স্টাফ রিপোর্টার : বিনিয়োগকারীরা রিয়েল টাইম মোবিলিটির সুবিধা পাবেন এবং নিজেই মোবাইলে শেয়ার লেনদেন করতে পারবেন এবং এই ট্রেডিংয়ে প্রাথমিকভাবে কোনো চার্জ ধরা হচ্ছে না। রোববার (৬ মার্চ) অনুষ্টিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এমনটাই বলেন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) ব্যবস্থাপনা পরিচালক স্বপণ কুমার বালা।মোবাইল ট্রেডিং গত ফেব্রুয়ারিতে আনুষ্ঠানিকভাবে চালুর কথা থাকলেও তা হয়নি। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত দেশের বাইরে ছিলেন। তাই আগামী ৯ মার্চ এর উদ্বোধনের দিন ঠিক করা হয়েছে।

সিকিউরিটিজ হাউজগুলোর নতুন ব্র্যাঞ্চ খোলার অনুমতি না থাকায় হাউজগুলো এক যায়গায় সীমাবদ্ধ ভাবে রয়েছে। মোবাইল ট্রেডিং চালু হলে দূরের বিনিয়োগকারীরাও ট্রেড করতে পারবেন। ইতোমধ্যে ডিএসইর ২৩৪টি ব্রোকারেজকে এ বিষয়ে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।  প্রথম দিকে এই ট্রেডিংয়ে কোন চার্জ নেওয়া হবে না। তবে কয়েক মাস পর চার্জ নেওয়া হবে এবং তার পরিমান পরে জানানো হবে। সংবাদ সম্মেলনে এমনটি বলছেন স্বপণ কুমার বালা।

ব্যবস্থাপনা পরিচালক বলেন, মোবাইলে ট্রেড করতে চাইলে সিকিউরিটিজ হাউজগুলোর মাধ্যমে করতে হবে। রেজিস্ট্রেশনের মাধ্যমে একজন মোবাইল ট্রেডার তার লেনদেনের অর্ডার সম্পন্ন হয়েছে কি না তা জানতে পারবেন। তবে লেনদেন করতে চাইলে প্রতিবার অর্ডার দেওয়ার ক্ষেত্রে বিনিয়োগকারীকে পাসওয়ার্ড দিতে হবে বলে জানান তিনি।

কোন বিনিয়োগকারী বাই অথবা সেল অর্ডার দেয়ার পর তা সরাসরি ডিএসইর সার্ভারে সাবমিট হবে এবং সংশ্লিষ্ট ব্রোকারকে প্রদর্শন করবে। একই সময়ে অর্ডারটি বাজারের জন্য সংবেদনশীল হলে তা নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা রাখবে ব্রোকারেজ হাউজ।

অনুষ্ঠানে ডিএসইর ব্যবস্থাপনা পরিচালকের সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন, প্রধান রেগুলেটরি অফিসার জিয়াউল হাসান খান, প্রধান অর্থ কর্মকর্তা আবুল মতিন পাটোওয়ারি প্রমুখ।

উল্লেখ্য যে, স্টক বাংলাদেশ ইতিমধ্যেই এই সুবিধা বিগত ৫ বছর যাবত ৫ টি ব্রোকার হাউজের মাধ্যমে সফলতার সাথে দিয়ে আসছে। বিস্তারিত জানার জন্য এখানে যান।

পুঁজিবাজারে স্বাচ্ছন্দ্য আনতে চালু হল OMO Plus

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here