১০ টাকার শেয়ার ৩০টাকা

2
1299

স্টাফ রিপোর্টার : ভিএফএস থ্রেড ডাইংয়ের লেনদেন রোববার সকাল থেকে দেশের উভয় স্টক এক্সচেঞ্জে শুরু হয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) রোববার সকালে ৩৫ টাকায় শেয়ার প্রতি দেনদেন শুরু হয়। দিন শেষে তা ৩০.৭০ টাকায় স্থিতি হয়ে লেনদেন সম্পন্ন করে।

ডিএসই থেকে রোববারের চিত্র

ডিএসইতে কোম্পানিটির লেনদেন কোড ছিল ভিএফএসটিডিএল।

এদিকে সর্বশেষ সমাপ্ত ২০১৭-২০১৮ হিসাব বছরের প্রথম তিন প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে কোম্পানিটি। আইপিও-পরবর্তী শেয়ারসংখ্যার ভিত্তিতে প্রথম ৯ মাসে কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) দাঁড়িয়েছে ১ টাকা ১১ পয়সা। স্টক এক্সচেঞ্জ সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ,১৮) ভিএফএস থ্রেড ডায়িংয়ের নিট মুনাফা হয়েছে ৪ কোটি ৬০ লাখ ৭০ হাজার টাকা, আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৪ কোটি ৭০ লাখ ১০ হাজার টাকা। তৃতীয় প্রান্তিকে কোম্পানিটির আইপিও-পূর্ববর্তী শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ৭৩ পয়সা, আইপিও-পরবর্তী শেয়ারসংখ্যার ওপর ভিত্তি করে যা ৫৪ পয়সা।

এদিকে প্রথম ৯ মাসে (জুলাই,১৭-মার্চ,১৮) কোম্পানিটির নিট মুনাফা হয়েছে ৯ কোটি ৪০ লাখ ৫০ হাজার টাকা, আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৯ কোটি ৬৩ লাখ ৭০ হাজার টাকা। প্রথম তিন প্রান্তিকে আইপিও-পূর্ববর্তী ইপিএস হয়েছে ১ টাকা ৫০ পয়সা। আইপিওর পরে তা দাঁড়িয়েছে ১ টাকা ১১ পয়সা।

আইপিও-পরবর্তী শেয়ার সংখ্যার ওপর ভিত্তি করে গত ৩১ মার্চ কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়িয়েছে ১৮ টাকা ৪৪ পয়সা।

এর আগে গত এপ্রিলে ৬৩৮তম কমিশন সভায় ভিএফএস থ্রেড ডায়িং লিমিটেডকে স্থিরমূল্য পদ্ধতির প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে ২২ কোটি টাকা মূলধন উত্তোলনের অনুমতি দেয় পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি)। ২৪ জুন থেকে ২ জুলাই পর্যন্ত প্রাথমিক শেয়ার বরাদ্দের আবেদন ও চাঁদা গ্রহণ করে বস্ত্র খাতের কোম্পানিটি।

আইপিও অনুমোদনের পর বিএসইসি জানায়, কোম্পানিটি ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ২ কোটি ২০ লাখ শেয়ার ইস্যু করে ২২ কোটি টাকা মূলধন উত্তোলন করবে। এ অর্থে তারা প্লান্ট ও মেশিনারিজ ক্রয়, আংশিক ব্যাংক ঋণ পরিশোধ ও আইপিও প্রক্রিয়ার ব্যয় নির্বাহ করবে।

সম্পদ পুনর্মূল্যায়ন বাদ দিয়ে ২০১৭ সালের ৩০ জুন কোম্পানিটির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়ায় ১৯ টাকা ৯০ পয়সা। বার্ষিক শেয়ারপ্রতি আয়ের ভারিত গড় ২ টাকা ২ পয়সা।

কোম্পানিটির ইস্যু ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে রয়েছে সিটিজেন সিকিউরিটিজ অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড ও ফার্স্ট সিকিউরিটি ইসলামী  ক্যাপিটাল অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড।

২০১২ সালে বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করে ভিএফএস থ্রেড ডায়িং লিমিটেড। তারা মূলত রফতানিমুখী তৈরী পোশাক খাতের জন্য সেলাইর সুতা রং করে থাকে। কোম্পানিটির কারখানা গাজীপুরে আর নিবন্ধিত কার্যালয় রাজধানীর বারিধারা ডিওএইচএসে।

আইপিওর পর ১০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের এ কোম্পানির পরিশোধিত মূলধন দাঁড়িয়েছে ৮৪ কোটি ৭১ লাখ ৫০ হাজার টাকা। কোম্পানির মোট শেয়ারের ৩০ দশমিক ৯ শতাংশ এর উদ্যোক্তা পরিচালকদের কাছে, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী ১৬, বিদেশী ১৮ দশমিক ৩ এবং বাকি ৩৪ দশমিক ৮ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে।

2 COMMENTS

  1. VSF থ্রেড ডায়িং এর দশ টাকার শেয়ারের দাম ত্রিশ টাকা।কোম্পানির লক্ষন ভাল।ইউনাইটেড এয়ারের দশ টাকার শেয়ারের দাম মাত্র মাত্র মাত্র ৩.৩০টাকা। ৩.৩০টাকায় ইউনাইটেড এয়ারের মালিকানা পাওয়া যায়।এই কোম্পানি পুজিবাজারে অর্ন্তভূক্ত হয়ে বিনিয়োগকারিদের অর্থ শেষ করে ফেলেছে।বিভিন্ন পত্র পত্রিকায় এই কোম্পানির বিরস কাহিনীর অভাব নেই।বারংবার মূল্য সংবেদনশীল তথ্য প্রকাশ করছে এবং বলছে মূল্য সংবেদনশীল হওয়ায় আর কিছু বলা যাবে না।মুখ খুলতে রাজি না। বড় বড় বুলি আছে। Empathy বা সহমর্মিতা দরকার।এই কোম্পানির সহমর্মিতা নাই।নিজে বাচলে বাপের নাম।হের ল্যাইগা লাল সংকেত প্রকট (Dominant) অইছে।কোম্পানি বিনিয়োগকারিদের ম্যাইরা ফেল্যাইছে।তারপরও বড় বড় বুলি মারতাছে।হায়রে কোম্পানি দর্শন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here