সাইফ পাওয়ার নতুন সম্ভাবনার পথে, ইপিএস দ্বিগুণ

4
22425

সিনিয়র রিপোর্টার : সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেডের প্রথম নয় মাসে বিক্রয় ও মুনাফা বেড়েছে। আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ৪৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ বেড়েছে। আর আমদানি করা পণ্য থেকে এ সময়ে তাদের আয় প্রবৃদ্ধি হয়েছে ৪৬ দশমিক ৭১ শতাংশ।

প্রথম তিন প্রান্তিকে কোম্পানিটির বিক্রি ৪০ শতাংশ এবং নিট মুনাফা ৭৫ শতাংশ বেড়েছে। নতুন করে রাইট শেয়ারের ৩২৪ কোটি টাকা উত্তোলন করে ব্যবসা বৃদ্ধির কাজে ব্যবহার করায় আরো সম্ভাবনার তৈরি হয়েছে। এতে বাড়বে মুনাফা এবং সমৃদ্ধি।

চলতি হিসাব বছরের তৃতীয়ার্ধে (জুলাই-মার্চ) ইপিএস প্রায় দ্বিগুণ বেড়ে হয়েছে ৪ টাকা ৫২ পয়সা। আগের বছর একই সময়ে যা ছিল ২ টাকা ৫৭ পয়সা। ৩১ মার্চ পুনর্মূল্যায়নসহ কোম্পানির এনএভিপিএস ছিল ২২ টাকা ৪১ পয়সা। নতুন করে আরো বৃদ্ধির অধিক সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে।

চলতি হিসাব বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ) কোম্পানিটির বিক্রি ৩৪ দশমিক ৩২ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ৭৩ কোটি ২০ লাখ টাকা। এ সময়ে গ্রস মুনাফা ৪৮ দশমিক ৫৭ শতাংশ এবং পরিচালন মুনাফা ৫৯ দশমিক ৯৭ শতাংশ বেড়েছে।

হিসাব বছরের তৃতীয় প্রান্তিকে সাইফ পাওয়ারটেকের নিট মুনাফা হয়েছে ১৭ কোটি ৬৩ লাখ টাকা। আগের বছরের একই সময়ে নিট মুনাফা ছিল ১০ কোটি ১৩ লাখ টাকা। অর্থাত্ এক বছরের ব্যবধানে কোম্পানির নিট মুনাফা ৭ কোটি ৪৯ লাখ টাকা বা ৭৪ শতাংশ বেড়েছে।

২০১৪ সালে পুঁজিবাজারে আসা সাইফ পাওয়ারটেকের অনুমোদিত মূলধন ৫০০ কোটি ও পরিশোধিত মূলধন ২৩২ কোটি ৫৯ লাখ ১০ হাজার টাকা। রিজার্ভ ৫৪ কোটি ৪৯ লাখ টাকা। কোম্পানির মোট শেয়ারের ৪০ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ এর উদ্যোক্তা-পরিচালকদের কাছে, প্রতিষ্ঠান ১৫ দশমিক শূন্য ৯ ও বাকি ৪৪ দশমিক ৮৫ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে।

চলতি ২০১৬-১৭ হিসাব বছরের জুলাই থেকে মার্চ পর্যন্ত নয় মাসের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনায় দেখা যায়, এ সময়ে কোম্পানির বিক্রি ৬৪ কোটি ৬৯ লাখ টাকা বা ৪০ শতাংশ বেড়ে ২২৬ কোটি টাকায় দাঁড়িয়েছে। এর মধ্যে নতুন কার্যাদেশ ৪৯ কোটি ৭৩ লাখ টাকা বা ৪৭ দশমিক ৭৭ শতাংশ বেড়ে ১৫৩ কোটি ৮৪ লাখ টাকা হয়েছে। আর আমদানি করা পণ্য থেকে আয় ১২ কোটি ৫০ লাখ টাকা বা ৪৬ দশমিক ৭১ শতাংশ বেড়ে ৩৯ কোটি ২৬ লাখ টাকায় দাঁড়িয়েছে।

নতুন কার্যাদেশ ও আমদানি করা পণ্য থেকে আয় বাড়ার কারণে হিসাব বছরের প্রথম নয় মাসে কোম্পানির গ্রস বা মোট মুনাফা আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ৪৩ কোটি টাকা বা ৫২ দশমিক ৮৩ শতাংশ বেড়ে ১২৪ কোটি ৪০ লাখ টাকা হয়েছে। পরিচালন মুনাফা আগের তুলনায় ৪১ কোটি ২৩ লাখ টাকা বা ৬৩ দশমিক ৫০ শতাংশ বেড়ে ১০৬ কোটি ১৭ লাখ টাকায় দাঁড়িয়েছে।

আর্থিক ব্যয়, শ্রমিক তহবিল এবং কর পরিশোধের পর হিসাব বছরের জুলাই থেকে মার্চ পর্যন্ত কোম্পানিটির ৫২ কোটি ৫৬ লাখ টাকা নিট মুনাফা হয়েছে। আগের বছরের একই সময়ে নিট মুনাফা হয়েছিল ৩০ কোটি টাকা। অর্থাত্ এক বছরের ব্যবধানে নিট মুনাফা বেড়েছে ২২ কোটি ৭১ লাখ টাকা বা ৭৫ দশমিক ৬৫ শতাংশ।

4 COMMENTS

  1. ভাল শেয়ার আজ কাল কেহ কিনে না। আমরা সবাই লাগাম হীন ঘোড়ার পেচনে দৌড়াই ।যার ফলসুতি ৮৫ ভাগ ব্যবসায়ী নিশ্য । আমাদের চিন্তা চেতনা যত দিন বদলাবে না তত দিন পূজি পতিরা আমাদেরকে ঠগাবে ।

Mohammad Alkas Mollah শীর্ষক প্রকাশনায় মন্তব্য করুন Cancel reply

Please enter your comment!
Please enter your name here