সপ্তাহজুড়ে উভয় পুঁজিবাজারে বেড়েছে সূচক ও লেনদেন

0
422
সপ্তাহজুড়ে উভয় স্টকে বেড়েছে সূচক ও লেনদেন

  স্টাফ রিপোর্টার :  ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) গত সপ্তাহজুড়ে সূচক ও লেনদেন বেড়েছে। গত সপ্তাহে ডিএসইর সাধারণ সূচক বেড়েছে ১৪২ দশমিক ১৬ পয়েন্ট। লেনদেন বেড়েছে ৬১ দশমিক ২০ শতাংশ।

অপরদিকে  সিএসই’র সূচক বেড়েছে ২৬ পয়েন্ট। গত সপ্তাহে সিএসইতে লেনদেন বেড়েছে ৯৬ কোটি ৪০ লাখ ৩৯ হাজার ৬৭২ টাকা। গত সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার ডিএসইর সাধারণ সূচক ছিল ৪ হাজার ৫৪২ দশমিক ৩২ পয়েন্ট। সপ্তাহ শেষে বৃহস্পতিবার সূচক বেড়ে দাঁড়ায় ৪ হাজার ৬৪৮ দশমিক ৪৮ পয়েন্টে। অর্থাৎ এক সপ্তাহের ব্যবধানে সূচক বেড়েছে ১৪২ দশমিক ১৬ পয়েন্ট বা ৩ দশমিক ১৩ শতাংশ। ডিএসই ও সিএসই’র ওয়েবসাইট সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।

অন্যদিকে, ডিএসইএক্স সূচক বেড়েছে ৭ দশমিক ৪৯ পয়েন্ট এবং ডিএসই-৩০ সূচক বেড়েছে ২৫ দশমিক ৪১ পয়েন্ট।

এদিকে, গত সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার সিএসইর সাধারণ সূচক ছিল ৮ হাজার ৩৮৩ পয়েন্ট। সপ্তাহ শেষে বৃহস্পতিবার সূচক বেড়ে দাঁড়ায় ৮ হাজার ৪০৯ পয়েন্টে। অর্থাৎ এক সপ্তাহের ব্যবধানে সূচক বেড়েছে ২৬ পয়েন্ট বা ০ দশমিক ৩০ শতাংশ।

গত সপ্তাহের অধিকাংশ কার্যদিবসেই ডিএসই ও সিএসই’র সূচক বেড়েছে। এছাড়া বেড়েছে লেনদেন হওয়া বেশিরভাগ শেয়ার ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের ইউনিটের দাম।

গত সপ্তাহে ডিএসইতে মোট লেনদেন বেড়েছে ৬১ দশমিক ২০ শতাংশ। লেনদেন হয়েছে মোট ৪ হাজার ৯১৫ কোটি ২৬ লাখ ৬৩ হাজার ৪০৭ কোটি টাকা। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হয়েছিল ৩ হাজার ৪৯ কোটি ১৪ লাখ ৭৩ হাজার ৩৫৭ কোটি।

গত সপ্তাহের ৫ কার্যদিবসে ডিএসইর ২৯৬টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৯৫টির, কমেছে ১৯৩টির ও অপরিবর্তিত ছিল ৬টির দাম। লেনদেন হয়নি ২টি প্রতিষ্ঠানের। এর আগের সপ্তাহে লেনদেন হওয়া প্রতিষ্ঠাগুলোর মধ্যে দাম বেড়েছিল মাত্র ২২৬টির, কমেছিল ৬০টির ও অপরিবর্তিত ছিল ৮টির দাম। লেনদেন হয়নি ২টি প্রতিষ্ঠানের।

এদিকে মোট পাঁচ কার্যদিবসের ডিএসই’র দৈনিক গড় লেনদেন বেড়েছে। গত সপ্তাহে দৈনিক গড় লেনদেন দাঁড়ায় ৯৮৩ কোটি ৫ লাখ ৩২ হাজার ৬৮১ টাকা। এর আগের সপ্তাহে গড় ছিল ৭৬২ কোটি ২৮ লাখ ৬৮ হাজার ৩৩৯ টাকা। অর্থাৎ গত সপ্তাহে আগের সপ্তাহের চেয়ে গড় লেনদেন বেড়েছে ২৮ দশমিক ৯৬ শতাংশ।

এছাড়া ডিএসইতে বেড়েছে শেয়ার লেনদেনের পরিমাণ। গত সপ্তাহে ডিএসইতে মোট ৯৩ কোটি ৭৫ লাখ ৫৬ হাজার ৬৫৯টি শেয়ার হাতবদল হয়েছে। যেখানে গত সপ্তাহের আগের সপ্তাহে শেয়ার হাতবদলের পরিমাণ ছিল ৫৯ কোটি ৪০ লাখ ৩১ হাজার ২৫২টি। সুতরাং গত সপ্তাহে শেয়ার লেনদেন বেড়েছে ৫৭ দশমিক ৮৩ শতাংশ।
সাপ্তাহিক দাম বাড়ার ভিত্তিতে ডিএসইর শীর্ষ দশ কোম্পানি হলো- জেএমআই সিরিঞ্জ (৬০ দশমিক ৮৪ শতাংশ), ন্যাশনাল টিউবস (৪৮ দশমিক ১৬ শতাংশ), পদ্মা অয়েল (৩৩ দশমিক ৭৭ শতাংশ), কোহিনূর কেমিক্যাল (৩৩ দশমিক ৭১ শতাংশ), উসমানিয়া গ্লাস (৩১ দশমিক ১৭ শতাংশ), রেনউইক যজ্ঞেশ্বর (২৯ দশমিক ২২ শতাংশ), ইস্টার্ন কেবলস (২৭ দশমিক ৬২ শতাংশ), সিভিও পেট্রোকেমিক্যাল (২০ দশমিক ৭১ শতাংশ), বাংলাদেশ ল্যাম্পস (২০ দশমিক ৪৮ শতাংশ) এবং বঙ্গজ (১৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ)।

অন্যদিকে সপ্তাহ শেষে দাম কমার ভিত্তিতে ডিএসইর শীর্ষ কোম্পানিগুলো হলো- ফ্যামিলি টেক্স (২০ দশমিক ৭২ শতাংশ), ইমাম বাটন (১৮ দশমিক ২৯ শতাংশ), বিকন ফার্মা (১৩ দশমিক ০৪ শতাংশ), পিপলস লিজিং অ্যান্ড ফিন্যান্স (১২ দশমিক ৬২ শতাংশ), ফিনিক্স ফিন্যান্স (১১ দশমিক ৮১ শতাংশ), বরকতউল্লাহ ইলেকট্রো ডাইনামিক (১১ দশমিক ৭২ শতাংশ), ইউনাইটেড ইন্স্যুরেন্স (১১ দশমিক ২১ শতাংশ), আইএলএফএসএল (১০ দশমিক ৯৮ শতাংশ), বে লিজিং (১০ দশমিক ৯৬ শতাংশ) এবং সামিট অ্যালায়েন্স পোর্ট (১০ দশমিক ৮৩ শতাংশ)।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here