স্মল ক্যাপের ১০টি কোম্পানি তালিকাভুক্তির ঘোষণা

0
1277
বিএসইসি চেয়ারম্যান ড. এম. খায়রুল হোসেন

সিনিয়র রিপোর্টার : বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেন বলেন, স্মল ক্যাপ প্ল্যাটফর্মকে প্রাধান্য দিয়ে শিগগিরই কোম্পানি তালিকাভুক্ত হচ্ছে। বিএসইসি ইতিমধ্যে দশটি কোম্পানি প্লাটফর্মে তালিকাভুক্তি হওয়ার আগ্রহ প্রকাশ করেছে। আর আগামী মাসে একটি কোম্পানি প্লাটফর্মে তালিকাভুক্তির অনুমোদন দিতে যাচ্ছে বিএসইসি।

আগামী ২-৩ বছরের মধ্যে বাংলাদেশ ক্যাপিটাল মার্কেট নতুন উচ্চতায় পৌঁছাবে। সোমবার ডিএসই আয়োজিত ‘প্রমোটিং ডিএসই এসএমই এন্ড ভি-নেক্সট প্লাটফর্ম’ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

ডিএসই চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবুল হাসেমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি ওসামা তাসির। এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন বিএসইসির কমিশনার প্রফেসর হেলাল উদ্দিন নিজামী, মো. কামালুজ্জামান এবং ড. স্বপন কুমার বালা।

বিএসইসির চেয়ারম্যান বলেন, ভি-নেক্সট প্লাটফর্মের মাধ্যমে বিদেশি বিনিয়োগ আসবে। এ ক্ষেত্রে সংশ্লিষ্ট কোম্পানি দেশি ও বিদেশি বিনিয়োগকারীদের সহযোগিতায় এগিয়ে যাবে। তখন একটি কোম্পানি আন্তর্জাতিকভাবে মূল্যায়িত হবে। সেসব কোম্পানিকে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত করা সহজ হবে। এছাড়া বিদেশি বিনিয়োগকারীরা তালিকাভুক্ত করতে আগ্রহী হবে। কারণ তারাও চাইবে ক্যাপিটালের রিটার্ন। আর এ কাজটি সহজ করা হবে।

ভি-নেক্সটের মাধ্যমে চীন থেকে শুরু করে সব দেশ থেকেই বিনিয়োগ আসবে। একই সঙ্গে করপোরেট সংস্কৃতি আসবে। এছাড়া আমাদের দেশে চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট, কস্ট ম্যানেজমেন্ট অ্যাকাউন্টেন্ট, চার্টার্ড সেক্রটারিজসহ যেসব দক্ষ জনবল গড়ে উঠবে, তাতে করে ভবিষ্যৎ পুঁজিবাজার নিয়ে আমি আশাবাদী।

ডিএসই যে এসএমই বোর্ড তৈরি করেছে, এগুলোর কার্যক্রম আন্তর্জাতিক মানে পরিচালনা করে উদ্যোক্তাদের মধ্যে ছড়িয়ে দিতে হবে। ইস্যু ম্যানেজারদেরকেও তাদের কার্যক্রম আন্তর্জাতিক মানে পরিচালনা করতে হবে,’ যোগ করেন তিনি।

অনুষ্ঠানে বিএসইসি চেয়ারম্যান ড. এম খায়রুল হোসেন বলেন, দেশে এসএমই কোম্পানিগুলোর মধ্যে মাত্র ১৪  শতাংশ  ব্যাংক থেকে ঋণ গ্রহণ করতে পারে। আর বাকিদের মধ্যে অনেকেই জানে না কিভাবে ব্যাংক থেকে ঋণ গ্রহণ করতে হয়।এসএমই প্লাটফর্ম চালু হলে এসব কোম্পানি দীর্ঘমেয়াদে পুঁজিবাজার থেকে অর্থ সংগ্রহ করতে পারবে। এতে এসএমই খাতের উন্নতি হবে।

পরবর্তীতে কোম্পানিগুলো পুঁজিবাজারের মূল প্লাটফর্মে তালিকাভুক্ত হতে পারবে। বি নেক্সট ভি নেক্সট এর মাধ্যমে শুধু চাইনিজরা নয় সারা বিশ্ব থেকে বাংলাদেশ ইনভেস্ট করার আগে বাজার অ্যাক্সেস করতে পারবে বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ বাড়বে। আগামী কয়েক বছরের মধ্যে বাংলাদেশ বি বাংলাদেশের স্টক মার্কেটে বিভিন্ন প্রোডাক্ট চালু করে অন্য দেশগুলোর স্টক মার্কেটের সমকক্ষ হবে।

ঢাকা চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রি বিসিসিআই এর ভাইস প্রেসিডেন্ট ওয়াকার আহমেদ চৌধুরী বলেন, ডিএসই স্মল ক্যাপ প্লাটফর্ম উদ্বোধন পুঁজিবাজারের জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। শেষ দশকে বাংলাদেশের ৮ দশমিক ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি এই বাজার কে ভালোভাবে প্রতিষ্ঠা করবে বলে মনে করেন তিনি।

তিনি বলেন, আমাদের অনেক বেশি প্রকাশ করা উচিত বিকাশের জন্য কারণ আমাদের শেয়ার মার্কেট এখন একটা কাঠামোগত ভিত্তির উপর দাঁড় হচ্ছে চায়নার বড় দুই স্টক এক্সচেঞ্জ এখানে অংশীদার হয়েছে তাই আগামীতে প্রতিষ্ঠিত কোম্পানিগুলোকে পুঁজিবাজারে আনতে বড় ভূমিকা পালন করবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here