শর্টটার্মে বিনিয়োগ স্থিতিশীল বাজারের জন্য ভালো নয়

0
1635

শ্যামল রায় : রাসেল আহমেদ সবুজ, তিনি একজন সরকারি চাকুরে। চাকরির পাশাপাশি শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ করছেন অনেকদিন ধরে। বিনিয়োগটা তাকে অনেকটা আর্থিক যোগান এবং অবসর সময় ব্যস্থ থাকার সুযোগ করে দেয়। তার বিনিয়োগ পরিকল্পনা এবং বর্তমান বাজারের সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে স্টক বাংলাদেশের সঙ্গে হয়েছে একান্ত আলাপচারিতা। আলোচনায় উঠে আসে বিনিয়োগ ভাবনার বিভিন্ন কথা। তুলে এনেছেন শ্যামল রায়।

স্টক বাংলাদেশ : এত ব্যবসা থাকতে শেয়ার বাজারে কেন বিনিয়োগে আকৃষ্ট হলেন?

রাসেল আহমেদ সবুজ: আমি চাকরির পাশাপাশি অনেকদিন ধরেই কিছু একটা করার চিন্তা করছিলাম। সেই জন্য ছোট আকারের একটা পুজিও গঠন করি। অনেকগুলো ব্যবসা সম্পর্কে আইডিয়া নাই। কিন্তু সবগুলো ব্যবসায় আমার জন্য একটু টাফ হয়ে যায়। এইজন্য শেয়ার বাজারকেই আমি বেছে নেই।

স্টক বাংলাদেশ: এখানেতো ঝুঁকি অনেক। সব সময় মনের মধ্যে একটা ভয় কাজ করে। আর শেয়ার বাজারে বিনিয়োগ সব সময় নিজেকে টেনশনে রাখে। জেনে-শুনে এখানে কেন?

রাসেল আহমেদ সবুজ: কমবেশি সব ব্যবসায় ঝুঁকি আছে। তবে শেয়ার বাজারে ঝুঁকিটা বোধ হয় আরও একটু বেশি। তারপরও শেয়ার বাজারে আসলাম। কারণ এটার জন্য শুধু একটা পুঁজি হলেই চলে। অন্য আর সব ব্যবসাগুলোতে লোকবল, স্থান, কিংবা প্রচুর সময়ের  দরকার হয়। কিন্তু এটাতে সেইসব ঝামেলা নেই বললেই চলে।

স্টক বাংলাদেশ: আপনার দৃষ্টিতে জারের ভালো মন্দ দিকগুলো জানতে চাই

রাসেল আহমেদ সবুজ: আমার মনে হয় বাংলাদেশের শেয়ার বাজার বিনিয়োগকারীদের জন্য এখনোও কনফিডেন্স দিতে পারে নি। সব সময় একটা আতংক নিয়ে বিনিয়োগকারীরা এখানে বিনিয়োগ করেন। কিন্তু এটা হওয়ার কথা ছিল না। দেশ স্বাধীন হওয়ার প্রায় আমরা ৫০ বছর অতিক্রম করতে যাচ্ছি। কিন্তু আমাদের পুজিবাজার এখনও একটা শক্ত ভিত্তির উপর দাঁড়াতে পারেনি। এটা আমাদের জন্য একটা বড় সমস্যা।

স্টক বাংলাদেশ: এই মুহূর্তে বাজার পরিস্থিতি নিয়ে আপনার মতামত কি?

রাসেল আহমেদ সবুজ: বাজার অনেকটা ভালো। চালাক বিনিয়োগকারীরাই শেয়ার কিনছেন আবার প্রফিট নিয়ে শেয়ার ছাড়ছেন। কিন্তু এ ধরনের টেনডেন্সি ভালো বাজারের অন্তরায়। শর্টটার্ম বিনিয়োগ একটি স্থীতিশীল বাজারের জন্য ভালো নয়।

স্টক বাংলাদেশ: বাজারে ব্যাংকগুলোর একটা প্রভাব দেখা যায়। অর্থাৎ ব্যাংকগুলো ভালো করলে ইন্ডেক্স বাড়ে। আবার ব্যাংকের দাম কমলে ইন্ডেক্স ফল্ট করে কারণ কি?

রাসেল আহমেদ সবুজ: কারণটা খুবই স্বাভাবিক। আমাদের বাজারে ব্যাংকের শেয়ার সংখ্যা অনেক কাজেই মার্কেটের আপ ডাউন অনেকটা ব্যাংক নির্ভর। এটা যাতে না হয় সেজন্য সরকারের বিকল্প ভাবনা থাকা উচিত।

স্টক বাংলাদেশ: কি সেই বিকল্প ভাবনা বা পথটা?

রাসেল আহমেদ সবুজ: এইজন্য সরকারের উচিত প্রডাকশন খাতের ভালো ভালো কোম্পানিগুলোকে শেয়ারবাজারে নিয়ে আসা। ভালো ভালো কোম্পানিগুলো বাজারে আসলে মার্কেট এমনিতেই ভালো হবে। এইজন্য বিনিয়োগকারীদের অস্বচ্ছতার মধ্যে থাকতে হবে না।

স্টক বাংলাদেশ: আপনার নিজের পোর্টফোলিওর বর্তমান অবস্থা কেমন?

রাসেল আহমেদ সবুজ: আসলে আমিতো শর্ট টার্ম কোন বিনিয়োগ করি না। আমি মূলত লং টার্ম বিনিয়োগ করি। বর্তমানে পোর্টফলিওতে লাভ দেখতে পাই আবার ২/৪ দিন পরে সেটা লসে চলে যায়। এর একটাই কারণ, এই মুহূর্তে পুঁজিবজার খুবই ফ্রাকচুয়েট করছে। আমি আশা করছি- শিশগিরই মার্কেট ভালো হবে।

স্টক বাংলাদেশ : সময় দেয়ার জন্য আপনাকে ধন্যববাদ।

রাসেল আহমেদ সবুজ: আপনাকেও ধন্যবাদ।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here