সাপোর্ট এবং রেজিস্টেন্স

1
804

সাপোর্ট কি?

সাপোর্ট বলতে সেই মূল্যস্তরকে নির্দেশ করে যেখানে ক্রেতা একটি সুদৃঢ় অবস্থানে থেকে মূল্যের পতন রোধ করে। এর পেছনে যুক্তি হল, যখন শেয়ার মূল্য কমতে কমতে সাপোর্ট এর কাছে পৌছায় তখন শেয়ারটির মূল্য কম থাকে এবং এই জন্যই ক্রেতা শেয়ারটি কেনার জন্য আগ্রহী হয় এবং বিক্রেতা এত কম মূল্যে শেয়ার বিক্রি করতে চায় না। যখন মূল্য সাপোর্ট স্তরের কাছে যায় তখন সরবরাহর থেকে চাহিদা বেশি হয় এবং এই জন্যই মূল্য আর কমে না।

সাপোর্ট সবসময় মূল্যকে ধরে রাখতে পারে না এবং এই সাপোর্ট স্তর ভেঙ্গেও যেতে পারে যেটা বুল –এর উপরে বিয়ার এর জয় বুঝায়। সাপোর্ট এর নিচে মূল্য চলে গেলে, বিক্রেতা নতুন করে বিক্রি করতে চাইছে এবং ক্রেতারা ক্রয় করতে ইচ্ছুক নয়। সাপোর্ট ভাঙ্গার সাথে সাথে মূল্য একটা নতুন নিম্ন স্তর তৈরি করে যেখানে বিক্রেতারা তাদের আশা হারিয়ে ফেলে এবং এর থেকেও নিচু মূল্যে তারা বিক্রি করতে ইচ্ছুক। অন্যভাবে বললে, ক্রেতাদের কেনার মধ্যে নিগৃহীত হতে পারে না যতক্ষণ না মূল্য সাপোর্ট অথবা পূর্বের সর্বনিম্ন মূল্যের নিচে না যায়। একটা সাপোর্ট ভেঙ্গে যাবার পরে আরও নিচে নতুন একটি সাপোর্ট তৈরি হয়।

সাপোর্ট কোথায় তৈরি হয়?

সাপোর্ট স্তর সাধারনত বর্তমান মূল্যের নিচে অবস্থিত হয়, কিন্তু মাঝে মাঝে সাপোর্ট স্তর শেয়ার এর মূল্যে বা এর কাছাকাছিও থাকে। টেকনিক্যাল এনালাইসিস কন পুরোপুরি নির্ভুল বিজ্ঞান নয় আর এই জন্য মাঝে মাঝে সঠিক সাপোর্ট স্তর নির্ণয় করা কঠিন হয়ে দাড়ায়। কখনও কখনও মূল্য তীব্র সংশোধন হলে তা সাপোর্ট স্তরের নিচে চলে যেতে পারে। কখনও কখনও মূল্য সাপোর্ট এর ১/৮ এর নিচে চলে গেলে সেটাকে সাপোর্ট স্তরের ভেঙ্গে যাওয়া হিসেবে ধরা উছিত নয়। এই কারনে, কিছু ট্রেডার এবং ইনভেস্টর সাপোর্ট গঠন ব্যবহার করে।

 রেসিস্টেন্স কি?

রেজিস্টেন্স হচ্ছে সেই মূল্যস্তর যেখানে বিক্রেতা সুদৃঢ় অবস্থানে থেকে মূল্যের উর্ধ্বগতিকে ধরে রাখে। এর পেছনে যুক্তি হচ্ছে, মূল্য রেসিস্টেন্স এর দিকে যত কাছে আসবে ততই বিক্রেতাদের বিক্রি করার প্রবনতা বাড়বে এবং ক্রেতাদের ক্রয় করার আগ্রহ কমবে। যখন মূল্য রেসিস্টেন্স স্তরে যায় তখন সাধারনত চাহিদার থেকে সরবরাহ বেড়ে যায় এবং এই কারনেমূল্য রেসিস্টেন্স কে ভেঙ্গে যেতে ব্যর্থ হয়।

 রেসিস্টেন্স কোথায় তৈরি হয়?

রেসিস্টেন্স স্তর সাধারনত বর্তমান মূল্যের উপরে থাকে, কিন্তু কখনও কখনও রেসিস্টেন্স বর্তমান মূল্যের সাথে কিংবা এর কাছাকাছি হতে পারে। উপরন্তু, মূল্যের উঠানামা এতই তীব্র হতে পারে যে সেটা রেসিস্টেন্সকে ভেঙ্গে ফেলতে পারে। কখনও যদি মূল্য রেরিস্টেন্স এর ১/৮ এর সমান উপরে উঠে যায়, সেক্ষেত্রে এটাকে রেসিস্টেন্স স্তর ভেঙ্গে যাওয়া ধরে নেয়া উচিত নয়। এই কারনে অনেক ট্রেডার এবং ইনভেস্টররা রেসিস্টেন্স স্তর তৈরি করে ব্যবহার করে থাকে।

1 COMMENT

  1. ভাল লিখেছেন তবে আরো ভাল হত যদি রেসিস্টেন ক্যান্ডলস্টিক দিয়ে কিভাবে ভেড় করতে হয় সেটা যদি গ্রাফ একে দেখিয়ে দেওয়া যেত।আশা করি আগামীতে এভাবেই দেওয়ার চেস্টা করবেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here