স্কয়ার ফার্মার সঙ্গে দুটি কোম্পানির চুক্তি

0
700

স্টাফ রিপোর্টার : পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত স্কয়িার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের সঙ্গে উৎপাদন বৃদ্ধিতে দুটি কোম্পানির সঙ্গে বৃহস্পতিবার এক চুক্তি সম্পাদন করা হয়েছে। কোম্পানি দুটি হলো- নাফকো ফার্মা লিমিটেড ও শরিফ ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড।

স্কয়ার কোম্পানির পর্ষদ সভায় চুক্তি করা হয়েছে বলে কোম্পানি বিশেষ একটি সূত্রে বৃহস্পতিবার এমন তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বিশেষ সূত্র রাতে জানায়, দেশে ও বিদেশে ওষুধের চাহিদা বাড়ায় এবং নতুন করে উৎপাদনের জন্য দুটি কোম্পানিকে সংযুক্ত করা হয়েছে। চুক্তি অনুসারে, কোম্পানি দুটি সাব কন্ট্রাক্টর হিসেবে নিজেদের প্লান্টে স্কয়ার ফার্মার জন্য ওষুধ উৎপাদন করবে। এক্ষেত্রে তাদের স্কয়ার ফার্মা নির্ধারিত মানদণ্ড অনুসরণ করতে হবে।

এর আগে চলতি বছরের শুরুর দিকে স্কয়ার ফার্মা জানায়, কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবিতে ওষুধ উৎপাদনের জন্য একটি সাবসিডিয়ারি কোম্পানি করতে যাচ্ছে তারা। বাংলাদেশ ব্যাংক এরই মধ্যে এজন্য প্রয়োজনীয় বিনিয়োগের অনুমতি দিয়েছে ওষুধ-রসায়ন খাতের তালিকাভুক্ত কোম্পানিটিকে। সে প্রকল্পের আনুমানিক ব্যয় ২ কোটি ডলার। এর মধ্যে ৮০ লাখ ডলার পরিশোধিত মূলধন হিসেবে দেবে স্কয়ার ফার্মা। ২০১৯ সালের জুনের মধ্যে নতুন প্রকল্পের কাজ শেষ হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

জুন ক্লোজিংয়ের বাধ্যবাধকতায় গেলবার ১৫ মাসে হিসাব বছর গণনা করেছে স্কয়ার ফার্মা। ৩০ জুন পর্যন্ত ১৫ মাসের জন্য ৪০ শতাংশ নগদ ও ১০ শতাংশ স্টক লভ্যাংশের ঘোষণা করেছে কোম্পানিটির পরিচালনা পর্ষদ। এ সময় কোম্পানিটির মুনাফা বেড়েছে।

২০১৫ সালের ১ এপ্রিল থেকে ২০১৬ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত ১৫ মাসে স্কয়ার ফার্মার শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১৪ টাকা ৮০ পয়সা। ২০১৪ সালের ১ জানুয়ারি থেকে ২০১৫ সালের ৩১ মার্চ পর্যন্ত ইপিএস ছিল ১০ টাকা ৪৬ পয়সা।

এদিকে চলতি হিসাব বছরের প্রথম তিন প্রান্তিকে (জুলাই-মার্চ) ১১ টাকা ৩৯ পয়সা ইপিএস দেখিয়েছে স্কয়ার ফার্মা, আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ৯ টাকা ৭৪ পয়সা। ৩১ মার্চ কোম্পানির শেয়ারপ্রতি নিট সম্পদমূল্য (এনএভিপিএস) দাঁড়ায় ৬৭ টাকা ৫১ পয়সা।

১৯৯৫ সালে শেয়ারবাজারে আসা কোম্পানির অনুমোদিত মূলধন ১ হাজার কোটি ও পরিশোধিত মূলধন ৬৮৫ কোটি ৯৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ৩ হাজার ১৬৬ কোটি ১১ লাখ টাকা। বর্তমানে কোম্পানির মোট শেয়ারের ৩৬ দশমিক ৩৪ শতাংশ এর উদ্যোক্তা-পরিচালকদের কাছে, প্রতিষ্ঠান ১২ দশমিক শূন্য ৭, বিদেশী ১৭ দশমিক ৩৬ ও বাকি ৩৪ দশমিক ২৩ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে।

ডিএসইতে সর্বশেষ ২৮৫ টাকা ১০ পয়সায় স্কয়ার ফার্মার শেয়ার হাতবদল হয়। গত এক বছরে শেয়ারটির সর্বোচ্চ দর ছিল ২৯২ টাকা ৫০ পয়সা ও সর্বনিম্ন ২৪২ টাকা ৫০ পয়সা।

সর্বশেষ নিরীক্ষিত মুনাফা ও বাজারদরের ভিত্তিতে বোনাস শেয়ার সমন্বয়ের পর স্কয়ার ফার্মা শেয়ারের মূল্য আয় (পিই) অনুপাত ১৮ দশমিক ২৫, হালনাগাদ অনিরীক্ষিত মুনাফার ভিত্তিতে যা ১৮ দশমিক ৭৭।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here