পতন ঠেকানোর কৌশল

0
3340

মানুষ যারা মহা-পতনেও টিকে আছেন, তারাও যে খুব ভাল আছেন এমন নয়। নিজের অবস্থা দেখেই তাদের অবস্থা টের পাচ্ছি। ২০১০ এর বিনিয়োগে লাভের পরিমান ছিল ৮৫%, ২০১১ তে [মূলধন ও ২০১০ এর ৮৫% লাভ] বিনিয়োগে লস হল ৫০% আর ২০১২ এর মে পর্যন্ত ৫০% লস কমে ২০% এ দাড়িয়েছে।

অর্থাৎ মূলধন বাচাতে পারলেও বিগত আড়াই বছরে (জানুয়ারী ২০১০- মে ২০১২) সব মিলিয়ে লাভ মাত্র ৪৮% এর মত। অর্থাৎ ২০১১ ও ১২ তে কোন লাভতো হয়ই নি বরং ২০১০ এর ৮৫% লাভ এখন নেমে এসেছে ৪৮% এ !

সার্ভাইবালদের টিকে থাকার মূলেই রয়েছে পরিস্তির সাথে খাপ খাওয়ানো তথা সোজা বাংলায় অবস্থা বুঝে ব্যবস্থা নিতে পারার উপর। তাই ২০১১ এর শুরুতেই কিছু টেকটিকস ঠিক করেছিলাম, যা আজ আপনাদের সাথে শেয়ার করতে চাই। টেকটিকস গুলো আমাদের বাজারের বিচারে প্রুভেন বলতে পারেন। কারণ এগুলো ফলো করেই লস ৫০% থেকে ২০% এ নামিয়ে এনেছি।

২০১১ এ স্ট্রটেজি ছিল একটাই- ‘বাজার যত নিচেই নামুক লস দিয়ে কোন শেয়ার হাত ছাড়া করব না। স্টক/কেশ ডিভিডেন্ড আকারে যা-ই দিক সব গ্রহণ করব।’

২০১১ তে ডিভিডেন্ড নেয়ার বেশ কিছু শেয়ারের এভারেজ বাই ভ্যালু বেশ কমে আসে। এই রকম শেয়ারগুলতে ২০১১ তে নতুন করে ইনভেস্ট করায় ২০১২ এর শুরুতেই অনেকের চেয়ে সুবিধাজনক অবস্থায় চলে আসি।

২০১২ তে যা করেছি এবং করব :

১। ডিভিডেন্ড রেকর্ড ডেটের পূর্ব মুহূর্তে দাম বৃদ্ধির সুযোগে যে শেয়ার কিনলে লাভ বা কোন লোকসান হবেনা (ব্রেক ইভেন) এমন পরিস্থিতি পেলেই তা সেল করেছি।

২। যতটা সম্ভব কম লস (৫-১০%) দিয়ে তুলনামূলক খারাপ শেয়ের বেচে ভাল শেয়ার পোর্টফলিও তে যোগ করেছি।

৩। পোর্টফলিও তে থাকা বাকি শেয়ারগুলোর জন্য এ বছর ঘোষিত স্টক/কেশ ডিভিডেন্ড গ্রহণ করব। রেকর্ড ডেটের ২-৩ দিন পরেই স্টক ডিভিডেন্ডগুল বাজার দরে ছেরে দেব।

৪। ১ ও ৩ নং স্টেপ থেকে পাওয়া কেশ টাকায় আগামী আগস্ট-অক্টবরে ভাল কিছু স্টক বেশ কম দামে কিনব। ঐতিহ্য গত ভাবেই এই ডিভিডেন্ড ঘোষনা পরবর্তি সময়ে বাজার পরতির দিকে থাকে। তার সাথে যোগ হয় দুই ঈদের জন্য শেয়ার বিক্রির চাপ। আবার ২০১২ এর শুরু থেকেই দেখছি ১-২ সপ্তাহের জন্য বাজারে ছোট আকারের পতন ঘটতে (ইন্ডেক্স ২০০ থেকে ৫০০ পড়ে আবার মেকাম হচ্ছে)। তাই ‘ঝোপ বুঝে কোপ’ মানে কম দামে ভাল কিছু শেয়ার কিনব। আর ঈদ বোনাসের কিছু অংশও বাজারে ইনভেস্ট করব।

সবকিছু ঠিকভাবে করতে পারলেই ২০১১ ও ১২ এর খড়া কাটিয়ে ২০১৩ এর মার্চ-এপ্রিলেই নূন্যতম ২০% লাভ (এখনকার ২০% লস মেকাপ করেই ২০% লাভ) করা অসম্ভব কিছু হবে না ইনশাল্লাহ। ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারী যারা এখনও টিকে আছেন তারা আমার এই টেকনিকগুল ট্রাই করতে পারেন। আর নতুন করে কোন স্টক কেনার সময় অবশ্বই সর্বনিম্ন মূল্যের কাছা-কাছি দামে কিনুন। কারন নিম্ন-গতির বাজারে বিক্রীর সময় নয় কেনার সমই আপনাকে লাভ নিশ্চিত করতে হবে। (সংগৃহিত)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here