১৯টি কোম্পানির আর্থিক চিত্র সোমবার প্রকাশ

0
1899

স্টাফ রিপোর্টার : পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ১৯টি কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন সোমবার প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। বিস্তারিত নিচে প্রকাশ করা হলো-

ফার কেমিক্যালতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৭ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৩৫ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই,১৭ -মার্চ,১৮) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ২০ পয়সা। গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ৪৭ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৫ টাকা ৬ পয়সা।

সিনোবাংলা ইন্ডাস্ট্রিজতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬২ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৬০ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই,১৭ -মার্চ,১৮) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ২৫ পয়সা। গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ২১ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ২৬ টাকা ৪৭ পয়সা।

এ্যাপেক্স ফুডতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি’১৮-মার্চ’১৮) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫৮ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩৫ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৩৯ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৯৯ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১১ টাকা ৯২ পয়সা।

আরএন স্পিনিংতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৬ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৪০ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই,১৭ -মার্চ,১৮) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৫৫ পয়সা। গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ৩৪ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৮ টাকা ৩২ পয়সা।

সেন্ট্রাল ফার্মা: তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৪ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৩৩ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই,১৭ -মার্চ,১৮) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ২৯ পয়সা। গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ৯৯ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৫ টাকা ৫৫ পয়সা।

নাভানা সিএনজিপ্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) কোম্পানির সমন্বিত শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৮০ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৬২ পয়সা। সেই হিসাবে কোম্পানির ইপিএস বেড়েছে ১ টাকা ১৮ পয়সা বা ১৯০.৩২ শতাংশ।

আর ৯ মাসে (জুলাই,১৭ -মার্চ,১৮) কোম্পানিটির সমন্বিত ইপিএস হয়েছে ৩ টাকা ১ পয়সা। গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ৯৮ পয়সা। সেই হিসাবে ইপিএস বেড়েছে ১ টাকা ৩ পয়সা বা ৫২.০২ শতাংশ। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৩৭ টাকা ৭৬ পয়সা।

দেশ গার্মেন্টসতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ২৭ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ২ টাকা ১৯ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই,১৭ -মার্চ,১৮) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৪ টাকা ১৩  পয়সা। গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ৫ টাকা ৬৮ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে     ২০ টাকা ২৯ পয়সা।

এ্যাপেক্স স্পিনিংতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি’১৮-মার্চ’১৮) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮৮ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৭৬ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ১৯ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ২ টাকা শূন্য ১ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৫৪ টাকা ১৬ পয়সা।

ইনফর্মেশন টেকনলজিতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি’১৮-মার্চ’১৮) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৯ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩৪ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯৬ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৭৭ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৫ টাকা ৯৮ পয়সা।

আরডি ফুডতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি’১৮-মার্চ’১৮) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৮ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ২০ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫০ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৪১ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৫ টাকা ৭৩ পয়সা।

একমি ল্যাবরেটরিজতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি’১৮-মার্চ’১৮) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৮৫ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ১ টাকা ৮২ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫ টাকা ৬৬ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৫ টাকা ৪২ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৮২ টাকা ৩২ পয়সা।

সাফকো স্পিনিংতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি’১৮-মার্চ’১৮) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১১ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল শূন্য ৩ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৯ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ২০ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৮ টাকা ১৭ পয়সা।

জেনারেশন নেক্সট: তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৮ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১৬ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই,১৭ -মার্চ,১৮) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৭২ পয়সা। গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ৩৬ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে   ১২ টাকা ৩১ পয়সা।

স্যালভো কেমিক্যালতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৭ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১৭ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই ১৭ -মার্চ,১৮) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৬০ পয়সা। গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ৫৬ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১১ টাকা ৯৪ পয়সা।

স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি’১৮-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৮ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৮৬ পয়সা। আর ৯ মাসে (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫৪ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে লোকসান ছিল ১ টাকা ৫৮ পয়সা।

৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৪ টাকা শূন্য ৫ পয়সা।

প্রভাতি ইন্স্যুরেন্সপ্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫৮ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৫৬ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে  ১৭ টাকা ৪১ পয়সা।

প্রাইম টেক্সটাইল: তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৬ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ২৫ পয়সা। আর ৯ মাসে (জুলাই,১৭ -মার্চ,১৮) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৭৩ পয়সা। গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ৭২ পয়সা।

৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে   ৪৮ টাকা ৩৮ পয়সা।

ইফাদ অটোস: তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৯৫ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ৪৪ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই,১৭ -মার্চ,১৮) কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ৫ টাকা ৪০  পয়সা। গত বছরের একই সময়ে যা ছিল ৩ টাকা ৬১ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে    ৩৬ টাকা ৭৪ পয়সা।

ইমাম বাটনতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি’১৮-মার্চ’১৮) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৩৩ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে লোকসান ছিল ১৫ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ৮৫ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে লোকাসন ছিল ৭০ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৫ টাকা ৩৬ পয়সা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here