৩৪ টি কোম্পানি বৃহস্পতিবার প্রতিবেদন প্রকাশ

0
1900

স্টাফ রিপোর্টার : পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ৩৪ টি কোম্পানির কর্তৃপক্ষ বোর্ড মিটিং শেষে বৃহস্পতিবার আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। কোম্পানিগুলোর বিস্তারিত নিচে প্রকাশ করা হলো-

এসিআই লিমিটেড তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) সমন্বিত শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯৬ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৩ টাকা ৪৪ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) সমন্বিত ইপিএস হয়েছে ৮ টাকা ৯৫ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ১৫ টাকা ১১ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির সমন্বিত শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ২২৬ টাকা ৮৩ পয়সা।

উসমানিয়া গ্লাসউসমানিয়া গ্লাস শীট ফ্যাক্টরি লিমিটেড নয় মাসের (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি লোকসান হয়েছে ১ টাকা ৪৯ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে লোকসান ছিল ৫ টাকা ৩১ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৭ টাকা ৬০ পয়সা।

লাফার্জহোলসিম : জানুয়ারি-মার্চ’১৮ প্রান্তিকে কোম্পানিটি শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) করেছে ২০ পয়সা। গত অর্থবছরে যা ছিলো ২৭ পয়সা।

৩১ মার্চ, ২০১৮ তারিখে কোম্পানির শেয়ার প্রতি নিট সম্পদ মূল্য (এনএভি) দাঁড়ায় ১৩ টাকা ৩৫ পয়সা। এই প্রান্তিকে শেয়ার প্রতি নগদ অর্থের প্রবাহ ছিল ৭৭ পয়সা।

জিপিএইচ ইস্পাত: তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) করেছে ৬৯ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল ৫০ পয়সা। কোম্পানি সূত্রে এই তথ্য জানা গেছে।

হিসাব বছরের প্রথম তিন প্রান্তিক (জুলাই’১৭-মার্চ১৮) মিলিয়ে ইপিএস হয়েছে এক টাকা ৫৮ পয়সা, যা আগের বছরের একই সময়ে ছিল এক টাকা ২৮ পয়সা। আর রিস্টেটেড ইপিএস ছিল এক টাকা ২২ পয়সা। সে হিসেবে তিন প্রান্তিকে ইপিএস বেড়েছে প্রায় ৩০ শতাংশ।

রহিম টেক্সটাইলতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩ টাকা ৪৩ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৭৬ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ৬ টাকা ৬৫ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৪ টাকা ৬৭ পয়সা।

৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৪১ টাকা ৭ পয়সা।

ফারইস্ট নিটিংতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৪ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৩৯ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ৯৭ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ১ টাকা ১৮ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৯ টাকা ৩৫ পয়সা।

নূরানী ডাইংতৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৫ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৩৩ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ১১ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৯৯ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১২ টাকা ৭১ পয়সা।

আজিজ পাইপসতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি’১৮-মার্চ’১৮) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৫ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল দশমিক শূন্য ৬ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ৬১ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩৭ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৫০ টাকা ৫৪ পয়সা (নেতিবাচক)।

ইউনিক হোটেল: তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫২ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৫৭ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৭৩ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ১ টাকা ৪৯ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৮৮ টাকা ৪০ পয়সা।

সামিট অ্যালায়েন্স পোর্টনয় মাসের (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। আলোচ্য সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৯ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৫০ পয়সা।

৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ২৪ টাকা ৪ পয়সা।

লিন্ডে বাংলাদেশপ্রথম প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৭ টাকা ৪৫ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১৬ টাকা ১৬ পয়সা।

৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে  ২৫৮ টাকা ৯৯ পয়সা।

শাহজিবাজার পাওয়ারতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) সমন্বিত শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৩৯ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ৬৬ পয়সা।

আর এককভাবে ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৬৪ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ৪৩ পয়সা। আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) সমন্বিত ইপিএস হয়েছে ৩ টাকা ৮৬ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৪ টাকা ৮৭ পয়সা।

আর এককভাবে ইপিএস হয়েছে ২ টাকা ৯০ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২ টাকা ৭০ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির সমন্বিত শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৩২ টাকা ৭১ পয়সা। আর এককভাবে এনএভি হয়েছে ২১ টাকা ৮৩

 সিভিও পেট্রোক্যামিকেলতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২৭ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে লোকসান ছিল ৯৫ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ১০ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে লোকসান ছিল ২ টাকা ২৯ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৪ টাকা ৩২ পয়সা।

 ইভেন্স টেক্সটাইলতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৪ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৩০ পয়সা। আর সমন্বিতভাবে ইপিএস হয়েছে ৩৯ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৩৩ পয়সা।

গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৯ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৯৩ পয়সা। আর সমন্বিতভাবে ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ২০ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ৪ পয়সা।

৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির সমন্বিত শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৪ টাকা ৫৯ পয়সা। আর এককভাবে হয়েছে ১৩ টাকা ৭২ পয়সা।

প্যাসিফিক ডেনিমস তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪৩ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ২৯ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই১৭-মার্চ১৮) ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ১৯ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ১৮ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৬ টাকা ৪৮ পয়সা।

আর্গন ডেনিমসতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯৩ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৯২ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ২ টাকা ৮৮ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ২ টাকা ৫৭ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ২৬ টাকা ৩৪ পয়সা।

সাইফ পাওয়ারটেকতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি’১৮-মার্চ’১৮) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬০ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৫৯ পয়সা।

আর ৯ মাসের (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৭৮ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ১ টাকা ৭৭ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৬ টাকা ৪৮ পয়সা।

সায়হাম টেক্সটাইলতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি’১৮-মার্চ’১৮) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৬ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩১ পয়সা।

আর ৯ মাসের (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৮৩ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৮৬ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ২৬ টাকা ৬০ পয়সা।

কাশেম ইন্ডাস্ট্রিতৃতীয় প্রান্তিকে (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১ টাকা ৪৫ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ১ টাকা ৫৫ পয়সা।

৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ৩৬ টাকা ২২ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩৭ টাকা ৭৪ পয়সা।

অ্যাডভেন্ট ফার্মাতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি’১৮-মার্চ’১৮) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৩ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ছিল যা ছিল ৩৩ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৯৮ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ছিল ১ টাকা ২৪ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১২ টাকা ৪৬ পয়সা।

এএফসি এগ্রো বায়োটিকতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি’১৮-মার্চ’১৮) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭২ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ছিল যা ছিল ৭৫ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ১৫ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ছিল ২ টাকা ১৪ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ১৬ টাকা ৭১ পয়সা।

ফু-ওয়াং সিরামিকতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৬ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১৪ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ৪৪ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৩৪ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১১ টাকা ৩৮ পয়সা।

অ্যাক্টিভ ফাইনতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ,১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৬৭ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৭১ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে  ২ টাকা ০১  পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২ টাকা ০৪ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ২১  টাকা ৫৭ পয়সা।

সায়হাম কটনতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২০ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ২৯ পয়সা। আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ৬৩ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৮৭ পয়সা।

৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ২২ টাকা ২৫ পয়সা।

আফতাব অটোতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) সমন্বিত শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৫৬ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ১৬ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) সমন্বিত ইপিএস হয়েছে ২ টাকা ২৪ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ২ টাকা ৫৮ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৬০ টাকা ৫৬ পয়সা।

মালেক স্পিনিং: তৃতীয় প্রান্তিকের (জানুয়ারি-মার্চ,১৮) শেয়ার প্রতি সমন্বিত আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৪ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২৭ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে  ৮৩  পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৮১ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে  ৪৫ টাকা ৩ পয়সা।

খান ব্রাদার্স তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮)শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২০ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ২৩ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ৬২ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৫৫ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১২ টাকা ৪৩ পয়সা।

মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ,১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৭ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৩৬ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ৯১ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৮৯ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে  ৪১ টাকা ৬২ পয়সা।

আমরা টেকনোলজিসতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি’১৮-মার্চ’১৮) কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৩৪ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ৬১ পয়সা।

আর ৯ মাসে (জুলাই’১৭-মার্চ’১৮) কোম্পানির ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ২৩ পয়সা। গত অর্থবছরের একই সময়ে ইপিএস ছিল ১ টাকা শূন্য ৯ পয়সা। ৩১ মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভিপিএস) হয়েছে ২২ টাকা ৮৫ পয়সা।

বিডি ল্যাম্পসবিডি ল্যাম্পসের তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭০ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৪৫ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ২ টাকা ৭ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ২৯ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৮৬ টাকা ৫৭ পয়সা।

এএমসিএল প্রাণতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ,১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ২০ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ২ টাকা ০৫ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ৫ টাকা ৯৬ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে ইপিএস ছিল ৫ টাকা ৭০ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৭৪ টাকা ৪৮ পয়সা।

বিডি ল্যাম্পস: তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭০ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৪৫ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ২ টাকা ৭ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ২৯ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৮৬ টাকা ৫৭ পয়সা।

ওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডওয়েস্টার্ন মেরিন শিপইয়ার্ডের ৯ মাসের (জুলাই,১৭-মার্চ’১৮) অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

আলোচ্য সময়ে শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ২ টাকা ১৪ পয়সা (রিস্টেটেড)। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ৪৬ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৩২ টাকা ৪৫ পয়সা।

ওয়াইম্যাক্স ইলেক্ট্রোডসতৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ’১৮) শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৪০ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৫৩ পয়সা।

আর গত ৯ মাসে (জুলাই, ১৭-মার্চ,১৮) ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ২৪ পয়সা। এর আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ১ টাকা ৫৭ পয়সা। ৩১ মার্চ শেষে কোম্পানির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৪ টাকা ৫৯ পয়সা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here