ডিভিডেন্ডের ঝুড়ি নিয়ে আসছে হামিদ ফেব্রিক্স

6
9272

হোসাইন আকমল : টেক্সটাইল খাতের হামিদ ফেব্রিক্সের পরিচালনা পর্ষদের সভা মঙ্গলবার বিকেলে অনুষ্ঠিত হবে। সভায় কোম্পানির ৩০ জুন ২০১৪ সমাপ্ত বছরের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে বিভিন্ন তথ্য উপস্থাপন করবেন পরিচালকরা। একই সাথে পরিচালনা পর্ষদ বিনিয়োগকারীদের জন্য গতবারের তুলনায় ভালো ডিভিডেন্ড ঘোষণা করতে পারেন। কোম্পানির বিশেষ একটি সূত্র সোমবার দুপুরে স্টক বাংলাদেশকে এ তথ্য জানায়।

হামিদ ফেব্রিক্সের পরিচালনা পর্ষদের সভা সম্পর্কে সূত্রটি জানায়, ডিএসইতে নতুন তালিকাভূক্ত কোম্পানি হিসেবে এ কোম্পানির বিশেষ কদর রয়েছে। তাছাড়া, ঐতিহ্যগতভাবে মাহিন গ্রুপের কোম্পানিগুলোতে ভালো ডিভিডেন্ড দেয়া হয়। সে ক্ষেত্রে তুলনামূলক ভালো কিছু ঘোষণার সম্ভাবনা রয়েছে।

সূত্র আরো জানায়, ইতোমধ্যে ইন্ডেপেন্ডেন্ট ডিরেক্টররা একদফা বৈঠক করেছেন। আগামীকাল (মঙ্গলবার) বৈঠকে ভালো ডিভিডেন্ড বিষয়ে চূড়ান্ত ঘোষণা আসতে পারে।

উল্লেখ্য,২০১১ এবং ২০১২ সালে ১২ ও ২০ শতাংশ করে লভ্যাংশ প্রদান করে কোম্পানি। তবে ২০১৩ সালে লভ্যাংশ দেয়া হয়নি। কারণ, আইপিও পাওয়ার পরই লভ্যাংশ দেয়ার নিয়ম নেই। তবে ২০১৪ সালে আগের তুলনায় ভালো ডিভিডেন্ড আশা করা হচ্ছে।

Screenshot_1

এদিকে, ২০১৪-তে হামিদ ফেব্রিক্সের শেয়ারপ্রতি আয় বা ইপিএস ৫ টাকা ৫৮ পয়সা এবং ন্যাভ হয়েছে ৪৬ টাকা ৭৮ পয়সা।

eps

অন্যদিকে, গত ৩০ জুন ২০১৩ অর্থবছরে নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন অনুযায়ী  কোম্পানির শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস)  ৫ দশমিক ৩ টাকা এবং শেয়ারপ্রতি সম্পদ মূল্য (এনএভি) ৪১ দশমিক ১৪ টাকা। ২০১২ সালে ইপিএস ৩ টাকা ২৫ পয়সা এবং ন্যাভ ছিল ৩২ টাকা ১৫ পয়সা।

hamid-eps

হামিদ ফেব্রিক্সের ইপিএস এবং ন্যাভ বাড়ছে।

nav

হামিদ ফেব্রিক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল্লাহ আল-মাহমুদ বলেন, আমাদের চুড়ান্ত লক্ষ্য হলো, শেয়ারবাজারে তালিকাভুক্ত সেরা ৫টি কোম্পানির মধ্যে আমরা একটি হতে চাই। সেই লক্ষ্য নিয়েই হামিদ ফেব্রিক্স কাজ করে যাচ্ছে। সেই সাথে তিনি বলেন, বিশ্ববাজারে ফেব্রিক্সের  বড় বাজার রয়েছে। এই চাহিদার প্রেক্ষিতে বিশ্ববাজারে হামিদ ফেব্রিক্সের অংশগ্রহণ বাড়ানোর জন্য কোম্পানির উৎপাদনশলিতা বাড়ানো হচ্ছে। আর, এখান থেকে সংগৃহিত অর্থ নিয়ে ইয়াং ডাইং করা হচ্ছে। নৈতিকতা ও যোগ্যতা দিয়ে শেয়ার বাজারে এ সুনাম অক্ষুন্ন রাখতে চায় হামিদ ফেব্রিক্স। ভাল কিছু অজর্নের  লক্ষ্য রয়েছে বলে জানিয়েছেন হামিদ ফেব্রিক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল্লাহ আল-মাহমুদ।

কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালকের এমন কথার ভিত্তিতে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা ব্যাপক উৎসাহ পায়। এর ফলে, হামিদ ফেব্রিক্সের শেয়ারে বিনিয়োগকারীদের অংশগ্রহণ বাড়ছে।

এদিকে, কারওয়ানবাজারের দু’টি সিকিউরিটিজ হাউজে কথা বলে জানা গেছে, হামিদ ফেব্রিক্স মৌলভিত্তি সম্পন্ন একটি কোম্পানি। এর ব্যাকগ্রাউন্ড ভাল। এর শেয়ারে বিনিয়োগ অনেকাংশে ঝুঁকিমুক্ত। তাই বিনিয়োগকারীরা এর শেয়ারে উৎসাহ পাচ্ছেন বলে মনে করেন সিকিউরিটিজ হাউজগুলো।

6 COMMENTS

md.nazmul hoque শীর্ষক প্রকাশনায় মন্তব্য করুন Cancel reply

Please enter your comment!
Please enter your name here