১৫০ থেকে ৩০০ কোটি মূলধন বাড়াবে ড্রাগন সোয়েটার

0
218

স্টাফ রিপোর্টার : অনুমোদিত মূলধন ১৫০ কোটি থেকে বাড়িয়ে ৩০০ কোটি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ড্রাগন সোয়েটার অ্যান্ড স্পিনিং লিমিটেডের পরিচালনা পর্ষদ। এজন্য তাদের শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদনের প্রয়োজন হবে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

শেয়ারহোল্ডারদের অনুমোদন নিতে ২ জুলাই বেলা ১১টায় রাজধানীর মালিবাগে অবস্থিত ইমপেরিয়াল কনভেনশন সেন্টারে বিশেষ সাধারণ সভা (ইজিএম) আয়োজন করবে প্রতিষ্ঠানটি। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ১৫ মে।

এদিকে চলতি হিসাব বছরের তৃতীয় (জানুয়ারি-মার্চ) প্রান্তিকে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬৬ পয়সা, আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১৬ পয়সা। ৩১ মার্চ কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়ায় ১৫ টাকা ৬২ পয়সায়।

প্রথম তিন প্রান্তিকে (জুলাই, ২০১৭-মার্চ, ২০১৮) ১ টাকা ৭৫ পয়সা ইপিএস দেখিয়েছে কোম্পানিটি। আগের বছর একই সময়ে তা ছিল ১ টাকা ৪ পয়সা।

৩০ জুন সমাপ্ত ২০১৭ হিসাব বছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে ১৫ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ দিয়েছে ড্রাগন সোয়েটারের পর্ষদ। এ সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস ১ টাকা ২৭ পয়সা ও এনএভিপিএস ১৫ টাকা ৯৪ পয়সায় দাঁড়িয়েছে।

এর আগে ২০১৬ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত ১৮ মাসে সমাপ্ত হিসাব বছরেও ১৫ শতাংশ স্টক লভ্যাংশ দেয় ড্রাগন সোয়েটার। সেবার জুন ক্লোজিংয়ের বাধ্যবাধকতায় ১৮ মাসে হিসাব বছর গণনা করেছে কোম্পানিটি। সে সময়ে এর ইপিএস হয় ২ টাকা ২৭ পয়সা।

ডিএসইতে সর্বশেষ ২১ টাকা ৭০ পয়সায় কোম্পানিটির শেয়ার হাতবদল হয়। গত এক বছরে এ শেয়ারের সর্বোচ্চ দর ছিল ২৪ টাকা ৬০ পয়সা ও সর্বনিম্ন ১৬ টাকা ৬০ পয়সা।

বোনাস শেয়ার সমন্বয়ের পর সর্বশেষ নিরীক্ষিত ইপিএস ও বাজারদরের ভিত্তিতে এ শেয়ারের মূল্য-আয় (পিই) অনুপাত ১৯ দশমিক ৮২, হালনাগাদ অনিরীক্ষিত মুনাফার ভিত্তিতে যা ৯ দশমিক ৮২।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here