হামিদ ফেব্রিকসের ‘ডিজিটাল’ আইপিও ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে

0
2291
সিনিয়র রিপোর্টার : প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে হামিদ ফেব্রিকস লিমিটেড নতুন “ডিজিটাল’ পদ্ধতিতে পুঁজিবাজার থেকে টাকা উত্তোলন করবে। আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে ২ অক্টোবর পর্যন্ত কোম্পানিটির আইপিওর আবেদনপত্র জমা দানের দিনক্ষণ নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের জন্য এই সুযোগ থাকবে ১১ অক্টোবর পর্যন্ত। মঙ্গলবার টেলিফোনে হামিদ ফেব্রিকস কোম্পানির সচিব দীন ইসলাম এ তথ্য জানান।
প্রাথমিক পর্যায়ে ‘পাইলট প্রকল্প’ হিসেবে নতুনে এই ডিজিটাল পদ্ধতিটি চালু করা হবে। এর সাফল্য এবং ব্যর্থতা পর্যালোচনা করে তবেই সব আইপিওর ক্ষেত্রে তা আগামীতে অন্য কোম্পানির ক্ষেত্রে তা কার্যকর হবে। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ‍বিশেষ একটি সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে ।
বিএসইসি জানায়,  বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) ৫২৪তম সভায় গত ১২ আগস্ট কোম্পানিটির প্রাথমিক গণ প্রস্তাবের (আইপিও) অনুমোদন দেয়। নতুন এ আইপিও পদ্ধতিতে বিনিয়োগকারীরা নির্ধারিত ব্যাংক শাখা অথবা নির্দিষ্ট স্টক ব্রোকার (ট্রেকহোল্ডার) বা মার্চেন্ট ব্যাংকের মাধ্যমে আবেদন জমা দিতে পারবেন বলে জানানো হয়েছে। এ কোম্পানির মাধ্যমেই শুরু হচ্ছে আইপিওর নতুন পদ্ধতি চালুর ‘পাইলট প্রকল্প’।

বিএসইসি সূত্রে জানা গেছে, আইপিওতে আসা কোম্পানিটি ৩ কোটি শেয়ার ইস্যু করবে। ১০ টাকা অভিহিত মূল্যের সাথে ২৫ টাকা প্রিমিয়ামসহ ৩৫ টাকা মূল্যে শেয়ার ছাড়বে কোম্পানিটি। ৩০ জুন ২০১৩ সমাপ্ত হিসাব বছরের নিরীক্ষিত হিসাবে শেয়ার প্রতি আয় ছিল ৫ টাকা ৩ পয়সা। আর শেয়ার প্রতি সম্পদ মূল্য বা এনএভি ছিল ৪১ টাকা ১৪ পয়সা।

কোম্পানিটির ইস্যু ম্যানেজার হিসেবে রয়েছে আইসিবি ক্যাপিটাল ম্যানেজমেন্ট লিমিটেড।

পেছনের খবর : হামিদ ফেব্রিকস দিয়ে শুরু হচ্ছে ‘ডিজিটাল’ আইপিও

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here