ভারতের পুঁজিবাজার সর্বনিম্ন অবস্থানে

0
250

ডেস্ক রিপোর্ট: রুপি বাতিলের সিদ্ধান্তে অর্থনীতিতে নেতিবাচক প্রভাব পড়ার আশঙ্কা ও বিদেশি ক্রেতারা মুখ ফিরিয়ে নেওয়ায় হেলে পড়ছে ভারতের পুঁজিবাজার। সাপ্তাহিক ছুটির পরদিন আজ সোমবার বোম্বে স্টক এক্সচেক্সে সেনসেক্স সূচক আরও প্রায় ১.৫ শতাংশ কমেছে। আর নিফটি পড়েছে প্রায় ২ শতাংশ।

দ্য হিন্দুর খবরে বলা হচ্ছে, গত ৬ মাসের মধ্যে ভারতের পুঁজিবাজার সোমবার সর্বনিম্ন পর্যায়ের কাছাকাছি অবস্থানে চলে গেছে। এদিন পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত প্রায় সব খাতই দরপতন লক্ষ্য করা যায়।

বেঞ্চমার্ক বিএসই ইনডেক্স ৩৮৫.১০ পয়েন্ট কমে ২৫ হাজার ৭৬৫ পয়েন্টে লেনদেন শেষ করে। গত ২৫ মে মাসে বাজারে এই পয়েন্ট ছিল ২৫ হাজার ৮০০ এর কিছু উপরে। বিএসইতে রিয়েলিটি খাতের সূচক কমেছে ৪.৭১ শতাংশ, মেটালে ৩.৩৪ শতাংশ, অটো খাতে কমেছে ৩.২৫ শতাংশ।

সবচেয়ে লুজারে থাকা কোম্পানিগুলোর মধ্যে এদিন স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার ৬.৫১ শতাংশ, পাওয়ার গ্রিডের ৩.৫৭ শতাংশ, টাটা স্টিলের ৩.৫২ শতাংশ, মারুতির ৩.৪৬ শতাংশ এবং এমএন্ডএমের দরপতন হয় ৩.১৬ শতাংশ।

খবরে বলা হয়, এ বছর বিদেশি ক্রেতাদের নিট শেয়ার ছিল ৫৪৩ কোটি ডলারের। কিন্তু সরকারের ৫০০ ও ১০০০ রুপি বাতিলে অর্থনৈতিক আশঙ্কার মুখে তাদের বিক্রির চাপ বেড়ে যায়। গত ১৭ নভেম্বর একদিনেই বিদেশিরা প্রায় ১৩ কোটি ডলার ছেড়ে দিয়েছে। এ নিয়ে চলতি মাসে তারা বিক্রি করেছে ১৩৩ কোটি ডলারের শেয়ার।