সিএসইর আয়োজনে চলছে ৫ম পুঁজিবাজার মেলা

0
957

স্টাফ রিপোর্টার : চট্টগামের জিইসি কনভেনশন হলে ৮ই অক্টোবর, বৃহস্পতিবার শুরু হয়েছে ৫ম বারের মতো পুঁজিবাজার মেলা। শেষ হবে ৯ই অক্টোবর। পুঁজিবাজার সম্পর্কিত তথ্য আদান প্রদানের লক্ষ্যে দু’দিনের মেলার আয়োজন করেছে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই)। সিএসইর চেয়ারম্যান ড. মো. আব্দুল মজিদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এন্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের (বিএসইসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. এম খায়রুল হোসেন মেলার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

বিএসইসির কমিশনার অধ্যাপক মো: হেলাল উদ্দিন নিজামী ও সেন্ট্রাল ডিপোজিটরি অব বাংলাদেশের (সিডিবিএল) চেয়ারম্যান শেখ কবির হোসেন অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত রয়েছেন।

সিএসইকে বিএসইসির পক্ষ থেকে  ধন্যবাদ জানিয়ে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ড. এম খায়রুল হোসেন বলেন, আজ সিএসইর ২০ বছর পূর্তি। এমন একটি দিনে মেলার আয়োজন করে তারা সত্যিই প্রসংশার দাবিদার। আমি আশা করছি, মেলার মাধ্যমে সাধারণ মানুষের মধ্যে পুঁজিবাজার বিষয়ে নতুন ধারণা তৈরি হবে।

মেলায় ড. আব্দুল মজিদ বলেন, সিএসইর ২০ বছর পূর্তিকে কয়েক গুণ বাড়িয়ে দিয়েছে এবারের মেলার উৎসব। ২০ বছর পূর্তিকে স্মরণীয় করে রাখতেই ব্যতিক্রমধর্মী কিছু আয়োজন রয়েছে মেলায়। তিনি বলেন, সবমিলে মেলা ফলপ্রসূ হবে বলে আমি আশা করছি।

উদ্বোধন অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ওয়ালি-উল-মারুফ মতিন। তিনি বলেন, ৫ম বারের মতো পুঁজিবাজার মেলার আয়োজন করতে পেরে আমরা আনন্দিত। আয়োজনটি পুঁজিবাজার সম্পর্কে সাধারণ মানুষকে নতুন নতুন ধারণা দিতে পারবে বলে আমরা আশা করছি।

মারূফ মতিন বলেন, সিএসই পুঁজিবাজার উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। সিএসই বুঝতে পারছে যে, সচেতনতেই বিনিয়োগকারীদের জন্য সবচেয়ে জরুরী। অর্থ বিনিয়োগে এর কোন বিকল্প নেই। বিষয়টি মাথায় রেখেই সাধারণ বিনিয়োগকারীদের সচেতন করে তুলতে সিএসই বদ্ধপরিকর।

তিনি আরো বলেন, সাধারণ বিনিয়োগকারীদের জন্য মেলায় প্রবেশ উন্মুক্ত রাখা হয়েছে। সচেতনতা অর্জনে সহায়তার জন্য আয়োজন করা হয়েছে বিভিন্ন সেমিনারের। বিনিয়োগকারীদের স্বত:স্ফূর্ত অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে র‌্যাফেল ড্র-এর মাধ্যমে পুরষ্কারের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

শেখ কবির হোসেন বলেন, পুঁজিবাজারের প্রতি এক সময় দেশের মানুষের আগ্রহ না থাকলেও ধীরে ধীরে তা বাড়ছে। মেলার মাধ্যমে সাধারণ বিনিয়োগকারীরা অনেক কিছু জানতে পারবে বলে আামি আশা করছি।

সিএসইকে ধন্যবাদ জানিয়ে হেলাল উদ্দিন নিজামী বলেন, ব্যাংকে আমানতের সুদের হার কমে আসছে। তাহলে বিনিয়োগকারীরা পুঁজিবাজারের দিকে ঝুঁকছেন না কেন? তিনি বলেন, মেলার মাধ্যমে বিনিয়োগকারীদের মধ্যে উৎসাহ উদ্দীপনার সৃষ্টি হবে বলে আমার বিশ্বাস।

মেলায় সাধারণ বিনিয়োগকারীদের জন্য আয়োজন করা হয়েছে- ‘এক্সচেঞ্জ ট্রেডেড ফান্ড, এ নিউ ইনভেস্টমেন্ট প্রোডাক্ট ইন বাংলাদেশ’, ‘পার্সোনাল পোর্টফোলিও ম্যানেজমেন্ট’, ‘অপরচুনিটিস অফ ইনিশিয়াল পাবলিক অফারিং’ এবং ‘ক্যাপিটাল মার্কেট রিফর্মস- রিসেন্ট, পাস্ট অ্যান্ড ফিউচার প্ল্যানস’ শীর্ষক ৪টি সেমিনারের।

প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত চলবে ৯৮ টি স্টলের এই মেলা। সিএসই, ট্রেক হোল্ডার, তালিকাভুক্ত কোম্পানির কর্মকর্তা মিলে ২০০ পুঁজিবাজার বিশেষজ্ঞের তত্বাবচধানে মেলা থেকে বিনিয়োগকারীরা বিভিন্ন প্রশ্নের সরাসরি উত্তর পাবেন।

গ্রীন ডেল্টা ইন্স্যুরেন্স, বিএসআরএম, বাংলাদেশ বিল্ডিং সিস্টেম, এস আলম গ্রুপ, সিভিও পেট্রোক্যামিকেল এবং ক্রাউন সিমেন্টের পৃষ্ঠপোষকতায় মেলায় অংশগ্রহণ করেছে ট্রেক হোল্ডার এবং তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলো।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here