মিউচ্যুয়াল ফান্ডসহ ২৬ কোম্পানির সম্ভবনা

0
944

বিশেষ প্রতিনিধি : নতুন সরকার গঠনের পর থেকেই পুজিবাজার অনেকটা স্থির। বিনিয়োগকারীদের মনেও শঙ্কা খুবই কম। কেননা বাজার ভালো থাকায় তাদের বিনিয়োগকৃত অর্থের নিরাপত্তার কথা ভাবতে হচ্ছে না। তবে বাজার সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন, স্বস্থির বাজারে টেক্সটাইল, পাওয়ার ও আর্থিকখাত বেশ ভালো করতে পারে। কেননা এসব কোম্পানির বাজার পিই কম ও বিগত দিনে কোম্পানিগুলোর বেশ গুণগত পরিবর্তন এসেছে।

এর মধ্যে টেক্সটাইল খাতে ২টি,  পাওয়ার ২ টি ও ব্যাংকিং ৪ টি ও মিউচ্রুয়াল ফান্ডখাতের কিছুসহ ২৬ টির পিই কম রয়েছে। যে কারণে সম্ভাবনার আলো ছড়াচ্ছে এসব কোম্পানি ও ফান্ড থেকে।

কেননা বর্তমান এই খাতের ১০ এর নিচে প্রাইস আর্নিং রেশিও আছে মাত্র ৮টি কোম্পানির। এসব কোম্পানির সম্ভবনা রয়েছে। এর মধ্যে আরো রয়েছে ৪টি ব্যাংক, দুটি টেক্সটাইল ও বাকী দুটি পাওয়ার খাতের। তবে, টেক্সটাইল দুটি’র প্রাইস আর্নিং রেশিও নিয়ে প্রশ্ন আছে। কেননা, একই গ্রুপে এই দুটি কোম্পানির আর্থিক প্রতিবেদন নিয়ে বিভিন্ন সময়ে প্রশ্ন দেখা দিলেও ভালো করার সম্ভবনাই বেশি।

বাজার পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, গত এক মাস ধরে বাজার অনেক ইতিবাচক।পুঁজিবাজারে বেশিরভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম কিছুটা বেড়েছে। যে কারণে প্রাইস আর্নিং রেশিও বেড়েছে অধিকাংশ কোম্পানির। গত বছরের আগষ্টে ১৫টি কোম্পানির প্রাইস আর্নিং রেশিও ১০ এর নিচে ছিল। তবে, সে সময়ে মাত্র ৫টি মিউচ্যুয়াল ফান্ডের পিই রেশিও থাকলেও এই মুহুর্তে অন্তত ১৮টি ফান্ডের পিই রেশিও ১০ এর নিচে আছে। মোট ২৩ টি ফান্ডের সম্ভবনা রয়েছে।

তালিকা হিসেবে নীচে দেয়া হলো- ১ম জনতা মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই ৮.৬৩, ২য় আইসিবি মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই ৪.৪৩, তৃতীয় আইসিবি মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই ৬.২৭, ৪র্থ আইসিবি মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই ৫.৭৬, ৬ষ্ঠ আইসিবি মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই৩.৮৫, আইসিবি ১ম এনআরবি মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই ৪.৪৩, আইসিবি ২য় এনআরবি মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই ৫.৭৫, আইসিবি ৩য় এনআরবি মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই ৯.৮৩ রয়েছে।

তালিকায় আরো রয়েছে- আইসিবি এমএমসি এল ২য় মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই ৬.৫৪, আইসিবি ইসলামিক মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই ৫.৫৩, আইসিবি সোনালী ১ম  মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই ৪.৩৯, আইএফআইএল ফাষ্ট মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই ৫.৬১, এআইবিএল প্রথম  মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই ৬.২৯, এইমচ মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই ৯.৪, এলআরগ্লোবাল ৫.০১, প্রাইম ফাইন্যান্স ১ম মিউচ্যুয়াল ফান্ড পিই ৭.২৭, প্রাইম ব্যাংক ১ম আইসিবিএমসিএল মিউচুয়্যাল ফান্ডের পিই ৮.৫৫ ও রিলায়েন্স ওয়ান পিই ৫.৩২ দেখা গেছে।

ব্যাংকের তালিকায় রয়েছে আল-আরাফা পিই ৯.৬৫, ব্রাক ব্যাংক পিই ৮.৫, আইএফআইসি ব্যাংক পিই ৮.৩১, সাউথইষ্ট ব্যাংক পিই ৮.৭৫ রয়েছে। টেক্সটাইলখাতে ফ্যামিলি টেক্স পিই ৭.৭২, আরএন পিই ৫.৭৩। পাওয়ার খাতে- কেপিসিএল পিই ৯.৭১ ও তিতাস গ্যাসের পিই রয়েছে ৯.৭৬।

পরিসংখ্যানে আরো দেখা গেছে, গত এক মাসে সবচেয়ে বেশী দাম বেড়েছে টেক্সটাইল, প্রকৌশল, ট্যানারী, পাওয়ার এবং সিমেন্ট খাতের। তবে মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মত বীমা খাতের অনেক শেয়ারের দাম স্থির। শুধু প্রাইস আনিং রেশিও দিয়ে কোন কোম্পানিতে বিনিয়োগ করা যায় না।

তবে বাজার সংশ্লিষ্ট মনে করেন, উঠতি বাজারে প্রাইস আর্নিং রেশিও একটি বড় ফ্যাক্টর। কেননা, যে কোম্পানিটির পিই রেশিও কম, সেটির দাম বাড়েনি। তাই যে কোন মুহুর্তে দাম বাড়তে পারে বলেও তারা মন্তব্য করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here