্রত্যেক হাউজ থেকে প্রায় প্রতিদিনই কমপক্ষে ৫০ জন বিনিয়োগকারীরা বিও একাউন্ট বন্ধ করে মার্কেট ত্যাগ করছেন। ২০১৭ সাল আসার আগেই কয়েক লাখ বিও একাউন্ট বন্ধ হয়ে যাবে।

তিনি আরও বলেন, এমনিতেই মার্কেটের অবস্থা ভালো না। তার ওপরে এ্যানুয়াল ফি ৩শ’ টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫শ’ টাকা করা হয়েছে। যেন মরার উপর খারার ঘা।

তাই ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারী হিসেবে সরকারের কাছে এই মূহুর্তে চাওয়া যেন এ্যানুয়াল ফি কমানো হয়। পাশাপাশি বুক বিল্ডিং ও মেথড সিস্টেমে বিনিয়োগকারীদের যেন কোঠা বাড়িয়ে দেয় কোম্পানিগুলো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here