ডেস্ক রিপোর্টঃ সঞ্চয়পত্রে বিনিয়োগের চাপ ধীরে ধীরে কমছে। চলতি ২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রথম মাস জুলাইয়ে ৫ হাজার ৫৩ কোটি টাকা নিট বিনিয়োগ আসে সঞ্চয় স্কিমগুলো থেকে। আগস্টে নিট ঋণ আসে ৩ হাজার ৯৭৫ কোটি টাকা এবং সর্বশেষ গত সেপ্টেম্বরে আসে ৩ হাজার ৬৬৫ কোটি টাকা। জাতীয় সঞ্চয় অধিদপ্তরের করা সঞ্চয় স্কিমগুলোর মাসিক বিনিয়োগ বিবরণী থেকে এমন চিত্রই পাওয়া গেছে। খবর কালের কণ্ঠের।

অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) জাতীয় সঞ্চয় স্কিমগুলো থেকে নিট ঋণ এসেছে ১২ হাজার ৬৯৪ কোটি টাকা, যা অর্থবছরের পুরো সময়ের লক্ষ্যমাত্রার ৪২.১০ শতাংশ। চলতি অর্থবছরের বাজেট ঘাটতি মেটাতে সঞ্চয় স্কিমগুলো থেকে ৩০ হাজার ১৫০ কোটি টাকা ঋণ নেওয়ার লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে সরকারের।

তা ছাড়া চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে আগের (২০১৬-১৭) অর্থবছরের একই সময়ের চেয়ে সঞ্চয় স্কিমগুলো থেকে নিট ঋণ বেড়েছে ৮.৯৬ শতাংশ। গত অর্থবছরে এ সময়ে সঞ্চয় স্কিমগুলো থেকে নিট ঋণ আসে ১১ হাজার ৬৫০ কোটি টাকা।

এদিকে চলতি অর্থবছরের তিন মাসে (জুলাই-সেপ্টেম্বর) বিক্রি হওয়া সঞ্চয়পত্রের এক-তৃতীয়াংশই ছিল পরিবার সঞ্চয়পত্র। পরিবার সঞ্চয়পত্র থেকে নিট চার হাজার ১৪৮ কোটি টাকা ঋণ পেয়েছে সরকার। তিন মাস অন্তর মুনাফাভিত্তিক সঞ্চয়পত্র থেকে তিন হাজার ৩৮৩ কোটি টাকা এবং পেনশনার সঞ্চয়পত্র থেকে এক হাজার ৪৬৫ কোটি টাকা নিট ঋণ এসেছে।