সাড়া নেই ভ্যানগার্ডের আইপিওতে, আবেদন একতৃতীয়াংশ!

2
2888

স্টাফ রিপোর্টার : প্রাথমিক গণপ্রস্তাবের (আইপিও) মাধ্যমে সম্প্রতি পুঁজিবাজার থেকে টাকা উত্তোলন সম্পন্ন করেছে ভ্যানগার্ড এএমএল বিডি ফিন্যান্স মিউচুয়্যাল ফান্ড ওয়ান। প্রতিষ্ঠানে ৭০কোটি টাকার বিপরীতে মাত্র ২৪কোটি ৩২লাখ ২৫হাজার টাকার আবেদন জমা পড়েছে। যা কিনা মাত্র একতৃতীয়াংশ! অর্থাৎ, মাইনাস ২ দশমিক ৮৮ গুন (প্রায়)।

আইপিও বিষয়ে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) ওয়েবসাইটে সোমবার প্রকাশিত তথ্য-

Vanguard

সিএসইর দেয়া তথ্য অনুযায়ী, কোম্পানির আইপিওতে ৪৮হাজার ৬৪৫টি আবেদন জমা পড়েছে। সাধারণ, ক্ষতিগ্রস্ত, মিউচুয়্যাল ফান্ড ও প্রবাসী বাংলাদেশী মিলে এসব আবেদন জমা পড়ে।

এরমধ্যে-

সাধারণ বিনিয়োগকারী : ৪৮হাজার ৫৩৫টি আবেদন। টাকার অংঙ্কে যা ২৪কোটি ২৬লাখ ৭৫হাজারে দাঁড়িয়েছে।

ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র বিনিয়োগকারী : ৯৭টি আবেদন। টাকার অংঙ্কে যা ৪লাখ ৮৫হাজারে দাঁড়িয়েছে।

প্রবাসী বাংলাদেশী : ১৩টি আবেদন। টাকার অংঙ্কে যা ৬৫হাজারে দাঁড়িয়েছে।

মিউচুয়্যাল ফান্ড : মিউচুয়্যাল ফান্ডে কোন প্রকার আবেদন জমা পড়েনি।

চলতি মাসের ৮ তারিখ, রোববার থেকে শুরু করে ১২ তারিখ, বৃহস্পতিবার পযর্ন্ত ছিল ভ্যানগার্ডের আবেদনের সময়সীমা।

প্রিমিয়ামছাড়া ১০ টাকা অভিহিত মূল্যে ৭কোটি ইউনিট ছেড়েছিল প্রতিষ্ঠানটি। মার্কেট লট ৫০০ ইউনিটে। সেই হিসেবে বিনিয়োগকারীদের প্রতিটি লটের বিপরীতে ৫হাজার টাকা ব্যয় করতে হয়েছে।

বিএসইসির ৫৫৪তম সভায় প্রতিষ্ঠানের আইপিও অনুমোদন দেয়া হয়।

বিডি ফাইন্যান্স এন্ড ইনভেস্টমেন্ট কোম্পানি লিমিটেড ভ্যানগার্ড এএমএল বিডি ফিন্যান্স মিউচুয়্যাল ফান্ড ওয়ানের স্পন্সর। বাংলাদেশ জেনারেল ইন্স্যুরেন্স কোম্পানি লিমিটেড (বিজিআইসি) এর ট্রাস্টি হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে। ফান্ডের কাস্টডিয়ান (জিম্মাদার) হিসেবে রয়েছে ব্র্যাক ব্যাংক লিমিটেড।

(এ. হোসাইন/দৈনিক স্টক বাংলাদেশ)

2 COMMENTS

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here